ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ১১ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০

জীবনযাপন, রাজধানী সংবাদ মিরপুরে অসুস্থ বৃদ্ধাকে রাস্তায় ফেলে গেল ‘সম্পদশালী স্বজনরা'(ভিডিও)

মিরপুরে অসুস্থ বৃদ্ধাকে রাস্তায় ফেলে গেল ‘সম্পদশালী স্বজনরা'(ভিডিও)

নিরাপদনিউজ: রাজধানীর মিরপুরে ৮০ বছরের বেশি বয়সী অসুস্থ এক বৃদ্ধাকে সড়কের ধারে ফেলে গেছে তার স্বজনরা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নানা চেষ্টার পর পাইকপাড়ার ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এইজ কেয়ারে’ নামের একটি বৃদ্ধাশ্রমে ভর্তি করেছেন। তাকে কেন রাস্তার পাশে ফেলে রাখা হয়েছিল তা জানা যায়নি। তবে ওই বৃদ্ধার স্বজনরা আর্থিক দিক থেকে বিত্তবান বলে জানা গেছে।

গত বুধবার স্থানীয় মমতাময়ী দুই নারীর সহায়তায় ওই বৃদ্ধাকে বৃদ্ধাশ্রমে রাখার ব্যবস্থা করেন হাসিবুল হাসিম নামের এক ব্যক্তি। ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে তিনি জানিয়েছেন, গত ৩১ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে বেলা তিনটা পর্যন্ত মিরপুরের ৬০ ফুট সড়কের পাশে পড়েছিলেন ওই বৃদ্ধা। প্রথমে আগারগাঁও প্রবীণ হিতৈষী সংঘে নিয়ে যায়। সেখানে পরিচয়হীন কাউকে রাখা হয় না জানিয়ে দিলে তারা থানায় যায়। থানাও জানিয়ে দেয় আদালতের অনুমতি ছাড়া তাদের কিছু করার নেই। পরে হাসিবুল হাসিম তাকে ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এইজ কেয়ারে’ নিয়ে যান।

এদিকে, ফেসবুকে হাসিম সেই ঘটনা বর্ণনা দেওয়ার পর অনেকে ওই বৃদ্ধা নারীর আত্মীয় দাবি করে তাকে ‘চাইল্ড অ্যান্ড ওল্ড এইজ কেয়ারে’ এসে নিয়ে যেতে চাচ্ছেন।

বৃদ্ধাশ্রমটির প্রতিষ্ঠাতা মিল্টন সামাদার গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘ওই মা আগে থেকে এখন অনেক সুস্থ আছেন। তাকে কেন রাস্তার পাশে ফেলা রাখা হয়েছিল তা জানা যায়নি। তবে জানতে পেরেছি তার পরিবার বেশ অর্থশালী। এর মধ্যে শুক্রবার তামান্না নামে এক নারী ব্যাংক কর্মকর্তা ওই বৃদ্ধাকে নিয়ে আসেন। বলেন, ওই বৃদ্ধা তার দূর সম্পর্কের আত্মীয়।তবে আমি বলেছি, সঠিক প্রমাণ ও প্রশাসনের সাহায্য ছাড়া আমি তাকে এখান থেকে ছাড়ব না।’

মিল্টন সামাদার জানান, ওই নারীর নামে ব্যাংকে ৪০ লাখ টাকা স্থায়ী আমানত করা আছে এবং তাদের বেশ সম্পদ-সম্পত্তি আছে বলে তারা তথ্য পেয়েছেন।

এদিকে, মিরপুর ১০ নম্বর থেকে একে এক ব্যক্তি ওই বৃদ্ধা নারীকে তার কাছে দেওয়ার জন্য বৃদ্ধাশ্রমকে কৃর্তপক্ষকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বৃদ্ধাশ্রমটির প্রতিষ্ঠাতা। তবে আগের নারীর মতোই ওই ব্যক্তিও বৃদ্ধার কোন ধরনের আত্মীয় সেটা বলছেন না বলেও জানান তিনি।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)