আপডেট ২৫ মিনিট ৫৮ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৫ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৫ শাওয়াল, ১৪৪০

সম্পাদকীয় বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশ: দৃপ্ত পদচারণ অব্যাহত থাকুক

বিশ্বকাপ ক্রিকেটে বাংলাদেশ: দৃপ্ত পদচারণ অব্যাহত থাকুক

নিরাপদনিউজ : প্রতি চার বছর অন্তর বিশ্বকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আয়োজন করে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। প্রথম টুর্নামেন্ট আয়োজিত হয়েছিল ১৯৭৫ সালে, ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে। এবার আয়োজিত হয়েছে দ্বাদশ বিশ্বকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, সেই ইংল্যান্ড-ওয়েলসেই। শুরু হয়েছে ৩০ মে, শেষ হবে ১৪ জুলাই। এবার ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপ খেলায় অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এ আসরে তাদের প্রথম খেলা ছিল রবিবার, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে।

এবারের ক্রিকেট দলের কাছে বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশার মাত্রা অন্যবারের চেয়ে বেশি। কয়েক বছর ধরে ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলছে দলটি। বিশ্বকাপ টুর্নামেন্ট শুরুর আগে একটি ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে তারা। বেশ গোছালো দলটির কাছে তাই প্রত্যাশার মাত্রা বেশি। বিশ্বকাপ ক্রিকেট ২০১৯-এর প্রথম খেলায় বাংলাদেশের অর্জন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের মতে প্রত্যাশার চেয়ে বেশি। প্রতিপক্ষ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দল। দাপটের সঙ্গে খেলে জিতেছে বাংলাদেশ।

প্রথমে ব্যাটিং করে ৩৩০ রান সংগ্রহ করে, যা ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোর। শেষ পর্যন্ত মাশরাফি বিন মর্তুজার নেতৃত্বাধীন দল জিতেছে স্বাচ্ছন্দ্যে। এ জয়ের মধ্য দিয়েই দ্বাদশ আসরে সাবলীল সূচনা হলো বাংলাদেশ দলের। আশা-জাগানিয়া সূচনা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০১৯ বিশ্বকাপ টুর্নামেন্টের শুরুতে অনেক কিছু পেয়েছে বাংলাদেশ। টসে হেরে ব্যাটিংয়ে যায় বাংলাদেশ, দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সংগ্রহ করে ৩৩০ রান। ভালো রান হলেও দক্ষিণ আফ্রিকা দলের কাছে এ রান ভয়ানক কিছু নয়, আবার হেলাফেলা করে জিতে যাওয়ার মতোও নয়। ফলে ম্যাচটি হয়েছে উত্তেজনাপূর্ণ। জয়ের পাল্লা বেশ কয়েক বার দক্ষিণ আফ্রিকার দিকে ঝুঁকেছে।

তবে ফল উঠেছে বাংলাদেশের ঝুড়িতেই। বাংলাদেশ দলের সক্ষমতা ও পরিপক্বতা অনেক বেড়েছে। কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক পরিস্থিতির সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে তারা। আগে এমন পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ দলের গা ছেড়ে দেওয়ার দুর্নাম ছিল, সেটি এখন নেই। ব্যাটিং-বোলিং দুটিতেই ভালো করেছে তারা। ব্যাটিংয়ে বেশি ভালো করেছে, বোলিংয়ে আরো ভালো করা দরকার ছিল।

ফিল্ডিংয়ে কিছু দৃষ্টিকটু দুর্বলতা ছিল; নিশ্চিত ক্যাচ মিস করেছে কয়েকবার। অবশ্য ফল বাংলাদেশের পক্ষেই গেছে অধিনায়কের বিচক্ষণতায়। এ খেলায় অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান অনন্য কৃতিত্বের অধিকারী হয়েছেন; ওয়ানডে ক্রিকেটে সবচেয়ে কম ম্যাচ খেলে ২৫০ উইকেট ও পাঁচ হাজার রানের মালিক হয়েছেন।

এবারের আসরের প্রথম খেলায় বাংলাদেশ দল যে মানসিকতা ও সামর্থ্যরে পরিচয় দিয়েছে, তা ধরে রাখবে বলে আমরা আশা করি। তাহলে দেশবাসী তাদের ওপর যে আশা রেখেছে, তা পূরণ হবে। প্রথম খেলার জয় সে আশারই দ্যোতক। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য শুভ কামনা।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)