আপডেট ১৪ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৪ আশ্বিন, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৯ মুহাররম, ১৪৪১

কিডস যেভাবে বন্ধ করবেন শিশুদের মিথ্যা বলা!

যেভাবে বন্ধ করবেন শিশুদের মিথ্যা বলা!

যেভাবে বন্ধ করবেন শিশুদের মিথ্যা বলা!

১০ ডিসেম্বর ২০১৬, নিরাপদ নিউজ : মাঝে মাঝে দেখবেন শিশুরা মিথ্যা বলছে। তাতে আপনি বিচলিত হয়ে পড়তেই পারেন। অতটুকু শিশু কিনা মিথ্যা বলতে শিখে গেছে। তাতে হতাশ হতে পারেন। হতে পারেন বিরক্তও। তবে মনে রাখুন শিশু বয়সে মিথ্যা কথা বলা ভুল হতে পারে। কিন্তু অস্বাভাবিক কিছু নয়।

শিশুদের মিথ্যা বলা বন্ধ করতে হলে আগে জানতে হবে কেন তারা মিথ্যা বলছে। নিজেদের পরিচিতি প্রতিষ্ঠা করতে:  মনে রাখবেন শিশুরা কিন্তু ভাবুক। তাদের ভাবনার জায়গা থেকেই তারা মিথ্যা বলে।

আর সেই মিথ্যা নিয়ে যদি হুলুস্থুলু পড়ে যায়, তবে মিথ্যার প্রাবল্য বাড়ে। তাদেরও পরিচিত গ্রুপ রয়েছে। সেখানে মিথ্যা বলে যদি প্রতিষ্ঠা পাওয়া যায় বা বন্ধুদের চমকে দেওয়া যায়। মিথ্যা বলার পরিমান বেড়ে গেলে অবশ্যই জানার চেষ্টা করুন, কেন তারা মিথ্যা বলছে। তাদের দুর ছাই করে তাড়িয়ে দেবেন না।

বাবা মার মিথ্যা বলার অভ্যাস: শিশু বলে কিন্তু তাকে অবহেলা করবেন না। কারণ আপনার অজান্তেই ও কিন্তু আপনাদের নকল করছে। তাই ওদের সামনে মিথ্যা বললে কিন্তু ধরা পড়ে যাবেন।

আর ওরাও সেটাকে রপ্ত করবে। তাই শিশুদের সামনে মিথ্যা বলা বন্ধ করুন।

নজর পেতে: কেউ যদি বলে এইমাত্র জানলা দিয়ে বাঘ দেখলাম। বুঝতে হবে ওই শিশু মনযোগ আকর্ষণের চেষ্টা করছে। আর তাতে কাজ হলে বারবার মিথ্যা বলবে। তাই শিশুদের কথা মন দিয়ে শুনলে এই সমস্যা কেটে যাবে।

গায়ে হাত তোলার অভ্যাস থাকলে: এখনও শিশুদের ওপর হাত তুলে এক প্রকার সুখ পান বড়োরা। কারণে অকারণে শাসনের শাসানি নেমে আসে। এটা অস্বাভাবিক নয় যে, মারের হাত থেকে বাঁচতে তারা মিথ্যা বলবে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)