আপডেট ৫ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড

ঢাকা রবিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ , গ্রীষ্মকাল, ২০ রমযান, ১৪৪০

বরিশাল বাউফলে বিয়ের দিন রাতে নববধুকে মারধর করে বাড়ি থেকে বিতাড়িত!

বাউফলে বিয়ের দিন রাতে নববধুকে মারধর করে বাড়ি থেকে বিতাড়িত!

কামরুল হাসান,নিরাপদ নিউজ: বাউফলে বিয়ের দিন রাতে এক তরুনীকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। ওই তরুনীর নাম সানিয়া আক্তার। রবিবার রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, মদনপুরা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সোবহান হাওলাদারের ছেলে সোহাগ হাওলাদারের সাথে একই এলাকার সানিয়া আক্তার নামের এক তরুনীর দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। সোহাগ তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। সম্প্রতি সানিয়া তাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে সোহাগ টালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে বুধবার (৬মার্চ) সন্ধ্যার দিকে বিয়ের দাবিতে সানিয়া প্রেমিক সোহাগের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নেয়। ৪ দিন ওই বাড়িতে অবস্থানের পর স্থানীয়দের চাপে রবিবার রাতে বিলবিলাস বাজারের একটি মসজিদে বসে সাড়ে তিন লাখ টাকা কাবিনে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অভিযোগ রয়েছে, বিয়ের দিন রাতে সোহাগ হাওলাদার তার স্ত্রী সানিয়া আক্তারকে নিয়ে তাদের বাড়িতে গেলে সোহাগের মা রওশন আরা বেগম ও তাঁর তার বোন বিউটি সানিয়াকে ঘরে ঢুকতে বাধা দেয়। একপর্যায়ে তাকে বেধরক মারধর করে ওই রাতেই তাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। সানিয়া বর্তমানে প্রতিবেশী এ ব্যক্তির ঘরে আশ্রয় নিয়েছেন। এ ঘটনার পর সানিয়ার স্বামী সোহাগ ও শ্বশুর সোবহান হাওলাদার গা ঢাকা দিয়েছে। এব্যাপারে সোহাগের মা রওশন আরা বেগম বলেন,“আমি সানিয়াকে কোন দিনই পুত্রবধূ হিসাবে মেনে নিবনা, ছেলে বিয়ে করলে, তার বউ নিয়া অন্য জায়গায় গিয়ে থাকুক। আমার ঘরে কোন দিনই তার জায়গা হবেনা ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)