ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট September ৩০, ২০১৯

ঢাকা শুক্রবার, ১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৮ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

বিনোদন ভোটাধিকার হরণের অভিযোগ আনলেন ফিরোজ শাহী

ভোটাধিকার হরণের অভিযোগ আনলেন ফিরোজ শাহী

নিরাপদ নিউজ: মিডিয়ার সকল অলিতে গলিতে যার পদচারণা এবার শিল্পী সমিতির নির্বাচনে তিনি ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন না। মূলত তিনি একজন নিয়মিত অভিনেতা। ছোট ও বড়পর্দায় সমানতালে কাজ করে যাচ্ছেন। ছবি ও নাটক প্রযোজনায়ও লগ্নি করেছেন। নির্মাতা হিসেবে তার পরিচিতি রয়েছে। অথচ তিনি শিল্পী সমিতির সদস্য হলেও ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন না। তিনি আর কেউ নন, সকলের অতি পরিচিত মুখ ফিরোজ শাহী। দীর্ঘ দুই যুগেরও বেশি সময় ধরে অভিনয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত।
এ প্রসঙ্গে ফিরোজ শাহী বলেন,‘দুঃখের সাথে জানাতে চাই আমি সহ কয়েকজনের ভোটাধিকার হরণ করা হয়েছে আমাদের সমিতির কিছু নির্দিষ্ট নীতিমালার দোহাই দিয়ে। এর একটি শর্ত ছিলো টানা ২ বছর চলচ্চিত্র মুক্তি না পেলে তার সদস্যপদ থাকলেও ভোটাধিকার প্রয়োগের ক্ষমতা থাকবে না। আমি অবাক ও বিষ্মিত হই। কারণ নীতিমালা মেনে চলতে আমার কোনো অসুবিধা নেই। কিন্তু এই শর্ত বিশেষ বিশেষ কারো জন্য প্রয়োগ করা হয়েছে। কারণ একসময়ের অনেক ব্যস্ত কয়েকজন অভিনেতাদেরও গত ২ বছরে নতুন কোনো চলচ্চিত্র মুক্তি পায়নি। আমি তাদের নাম উল্লেখ করতে চাই না। কিন্তু তাদের ভোটাধিকারে কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু সমিতির বিদায়ী সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক তাদের বিষয়ে নীতিমালা শিথিল রাখলেও আমাদের ভোটাধিকার হরণ করেছেন। এক সমিতিতে দুই নীতি কোন কারণে সেটিই আমি জানতে চাই। আর চলচ্চিত্র শিল্পের এই খরায় কিছুটা অনিয়মিত হতেই পারে। এ ব্যাপারে আমি সরাসরি বর্তমান সভাপতি মিশা সওদাগর ভাইকে জিজ্ঞেস করেছি। এই উদাহরণ টেনেই বলেছি তাকে। তিনি আমার প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেননি। আমি প্রযোজক সমিতি, পরিচালক সমিতির নেতৃবৃন্দের কাছেও বিষয়টি জানিয়েছি। কারণ এটাকে একজন শিল্পীস্বত্তার অপমান বলে আমি মনে করি। শিল্পী সমিতির নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে এনে বললেন, এটা তো একটা উৎসব। যেখানে আমরা সকলে মিলে একটি দিন মিলিত হই। সেই আনন্দ থেকেও আমাকেসহ আরও কাউকে কাউকে বঞ্চিত করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, ফিরোজ শাহী চলতি বছরে তার নিজস্ব প্রযোজনায় নতুন চলচ্চিত্রের ঘোষণা দেবেন বলে জানিয়েছেন আমাদের।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)