আপডেট ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮

ঢাকা মঙ্গলবার, ৫ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৪ শাওয়াল, ১৪৪০

খুলনা মাগুরায় আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর আটক ৬

মাগুরায় আওয়ামীলীগের অফিস ভাংচুর আটক ৬

মাহামুদুন নবী, নিরাপদনিউজ: মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুরে সোমবার রাতে রাত আটটার দিকে আওয়ামীলীগের ২টি নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করেছে বিএনপির নেতা-কর্মীরা। এর কিছুক্ষণ পর কাউড়া এলকার একটি নির্বাচনি কার্যালয়ে ককটেল বিস্ফোরণ ও নৌকা প্রতিকে আগুন দিয়েছে দুবৃত্তরা। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ রাতভর অভিযান চালিয়ে ৬ জন বিএনপি নেতা-কর্মীকে আটক করেছে। ঘটনার প্রতিবাদে মহম্মদপুরে উপজেলা শহরে আওয়ামীলীগ সমর্থিত নেতা-কর্মীরা প্রতিবাদ মিছিল বের করলে পুলিশ বিজিবি ও সেনাবাহিনি লাঠিচার্জ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। বিনোদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শিকদার মিজানুর রহমান জানান, বিএনপি নেতা বাকের মেম্বর ও দাউদ মিয়ার নেতৃত্বে শতাধিক বিএনপি নেতা-কর্মী পূর্ব পরিকল্পিকভাবে সংঘবদ্ধ হয়ে লাঠি মিছিল নিয়ে বিনোদপুর বাজার ও চৌরাস্তার মোড় এলাকার দুটি আওয়ামীলীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে। খবর পেয়ে মিজানুর রহমানের নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ধাওয়া করলে বিএনপির নেতা-কর্মীরা পালিয়ে যায়। বালিদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ পান্নু মিয়া জানান, সোমবার রাত নয়টার দিকে পাশর্^বত্তী কাউড়া এলাকায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপির নেতা-কর্মীদের মধ্যে ঘন্টাব্যাপি ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই এলকার বাজারস্থ আওয়ামীলীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল বিস্ফোরণ ও একটি নৌকা প্রতিকে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায় বিএনপি সমর্থিত নেতা-কর্মীরা। পরে বিএনপির নেতা-কর্মীরা মহম্মদপুর উপজেলা সদরে মিছিল নিয়ে প্রবেশ করবে এমন খবরে শহরের বাসস্্যান্ড সংলগ্ন আওয়ামীলীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে নেতা-কর্মীরা জড় হতে শুরু করে। এ সময় উপজেলা শহরের পরিবেশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে আওয়ামীলীগ সমর্থিত নেতা-কর্মীরা লাঠি, হকিষ্টিক, লোহার রড় নিয়ে শহরে মিছিল বের করলে বাজারের দোকান-পাট বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ, বিজিপি ও সেনাবাহিনী এসে মিছিলে লাঠি চার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান শহরে প্রবেশ করে নেতা-কর্মীদের পূনরায় সংঘবদ্ধ করে রাত নয়টার দিকে আবার একটি মিছির করে। মহম্মদপুর থানার ওসি মো: রবিউল হোসেন বলেন, আওয়ামীলীগের নির্বাচনী ভাংচুর, ককটেল বিস্ফোরণ ও নৌকা প্রতিকে অগ্নিকান্ডের ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে সোমবার রাতেই শওকত আলম, তৈয়ব খাঁন, মাহাবুব মন্ডল , হারুন শেখ , জাহিদুল ইসলাম এবং মহম্মদপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মো: গোলাম আজম সাবুসহ ৬ জন কে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে আটক করা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)