ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মে ১৩, ২০১৭

ঢাকা রবিবার, ১০ আষাঢ়, ১৪২৫ , বর্ষাকাল, ৯ শাওয়াল, ১৪৩৯

রাজনীতি, লিড নিউজ বিএনপি চায় সবার অংশগ্রহণে জাতীয় সংসদ নির্বাচন : সোহেল

বিএনপি চায় সবার অংশগ্রহণে জাতীয় সংসদ নির্বাচন : সোহেল

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল

১৩ মে ২০১৭, নিরাপদ নিউজ : বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল বলেছেন, বিএনপি চায় সবার অংশগ্রহণে স্বতন্ত্র নির্বাচন কমিশন ও নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের অধীনে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন। যদি সরকার বিএনপির দাবি না মানে তাহলে দাবি আদায়ে খালেদা জিয়া আন্দোলনের ডাক দেবেন। সেই আন্দোলনের জন্য জনগণকে সাথে নিয়ে নেতাকর্মীদের প্রস্তুতি নিতে হবে।
তিনি আজ শনিবার দুপুরে বগুড়া জেলা বিএনপির বিশাল কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও বগুড়া জেলা সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে শহরের নবাববাড়ী সড়কের টিএমএসএস মহিলা মার্কেট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত কর্মী সভায় আরো বক্তব্য দেন চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট এ কে এম মাহবুবর রহমান, জেলা সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, কেন্দ্রীয় সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শোকরানা, অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম, লাভলী রহমান, আলী আজগর হেনা, বিএনপি নেতা মীর শাহে আলম, এম আর ইসলাম স্বাধীন, পরিমল চন্দ্র দাস, সিপার আল বখতিয়ার, শাহ মেহেদী হাসান হিমু, আব্দুল ওয়াদুদ, আবুল বাশার, একেএম তৌহিদুল আলম মামুন, দেলোয়ার হোসেন পশারী হিরু, জাহাঙ্গীর আলম, প্রমুখ।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বিএনপি নির্বাচনমুখী দল। তাই নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার দরকার। আমরা এই দাবী আদায়ে রাজপথের আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আপনারা প্রস্তুত থাকুন । তিনি বলেন, আগামী দিনে বিএনপি কী করবে তা জনগণ জানতে চায়। তাই জনগণকে জানাতে ভিশন ২০৩০ ঘোষণা করেছেন খালেদা জিয়া। এটা নতুন নয়, এর আগেও বিএনপি ভিশন ঘোষণা করেছিল। বিএনপি আন্দোলন ও নির্বাচন দুটিরই প্রস্তুতি নিচ্ছে। এর আগে কবুতর ও বেলুন উড়িয়ে সভা উদ্বোধন করেন হাবিবউন নবী খান সোহেল।
সভাপতির বক্তব্যে ভিপি সাইফুল বলেন, আ’লীগ পরাজয়ের ভয়ে বিএনপির দাবি মানছে না। তাই আন্দোলনের মাধ্যমেই দাবি আদায় করতে হবে। কর্মীসভায় বিপুল উপস্থিতি প্রমাণ করে বগুড়া বিএনপির ঘাঁটি।
এদিকে কর্মীসভা ঘিরে শহরে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সেই সাথে রায়ট কার ও জলকামান প্রস্তুত ছিল সভাস্থলের বাইরে। বিএনপি নেতাকর্মীরা মিছিল সহকারে সভায় যোগদেন। সভা শুরুর আগেই সভাস্থল নেতাকর্মীদের উপস্থিতিতে উপচে পড়ে। তাই মিলনায়তনে জায়গা না পেয়ে অসংখ্য কর্মী আশপাশে অবস্থান নেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)