আপডেট ৩ মিনিট ২১ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৫ কার্তিক, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ১০ সফর, ১৪৪০

বরিশাল, সড়ক সংবাদ বাউফলে ফেরিঘাটে পুলিশের চাঁদাবাজি

বাউফলে ফেরিঘাটে পুলিশের চাঁদাবাজি

বাউফল ফেরিঘাটে পুলিশের চাঁদাবাজি

কামরুল হাসান, নিরাপদ নিউজ : পটুয়াখালী বাউফলের বগা পুলিশ ফাড়ির কনষ্টেবল মহিউদ্দিনর বিরুদ্ধে ফেরিঘাটে পন্যবাহী গাড়ি, পিক-আপ ভ্যান ও ট্রাক চালকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায়ের অভিযাগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার বিকালে বগা ফেরিঘাটে এলাকায় মহিউদ্দিন নামে এক পুলিশ কনষে্টবল ফেরিতে ওঠার জন্য অপক্ষমান পিক-আপ ভ্যান, ট্রাক এবং মিনি ট্রাক থেক চাঁদার টাকা তুলছিলেন। ওই পুলিশ কনষ্টেবলকে সাংবাদিকরা অনুসরন করার চেষ্টা করলে তিনি কিছুটা দূরত্ব বজায় রেখে চালকদের কিছুটা দূরে ডেকে নিয়ে গিয়ে কথা বলেন। এরপর তিনি ট্রাকের পাশ দিয়ে চলে যাওয়ার সময় দেখা যায় সুকৌশলে গাড়ীর চালকের হাতের মুঠায় থেকে টাকা নিয়েছেন। বিষয়টি সাংবাদিকরা মোবাইল ক্যামরায় ভিডিও ধারন করেন। পরে পুলিশ কনষ্টেবল মহিউদ্দিনকে টাকা নেয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘ কই টাকা নিছি’।এক পর্যায় ওই পুলিশ কনষ্টেবল সাংবাদিকের পরিচয় জানতে চাইলে তাকে সাংবাদিকের পরিচয় পত্র দেখানো হয়। সাংবাদিকের পরিচয় পেয়ে বিয়য়টি নিয়া কিছু না লেখার জন্য সাংবাদিককে অনুরোধ জানান। ভুক্তভোগী গাড়ি চালকরা জানান, নানা ত্রুটি বিচ্যুতির কথা বলে গাড়ি ভেদে পুলিশ ৫০ থেকে ২০০টাকা পর্যন্ত চাঁদা আদায় করেন। নাম প্রকাশ না করার শর্ত এক পিকআপ ভ্যান ড্রাইভার বলেন, ভাই ভাড়ায় পিকআপ চালাই। একটা ট্রিপ কয় টাকা আয় হয়। তারপর মহাজনের ভাড়ার টাকা, তেল খরচ ,আবার ঘাট ঘাট পুলিশকে টাকা দিতে হয়। সব দিয়া কয় টাকা থাকে বলেন? বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজম খান ফারুকী বলেন, ‘কোন পুলিশ সদস্য যদি এ রকম ঘটনার সাথে জড়িত থাকে অবশ্যই তার বিরুদ্ধ প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা নেয়া হবে ৷

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)