আপডেট ২৭ মিনিট ১৮ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ১০ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ২৩ জিলহজ্জ, ১৪৪০

পরিবেশ, বরিশাল বাউফলে মেছোবাঘের শাবক অবমুক্ত

বাউফলে মেছোবাঘের শাবক অবমুক্ত

 কামরুল হাসান,নিরাপদ নিউজ: গ্রামের জঙ্গলে অবমুক্ত হলো মেছোবাঘের এক শাবক। মা-বাঘটির সঙ্গে খাবার খুঁজতে বেড় হয়ে পটুয়াখালীর বাউফলের দক্ষিন ধানদী গ্রামের ছেপের হাওলাদার বাড়ি সংলগ্ন রাস্তার পাশে স্থানীয় কয়েক উৎসুক কিশোরের হাতে আটকের পর ‘সেভ দি বার্ড এ্যান্ড বি’ নামে প্রাণ-প্রকৃতি-প্রতিবেশ বিষয়ক স্থানীয় সংগঠনের সদস্যের সহোযোগিতায় আজ বৃহস্পতিবার বিকালে অবমুক্ত করা হয় শাবকটিকে।

স্থানীরা জানান, দুই-তিন দিন আগে তেঁতুলিয়া পাড়ের ভাঙা রাস্তার পাশের কেয়া-ঝোপের আড়াল থেকে মা-বাঘটির সঙ্গে খাবার খুঁজতে বের হয়ে এলাকার মাছের ঘের আর মুরগীর খামারীদের ধাওয়া খেয়ে দুর্বল হয়ে পড়ে মেছোবাঘের চার-চারটি শাবক। সেবার শাবকগুলো মা-বাঘটির সঙ্গে পালিয়ে যেতে পারলেও শনিবার ইফতারের পরে স্থানীয় কয়েক কিশোরের ফের ধাওয়ায় নিরুপায় হয়ে ধরা পড়ে একটি শাবক। এ খবর পেয়ে স্থানীয় ‘সেভ দি বার্ড এ্যান্ড বি’ নামে পরিবেশ বিষয়ক সংগঠনের কয়েক সদস্য স্থানীয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী রোকনুজ্জামান, সাগর, সাদ্দাম খলিলসহ কয়েকজন ছুটে গিয়ে উৎসুক ওইসব শিশু-কিশোরসহ স্থানীয় কৃষক-কৃষাণীর সঙ্গে কথা বলেন এবং তাদের বুঝিয়ে গ্রামের রাস্তার পাশের জঙ্গলে মা-বাঘটি থাকতে পারে সেই সম্ভাব্য স্থানে বিকালে অবমুক্ত করে শাবকটিকে।

ধানদী গ্রামের আবুল কাসেম জানান, কয়েকদিন আগে দক্ষিন ধানদী এলাকাসহ মালেক চৌকিদার ও জাফর দেওয়ানের মাছের ঘের-মুরগীর খামারের পাশের রাস্তায় এক-দেঁড় মাস বয়সী বাচ্চাসহ ঘুরতে দেখে মা বাঘটিকে স্থানীয় কয়েকজন। ধাওয়া খেয়ে অনেকটাই অসহায় ও দুর্বল হয়ে পড়ছিল বাচ্চাগুলো। ধরা পড়ায় স্থানীয় উৎসুক লোকজন ভিড় জমায় খাঁচায় বন্ধি মেছোবাঘের বাচ্চাটিকে দেখতে ছেপের হাওলাদার বাড়ি। কেউ কেউ বাড়িতে পোষারও আগ্রহ দেখান। টাকার বিনিময়ে বিক্রি করতে চাইলেও স্থানীয় প্রাণ-প্রকৃতি-প্রতিবেশ রক্ষার মতো পরিবেশ বিষয়ক ‘সেভ দি বার্ড এ্যান্ড বি’ নামে ক্ষুদে আন্দোলন কর্মীদের তৎপরতায় গ্রামের জঙ্গলেই অবশেষে অবমুক্ত করা হয় বাচ্চাটি। তবে ধরা পড়ার সময় ও মা বাঘটিকে কাছে না থাকায় অনেকটা কাবু হয়ে পড়ে শাবকটি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)