ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মে ১, ২০১৯

ঢাকা রবিবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ , গ্রীষ্মকাল, ১৩ রমযান, ১৪৪০

রাজশাহী, শিক্ষা রাবির লতিফ হলের শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা আশ্বাসেই ফুরোয়

রাবির লতিফ হলের শিক্ষার্থীদের জীবনের নিরাপত্তা আশ্বাসেই ফুরোয়

রাবি প্রতিনিধি,নিরাপদনিউজ: প্রতিনিয়তই পলেস্তারা খসে পড়ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) নবাব আব্দুল লতিফ হলের ছাদ থেকে। শিক্ষার্থীরা দাবি জানাচ্ছেন হলকে ব্লক করে দেওয়া কিংবা ছাদ ভেঙে পুরোটাই সংস্কারের। অন্যদিকে হল প্রশাসন আশ্বাস দিয়েই পার হচ্ছেন বলেও অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। কিন্তু, জীবনের শঙ্কা কি আর আশ্বাসে ফুরোয়!

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সোমবার রাত ১২ টার দিকে হলের ৩৩১ নাম্বার কক্ষ থেকে পলেস্তারা খসে পড়ে। এতে শিক্ষার্থীদের কোন ধরনের ক্ষতি না হলেও আসবাবপত্র ভেঙ্গে যায়। এর আগেও বিভিন্ন সময় পলেস্তারা খসে পড়েছে। সংস্কার করা হয়েছে, আবার খসে পড়েছে। শুধু ওই কক্ষই নয়, দেখা গেছে হলের তৃতীয় তলায় ছাদের অবস্থা আরো ভয়াবহ। হলের সিঁড়িতেও ধরেছে ফাটল। অন্যান্য তলার অবস্থাও তেমন একটা ভালো নয়। আগে একসময় ছাদ থেকে পড়া পলেস্তারা টুকরার আঘাতে মাথায় পাঁচটি সেলাই দেওয়া হয় ডাইনিংয়ের এক কর্মচারীর। তাছাড়া বিভিন্ন সময়ে আহত হয়েছেন শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা।

হলের ৩৩১ নম্বর কক্ষে থাকা ফলিত গণিত বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রফিউল ইসলাম জানান, ‘রাতে পড়াশোনা শেষ করে ঘুমানোর প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। হঠাৎ করে রুমে ছাদ থেকে পলেস্তারা খসে পড়ে। কিন্তু আমাদের বেডগুলো একটু দূরে থাকায় কোনো দুর্ঘটনা ঘটেনি। এ নিয়ে আমরা বেশ উদ্বিগ্ন এবং সব সময় শঙ্কায় থাকি।’

তিনি আরও জানান, দীর্ঘদিন ধরেই হলের বিভিন্ন সমস্যা নিয়েই আন্দোলন হয়েছে। কিন্তু হলের পলেস্তারা বা ছাদ মেরামত করা হচ্ছে না। প্রশাসনকে বারবার অবহিত করার পরও যদি না হল সংস্কার না করেন তাহলে আমাদের দুর্ঘটনার দায় তাদেরকেই নিতে হবে।

নবাব আব্দুল লতিফ হলের প্রাধ্যক্ষ ড. মো. একরাম হোসেন জানান, ‘হল সংস্কার করার টেন্ডার এখনো হয়নি। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাকে আশ্বস্ত করছে অতি শীঘ্রই হলের টেন্ডার পাশ হবে। আর পাশ হলেই কাজ শুরু করা হবে। তবে কাজ শুরু হওয়ার আগ পর্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন এবং কোথাও এমন সমস্যা হলে হল কর্তৃপক্ষকে যাতে সবাই জানায়’।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)