ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১৫ মিনিট ৮ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪১

ঢাকা, নারী ও শিশু সংবাদ বিয়ের ৭ বছর পর ৩ সন্তান পেলেন দম্পতি!

বিয়ের ৭ বছর পর ৩ সন্তান পেলেন দম্পতি!

নিরাপদ নিউজ: নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সৈয়দপুর এলাকার আব্দুস সামাদের স্ত্রী নাসরিন আক্তার একসঙ্গে তিন সন্তান প্রসব করেছেন। বিয়ের সাত বছর পর একসঙ্গে তিন সন্তানের মুখ দেখলেন এই দম্পতি।

শুক্রবার সকালে প্রসব ব্যথা উঠলে প্রসূতি নাসরিনকে দ্রুত শহরের ডন চেম্বারের বেসরকারি মেডিস্টার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে বেলা ১১টার দিকে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের গাইনি ও অবস্ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. শারমিন সিদ্দিকা রুমকির তত্ত্বাবধানে সিজারের মাধ্যমে তিনটি সন্তানের জন্ম দেন নাসরিন।

সন্তান তিনটির মধ্যে দুইটি মেয়ে ও একটি ছেলে। তাদের ওজন যথাক্রমে প্রথম মেয়ে ২.৭ কেজি, দ্বিতীয় ছেলে ২.৬ কেজি, তৃতীয় মেয়ে ২ .৫ কেজি। বর্তমানে মা নাসরিনসহ তিন সন্তানই সুস্থ রয়েছেন বলে জানান ডা. শারমিন সিদ্দিকা রুমকি।

তিনি বলেন, যমজ সন্তান প্রসবের বিষয়টি খুব সাধারণ। তবে একসঙ্গে তিন সন্তান প্রসবের বিষয়টি তেমন একটা হয় না। ৩৭ সপ্তাহ পার করার পর এই প্রসূতির সন্তান প্রসব হয়েছে। একটি বাচ্চা উল্টে ছিল, নরমাল প্র্যাকটিস করতে গেলে বাচ্চা লক হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা ছিল।

যার ফলে সিজার করতে বাধ্য হয়েছি। তবে বাচ্চা তিনটির ওজন ও শারীরিক অবস্থা পুরোপুরি স্বাভাবিক। তাদের মা বর্তমানে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন।

তিন সন্তানের বাবা আব্দুস সামাদের বাড়ি পাবনার সুজানগর উপজেলার তারাবাড়িয়া গ্রামে। তিনি মুন্সিগঞ্জের মোক্তারপুরের প্রিমিয়ার সিমেন্ট ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন। চাকরি সূত্রে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার সৈয়দপুরের ফকিরবাড়ি এলাকায় বসবাস করেন।

আব্দুস সামাদ বলেন, বিয়ের সাত বছর পর আমার ঘরে তিনটি সন্তান ভূমিষ্ট হওয়ায় আমি ভীষণ খুশি হয়েছি। আমার আবেগ বলে বুঝাতে পারবো না। তবে তিন সন্তান হওয়ার বিষয়টি আগেই তারা জানতেন বলে জানান তিনি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)