ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট অক্টোবর ৮, ২০১৫

ঢাকা সোমবার, ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২০ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

ফুটবল, লিড নিউজ মেসি, নেইমারকে ছাড়া দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ মিশন শুরু দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বীর!

মেসি, নেইমারকে ছাড়া দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ মিশন শুরু দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বীর!

মেসি, নেইমারকে ছাড়া দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ মিশন শুরু দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বীর!

মেসি, নেইমারকে ছাড়া দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ মিশন শুরু দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বীর!

০৮ অক্টোবর ২০১৫, নিরাপদ নিউজ : ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে পথে নিজেদের এগিযে় নিযে় যাবার লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে দক্ষিণ আমেরিকান অঞ্চলের বাছাইপর্বের ম্যাচ। কিন্তু প্রথম ম্যাচেই উপস্থিত থাকতে পারছেন না দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের দুই সুপারস্টার লিয়নেল মেসি ও নেইমার।
রাশিয়ান বিশ্বকাপের খেলার যোগ্যতা অর্জনের এই দীর্ঘ পর্থে বর্তমান বিশ্ব ফুটবলের দুই সেরা তারকা মেসি ইনজুরির কারণে ও নেইমার বহিষ্কারাদেশের কারণে খেলতে পারছেন না। একইভাবে ইনজুরির কারণে উরুগুযে় লুইস সুয়ারেজ ও এডিনসন কাভানি ও কলম্বিয়া হামেস রদ্রিগেজের সার্ভিস পাচ্ছে না।
দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবলের দুই পরাশক্তি ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা নিজেদের অঞ্চলের সবচেযে় বড় টুর্নামেন্ট কোপা আমেরিকার দুঃসহ স্মৃতিকে ভুলে নতুন করে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব মিশন শুরু করতে চাচ্ছে। ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, উরুগুযে়কে পিছনে ফেলে এবারের কোপা আমেরিকা শিরোপা জিতেছে স্বাগতিক চিলি। প্যারাগুযে়র কাছে পরাজিত হযে় কোয়ার্টার ফাইনালেই ব্রাজিলের কোপা আমেরিকা মিশন শেষ হযে় যায়।

গত বছর ঘরের মাঠে বিশ্বকাপে জার্মানদের কাছে বিধ্বস্ত হবার দুঃসহ স্মৃতি থেকে এখনো বেরিযে় আসতে পারেনি দুঙ্গা বাহিনী। কোপা আমেরিকায় সেই স্মৃতি ভোলার একটি সুযোগ আসলেও তা কাজে লাগাতে পারেনি সেলেসাওরা। অন্যদিকে ফাইনালে চিলির কাছে টাইব্রেকারে পরাজিত হযে় আর্জেন্টিনাকে রানার্স-আপ শিরোপা নিযে়ই সন্তুষ্ট থাকতে হয়।

বিশ্বকাপের ফাইনালেও জার্মানদের কাছে অতিরিক্ত সমযে়র একমাত্র গোলে পরাজিত হযে় হতাশ হযে়ছিল মেসি বাহিনী। ১৯৯৩ সালের পরে বড় কোনো টুর্নামেন্টে শিরোপা বিহীন আর্জেন্টাইনরা কোনোভাবেই নিজেদের প্রমাণ করতে পারছে না।
আর এসবকে পিছনে ফেলে নতুনভাবে বিশ্বকাপে মিশন শুরু করতে বদ্ধপরিকর দু’দলই। এই লক্ষ্যে ব্রাজিল চিলির বিপক্ষে খেলতে সানটিয়াগোতে যাবে। আর আর্জেন্টিনা নিজেদের মাঠ বুযে়ন্স আয়ার্সে ইকুযে়ডরের মুখোমুখি হবে। কোপা আমেরিকার সাফল্যে চিলি এই ম্যাচে ফেবারিট হলেও ইতিহাস অবশ্য ব্রাজিলের পক্ষেই কথা বলছে। বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে মাত্র একবারই চিলির বিপক্ষে পরাজিত হযে়ছিল ব্রাজিল।

২০০২ সালের ঐ ম্যাচে সেলেসাওরা ৩-০ গোলে পরাজিত হযে়ছিল। ঐ পরাজযে়র পরে ১৪ ম্যাচে ব্রাজিল ১২টি জয়ী হযে়ছে ও পরাজিত হযে়ছে মাত্র একটিতে। অতি সম্প্রতী মার্চে লন্ডনে একটি প্রীতি ম্যাচে চিলিয়ানদের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয়ী হয় ব্রাজিল।
ইনজুরি আক্রান্ত লিভারপুল তারকা ফিলিপ কোটিনহোর স্থানে দীর্ঘদিন পরে জাতীয় দলে ফেরা অভিজ্ঞ কাকা বলেছেন, প্রতিটি ম্যাচেই নিজস্ব কিছু ইতিহাস থাকে। সমযে়র সাথে অনেক কিছুই পাল্টে যায়। মূল কথা হচ্ছে আমরা যেখানেই চিলিকে মোকাবেলা করেছি সবসময়ই ভাগ্য আমাদের সহায় ছিল।
ব্রাজিল ডিফেন্ডার ডেভিড লুইজ বলেছেন, চিলির বিপক্ষে যেকোনো ম্যাচই বেশ কঠিন। কিন্তু আমরা জেতার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর।
একটি ক্ষেত্রে অবশ্য ব্রাজিল কালকের ম্যাচে কিছুটা হলেও পিছিযে় থাকতে পারে, বহিষ্কারাদেশে থাকা অধিনায়ক নেইমারের অনুপস্থিতি। জুনে কলম্বিয়ার বিপক্ষে কোপা আমেরিকা ম্যাচে প্রতিপক্ষ খেলোয়াডে়র সাথে বিবাদে জডি়যে় পড়লে নেইমারকে চার ম্যাচ নিষিদ্ধ করে ফিফা ডিসিপ্লিনারি কমিটি।

ইতোমধ্যেই দুই ম্যাচ পার হযে় যাওয়ায় বাছাইপর্বে দুটি ম্যাচে থাকছেন না নেইমার। যদিও এনিযে় এখনো কোনো ধরনের চাপ দেখা যায় নি ব্রাজিল শিবিরে। অনুশীলন সেশনের পুরো দলকে বেশ নির্ভার দেখা গেছে।
এদিকে বুযে়ন্স আয়ার্সে ইকুযে়ডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনাকে ছাড়া মাঠে নামতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা। গত মাসে বার্সেলোনার হযে় লা লিগায় লাস পালমাসের বিপক্ষে বাম হাঁটুর লিগামেন্টে ইনজুরিতে পডে় প্রায় দুই মাসের জন্য মাঠের বাইরে চলে গেছেন এই সুপারস্টার। তবে মেসিকে ছাড়াই ম্যাচ জযে়র ব্যাপারে আশাবাদী আর্জেন্টিনার ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক জেভিয়ার মাচেরানো। তিনি বলেন, ‘মেসিকে ছাড়াই ম্যাচ জযে়র ব্যাপারে আমরা আশাবাদি।’
বাছাইপর্বে অপর ম্যাচে উরুগুযে় বলিভিয়া সফরে যাবে আর কলম্বিয়া নিজেদের মাঠে পেরুর মুখোমুখি হবে। ইনজুরির কারণে কলম্বিয়ার হযে় খেলতে পারছেন না রিয়াল মাদ্রিদ তারকা হামেস রদ্রিগেজ।

এর অর্থ হচ্ছে ফর্মহীনতায় থাকা চেলসি স্ট্রাইকার রাদামেল ফ্যালকাওযে়র ওপর আক্রমনভাগের পুরো দাযি়ত্ব পড়ছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)