ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুলাই ২২, ২০১৫

ঢাকা সোমবার, ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২০ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

কৃষি, রংপুর বোচাগঞ্জের কৃষাণ কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্তুত ও আমন ধানের চারা রোপনে ব্যস্ত

বোচাগঞ্জের কৃষাণ কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্তুত ও আমন ধানের চারা রোপনে ব্যস্ত

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার কৃষাণ/কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্তুত ও আমণ ধানের চারা লাগানো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। গতকাল ২২জুলাই বুধবার বোচাগঞ্জ উপজেলার মালিপাড়া মৌজা থেকে ছবিটি তোলা হয়

দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার কৃষাণ/কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্তুত ও আমণ ধানের চারা লাগানো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। গতকাল ২২জুলাই বুধবার বোচাগঞ্জ উপজেলার মালিপাড়া মৌজা থেকে ছবিটি তোলা হয়

২২ জুলাই ২০১৫, নিরাপদ নিউজ.মোঃ শামসুল আলমঃ চলতি আমন মৌসুমে বোচাগঞ্জের কৃষাণ/কৃষাণীরা ফসলের মাঠ প্রস্তুত ও আমন ধানের চারা লাগানো নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে।

যদিও কৃষরা গত কয়েক মৌসুমে ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ার হতাশা এবং আর্থিক তি এখনও কাটিয়ে উটতে পারেননি। তার পরও তারা বর্তমান কৃষক বান্ধব সরকারের প্রতি আত্মবিশ্বাস রেখে নতুন আশায় বুক বাঁধছেন। তাদের বিশ্বাস গত কয়েক মৌসুমে ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ার ফলে তাদের যে পরিমান আর্থিক তি হয়েছে চলতি ২০১৫ আমন মৌসুমে ধানের ন্যায্য মূল্য নির্ধারনের মাধ্যমে সরকার কৃষকের সে তি পুরন করে দেবে।

এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি সম্প্র্রসারণ অধিদপ্তর জানিয়েছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ১৬ হাজার ২৫ হেক্টর জমিতে আমন চাষের ল্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। লমাত্রা অর্জনের লে ১হাজার হেক্টর বীজতলা তৈরী করা হয়েছে। বীজতলা পরিচর্চা এবং বাদামী গাছ ফড়িং এর আক্রমণ রায় বীজতলা শোধনে কৃষকদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।

এরই মধ্যে ৮০শতাংশ জমিতে চারা রোপন শেষ হয়েছে এবং দস্তা সমৃদ্ধ আগাম জাত ব্রী ধান ৬২ সম্প্রসারণে উদ্দ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে ৪নং আটগাও ইউনিয়নের বড়–য়া গ্রামের কৃষক তজো চৌধুরী জানান, এবছর ২৫ বিঘা জমিতে আমন ধান আবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আখাপুর গ্রামের কৃষক মোঃ জহুরুল ইসলাস কালু জানান, গত বোরো মৌসুমে ৭ বিঘা জমিতে চাষাবাদ করেছিলাম কিন্তু ফসলের তেমন দাম পাওয়া যায়নি। এ বছরও ৭ বিঘা জমিতে আমণ ধান আবাদের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)