ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ডিসেম্বর ১০, ২০১৪

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ৮ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ২১ জিলহজ্জ, ১৪৪০

ব্যবসা-বাণিজ্য বিশ্বকাপ ও বাণিজ্যমেলাকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রস্তুতি ওয়ালটনের

বিশ্বকাপ ও বাণিজ্যমেলাকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রস্তুতি ওয়ালটনের

walton

ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর ২০১৪, নিরাপদনিউজ : আগামি ফেব্রুয়ারি-মার্চে অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ ক্রিকেট। মাঝখানে মাত্র একমাস সময়। ক্রিকেট বিশ্বকাপকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে দেশের শীর্ষ টিভি উৎপাদন ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। ঢাকা আন্তর্জাতিক বানিজ্যমেলা এবং বিশ্বকাপ ক্রিকেট ঘিরে বাজারের বাড়তি চাহিদা মেটাতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ। বাড়ানো হয়েছে উৎপাদন। বেড়েছে গুনগত মান।
এদিকে উৎপাদন বৃদ্ধি পাওয়ায় এলইডিসহ ওয়ালটন ব্র্যান্ডের সব ধরনের টিভির দাম কমানো হয়েছে। বিশ্বকাপ এবং আগামি মাসে অনুষ্ঠিতব্য বানিজ্য মেলায় আসছে নতুন মডেলের বেশ কিছু টিভি সেট। বর্তমানে মোট ৬৪ মডেলের এলইডি এবং সিআরটি টিভি রয়েছে ওয়ালটনের। অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে দেখা গেছে, বিশ্বকাপ শুরুর সময়ে ব্যাপক হারে বেড়ে যায় সিআরটি, এলসিডি এবং এলইডি টেলিভিশনের চাহিদা। প্রযুক্তিগত উৎকর্ষতার সাথে সাথে স্মার্ট এলইডি টিভির চাহিদা বেড়েছে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে ওয়ালটন টিভির উৎপাদন কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে।
সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ওয়ালটনের ১৪ ইঞ্চি থেকে ৫৫ ইঞ্চির ৩২ টি মডেলের এলইডি টিভি রয়েছে। মডেলভেদে ৩০০ থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে। এখন ১৪ ইঞ্চি এলইডি টিভির মূল্য মাত্র ৯৫০০ টাকা। ১৬ ইঞ্চি এলইডি টিভির দাম এক হাজার টাকা কমেছে, পাওয়া যাচ্ছে ১০ হাজার ৯০০ টাকায়। ৫৫ ইঞ্চি এলইডি টিভি মিলবে ৯০ হাজার ৯০০টাকায়। শুধু এলইডি টেলিভিশন নয়; সিআরটি (ক্যাথড রে টিউব) টিভির দামও কমেছে। ৯৫০০ টাকা দামের সিআরটি টিভি ক্রেতারা কিনতে পারবেন ৭৬০০ টাকায়। আর ২১ ইঞ্চি সিআরটি পাওয়া যাবে ১০ হাজার ৯৫০ টাকায়।
ওয়ালটনের প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদ হোসেন জানান, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন কিছু নতুন মডেলের টিভি নিয়ে আসছে। এরমধ্যে ক্রেতা আকর্ষণের শীর্ষে থাকবে ৩২ ইঞ্চি ইন্টারনেট সার্ফিং টেলিভিশন, ১৯ ও ২৪ ইঞ্চি কালার লাইন এলইডি টেলিভিশন, ৫৫ ও ৬৫ ইঞ্চি কার্ভ ওএলইডি (অর্গানিক লাইট ইমিটিং ডায়ড) টিভি এবং ৬৫ ইঞ্চি এইএইচডি (আল্ট্রা হাই ডেফিনিশন) থ্রিডি স্মার্ট টিভি।
ওয়ালটনের বিপণন বিভাগের নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার বলেন, উৎপাদন বৃদ্ধি পাওয়ায় মাথাপিছু উৎপাদন ব্যয় কমেছে। ফলে দামও কমিয়েছে ওয়ালটন। দাম কমলেও পণ্যের গুনগত মান বেড়েছে। তিনি বলেন, স্বল্প আয়ের মানুষের চাহিদার বিষয়টি মাথায় রেখে ওয়ালটন ব্যাপক হারে এলইডি ও সিআরটি উৎপাদন করছে। ফলে এসব টিভির দাম ভবিষ্যতে আরো কমবে। ওয়ালটন নিজস্ব কারখানায় অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় মেশিনে টিভি উৎপাদন শুরু করেছে। স্থাপন করা হয়েছে বিশাল ওয়্যার হাউজ। যেখানে ১ লাখ ৭০ হাজার থেকে ২ লাখ টিভি মজুদ রাখা যায়। যা আগের চেয়ে অনেক বেশি।
ওয়ালটন টেলিভিশন বিপণন বিভাগের প্রধান মওদুদ পারভেজ মামুন জানান, ক্রিকেট এখন দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। আগামি বিশ্বকাপ ক্রিকেট দেখার জন্য টিভির চাহিদা অনেক বেড়ে যাবে। বানিজ্য মেলাতেও টিভি বিক্রি বাড়ে। এই বাড়তি চাহিদার বিষয়টি মাথায় রেখে মজুদ বাড়াচ্ছে ওয়ালটন। তিনি বলেন, এলইডি টিভি উৎপাদনে রীতিমত বিপ্লব ঘটিয়েছে ওয়ালটন। উৎপাদন এবং মাননিয়ন্ত্রনে ব্যবহার করা হচ্ছে উন্নত প্রযুক্তি। এছাড়াও টিভি উৎপাদনের কাঁচামালও উৎপাদন করছে ওয়ালটন।
প্রসঙ্গত বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি ফোর-কে ইউএইচডি এলইডি টিভি বাজারে এনেছে ওয়ালটন। এছাড়াও নিজস্ব ডিজাইনে টিভি রিমোটও তৈরি শুরু করছে প্রতিষ্ঠানটি। দ্রুত বর্ধনশীল টিভি তৈরি খাত নিয়ে সংশ্লিষ্টরা ভীষণ আশাবাদী। স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিভিন্ন দেশে রফতানি হচ্ছে ওয়ালটন টেলিভিশন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)