ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ১০ সেকেন্ড

ঢাকা শনিবার, ৪ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৯ সফর, ১৪৪১

নিসচা সংবাদ, লিড নিউজ মাইক হাতে কাকরাইল মোড়ে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন (ভিডিও)

মাইক হাতে কাকরাইল মোড়ে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন (ভিডিও)

নিরাপদ নিউজ: আগামী ২২ অক্টোবর জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ২০১৯ এবং জাহানারা কাঞ্চনের ২৬তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার বার জাতীয় প্রেসক্লাবের মাওলানা আকরম খাঁ মিলনায়তনে প্রেসব্রিফিং এর মাধ্যমে অক্টোবরের এক মাস ব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচির ঘোষণা করেন নিসচার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান চিত্র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। মাস ব্যাপী কর্মসূচির আজ ২য়দিন ০২ অক্টোবর- কাকরাইল মোড়ে সড়ক নিরাপত্তাবিষয়ক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করে নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটি। নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান ও চলচ্চিত্র অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন এর নেতৃত্বে নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দ এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন।

নিরাপদ সড়কের জন্য শুধু আইন করে নয়, মানুষের অভ্যাসের পরিবর্তন করতে হবে বলে মনে করেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান ও চলচ্চিত্র অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন। তিনি বলেন, আইন মানতে মানুষকে বাধ্য করতে হবে, পাশাপাশি নিয়মও শেখাতে হবে।

আজ বিকালে কাকরাইল মোড়ে মানুষকে ট্রাফিক আইন মানার জন্য উদ্বুদ্ধ করতে গিয়ে তিনি তাঁর নিজস্ব ফেসবুক পেইজ থেকে লাইভে আসেন এবং লাইভ ভিডিওতে তিনি সবার উদ্দেশ্যে বেশ কিছু কথা বলেন।

কর্মসূচি শেষে ইলিয়াস কাঞ্চন নিরাপদ নিউজকে জানান,  দিন দিন আমরা শৃংখলার পথে এগিয়ে যাচ্ছি। গত বছর একই দিনে নিসচার পক্ষ থেকে যখন  এই ক্যাম্পেইন পরিচালনা করি তখন আমার সঙ্গে ৪০-৫০ জন কর্মি ছিলেন। তাঁরা মানুষকে আইন মানতে বলেছেন কিন্তু মানুষ আইন মানছেন না। তর্ক করেছেন। যেই আমি সামনে গিয়েছি, আইন মানতে বলেছি, সেই তাঁরা আইন মেনেছেন।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, এবার এই সড়কে জনসাধারনের মাঝে ভিন্ন কিছু বিষয় লক্ষ্য করা গেছে তাঁরা কিন্তু শুধু আমার কথা নয় আমার কর্মিদের কথাও শুনছেন। এবং সকলে আইন মানছেন। সব থেকে ভালো লেগেছে আজকের ক্যাম্পেইনে একটি জনমত জরীপমুলক লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে সেখানে সাধারন জনগণ আমাদের বলেছেন, এমন ক্যাম্পেইন যেন শুধু সপ্তাহ মাস জুরে নয় সারা বছর নিয়মিত ভাবে করার ব্যবস্থা করা হয়। অনেকে আমার মাধ্যমে এই কথাগুলো সরকারের কাছে পৌছে দেবার অনুরোধ জানিয়েছেন তাঁরা।

ইলিয়াস কাঞ্চন আরো বলেন, শুধু যে ভালো দিক গুলো দেখা গেছে তা নয়। এখনো সড়কে বেশ কিছু সংখক মানুষ রয়েছে তাঁরা ট্রাফিক আইন সম্পর্কে অনেক বিষয় জানেন না। না জানার কারণে অনেকে এই আইন মানেন না। আবার অনেকে জেনেও মানছেন না। ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, ‘আমরা যে আইন মানছি না, এতে তো আমাদের সমস্যা হচ্ছে না। আমাদের যথেষ্ট পরিমাণ জেল-জরিমানা হচ্ছে না।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, রাস্তায় মোটরসাইকেলগুলো সবচেয়ে বেশি আইন ভাঙে। তাদের মধ্যে শৃঙ্খলা আনতে হবে। যেখানে ফাঁকা পায়, তারা সেখানে মোটরসাইকেল ঢুকিয়ে দেয়। এটা বন্ধ করতে হবে। তাদের এক লেন দিয়ে চলতে হবে।

কাকরাইল মোড়ে সড়ক নিরাপত্তাবিষয়ক ক্যাম্পেইন নিরাপদ সড়ক চাই এর (নিসচা) প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন রাস্তায় দাঁড়িয়ে মানুষকে সচেতন করতে ডান-বাম লেন দেখিয়ে দিক-নির্দেশনা দেন। এ সময় সড়কে উল্টো পথে চলা যানবাহনের চালকদের বুঝিয়ে সোজা পথে ফিরিয়ে দিতেও দেখা যায় তাকে।

রাজধানীর রাস্তায় তাকে আজ দেখা গেছে মাইক হাতে। সঙ্গে একদল নিসচা কর্মি। দলকে নিয়ে সড়কে যানবাহন চলাচলে সহায়তা করছেন তিনি। রাস্তায় চলাফেরার নিয়ম-নীতি মেনে চলার অনুরোধ করছেন পথচারীদের। তাদের দাবি একটাই-‘নিরাপদ সড়ক চাই’। জীবনের আগে জীবিকা নয়,সড়ক দুর্ঘটনা আর নয় এমন স্লোগান নিয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন আজ সকলকে আইন মেনে পথ চলার দিকনির্দেশনা দেন।

ফেসবুক লাইভে তিনি তার ভক্ত ও দেশবাসির কাছে সচেতন মুলক বক্তব্য প্রদান করেন। এ সময় ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আজ আমাদের কর্মসূচি কাকরাইল মোড়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আপনারা প্রতিদিন এই সড়কের চিত্র দেখেছেন। এখানে কী পরিমাণ যানজটের সৃস্টি হয়। আমরা আজ নিসচার টিম এই সড়কে যানজট নিরসনে কাজ করার সময় অবশ্য খেয়াল করেছেন অন্যান্য দিনের চিত্র এবং আজকের চিত্র ছিল এখানে ভিন্ন। কারণ, আজ আমাদের নিসচা টিম কাউকে উল্টো পথে গাড়ি চলাতে দেয়নি। নিয়ম অম্যান্য করে কেউ ভুল লেন ব্যবহার করার সুযোগ পায়নি। সাধারন যাত্রী-পথচারীরা কেউ ফুটপাত-জেব্রাক্রোসিং ছেড়ে যত্রতত্র সড়ক পারাপার হয়নি। এক কথায় আমাদের কর্মসূচী চলাকালীন নিয়মের ভেতর থেকে পথ চলেছেন। এই নিয়ম মানার কারণেই কিন্তু সড়কের চিরচেনা যানজট আজ কারো চোখে পড়েনি। আমরা যদি প্রতিদিন এইভাবে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সবাই সবার দায়িত্বগুলো পালন করি তাহলে অবশ্যই যানজট এবং দুর্ঘটনা অনেকাংশেই কমে আসবে। সড়কে শৃংখলা ফিরে আসবে।

নিসচার জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে মাসব্যাপী জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের বিশেষ এই কর্মসূচিতে জনসাধারনের সচেতনা বৃদ্ধিতে এবং জনমত জানার জন্য একটি লিফলেট বিতরণ করা হয়। এবং সেখান থেকে জনসাধারনের বেশ কিছু মন্তব্য সংগ্রহ করে নিসচা। লিফলেটের ধরনটি যেমন ছিলো তা নিম্নে উল্লেখ করা হলো:

আপনি সড়কে নিয়ম শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠিত হোক চান কি?

আপনি কি ট্রাফিক আইন মেনে চলেন?

ট্রাফিক আইন সম্পর্কে কতটুকু জানেন?

রাস্তায় কেমন করে চলতে হয় জানেন কি?

রাস্তা পারাপার কিভাবে করতে হয়?

জেব্রা ক্রসিং ব্যবহারের নিয়ম জানেন কি?

আপনি কি ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহার করেন?

আপনার দৃষ্টিতে এই মোড়ে (কাকরাইল) কি কি সমস্যা রয়েছে?

ফুটপাত কেন ব্যবহার করেন না?

আপনি কি বাসে চড়েন?

গণপরিবহনে কিভাবে উঠানামা করেন?

কি কি ব্যবস্থা নিলে পথচারিদের চলাচলে সুবিধা হবে?

লিফলেটটি সকলে সংগ্রহ করে তাঁরা তাদের নিজস্ব মতামত প্রকাশ করেছেন।

নিসচার আজকের কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন,জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও যুগ্ম মহাসচিব লিটন এরশাদ, অর্থ সম্পাদক নাসিম রুমি, জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ও সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ, যুগ্ম মহাসচিব সাদেক হোসেন বাবুল, দপ্তর সম্পাদক ফিরোজ আলম মিলন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান, সমাজকল্যাণ সম্পাদক আসাদুর রহমান আসাদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মঞ্জুলী কাজী, কার্যনির্বাহী সদস্য কামাল হোসেন খান, সেকান্দার আলম রিন্টু, নাহিদ মিয়া, সাধারণ সদস্য মোঃ মোহসিন খান, আবুল হোসাইন, আবদুল মান্নান ফিরোজ, নুরে আলম, শিউলি আক্তার, রাইসিন গাজী, আনজুমান আরা তন্বি, নুরুল আজিম, মোঃ সাকিব হোসেন, মাহফুজ রাফি, আনোয়ার হোসেন শাকিল, আল হাসান রাজীব, মিথিলা আমিন স্নিগ্ধা প্রমুখ।

নিসচার উদ্যোগে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে পথচারী ও চালকদের মধ্যে সড়ক নিরাপত্তার বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বিশেষ এই ক্যাম্পেইন চলবে পুরো মাসব্যাপী। আগামীকাল ০৩ অক্টোবর- মিরপুরের ১০ নম্বরে অবস্থিত আবু তালেব স্কুলে সড়কে নিরাপত্তাবিষয়ক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে নিসচা।

উল্লেখ্য, সড়ক দুর্ঘটনায় স্ত্রীর মৃত্যুর পর ১৯৯৩ সালের ১ ডিসেম্বর থেকে নিরাপদ সড়কের দাবিতে সামাজিক আন্দোলন করে যাচ্ছেন এই অভিনেতা। গড়ে তুলেছেন নিরাপদ সড়ক চাই নামের সংগঠনটি।

এই কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৭ সালে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্বীকৃতি ‘একুশে পদক’ও পান ইলিয়াস কাঞ্চন।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

https://web.facebook.com/Nsc.Kanchan/videos/2933250933370610/?t=0

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)