ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ২০ মিনিট ২৪ সেকেন্ড

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ৫ রবিউস-সানি, ১৪৪০

নিসচা সংবাদ, রাজধানী সংবাদ, লিড নিউজ শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় নৌ-পরিবহনমন্ত্রীর বক্তব্যে নিসচা চেয়ারম্যানের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া

শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় নৌ-পরিবহনমন্ত্রীর বক্তব্যে নিসচা চেয়ারম্যানের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া

নিরাপদ নিউজ: রাজধানীর কুর্মিটোলায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনা প্রসঙ্গে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান আজ সাংবাদিকদের বলেছেন- ‘প্রতিবেশী দেশ ভারতে প্রতি ঘণ্টায় ১৬ জন দুর্ঘটনায় মারা যায়। সেখানে এতো আলোচনা হয় না, শুধু বাংলাদেশেই হচ্ছে।

সাংবাদিকরা রোববার (২৯ জুলাই) সচিবালয়ে নৌমন্ত্রীকে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের শীর্ষনেতা হিসেবে প্রতিক্রিয়া জানতে চেয়ে প্রশ্ন করেন- ‘আপনার নিয়ন্ত্রিত পরিবহন শ্রমিক সংগঠনের বাসগুলোর রেষারেষিতে রাজধানীতে এমন দুর্ঘটনা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গেছে। মানুষ মারা যাচ্ছে, আহত হচ্ছে কিংবা পঙ্গু হয়ে যাচ্ছে। এর দায় শ্রমিক সংগঠনগুলো কিভাবে এড়াতে পারে?’

এ বিষয়ে মন্ত্রী বলেন- আপনারা কি লক্ষ্য করেছেন, ভারতের মহারাষ্ট্রে গতকাল সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৩ জন মারা গেছে। এগুলো নিয়ে আমরা যেভাবে কথা বলি, ওখানে কি এগুলো নিয়ে কেউ এভাবে কথা বলে? আমি শুধু এইটুকু বলতে চাই যে, যতটুকু অপরাধ করবে, সে সেভাবেই শাস্তি পাবে।

নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান এর এমন মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছেন নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। মন্ত্রীর বক্তব্য শোনার পর তিনি দেশের বেসরকারি টিভি চ্যালেনসহ বিভিন্নগণমাধ্যমের কাছে তার প্রতিক্রিয়ায় জানান, একটি দায়িত্বশীল চেয়ারে বসে এমন একটি ভয়াবহ দুর্ঘটনার বিষয় নিয়ে দায়িত্বশীল ব্যক্তির মুখে এমন দায়িত্বহীন কথা মানায় না। দায়িত্বশীল কেউ যদি এমন কথা বলে তাহলে সমস্যা কমার থেকে সমস্যা আরো বেড়ে যাবে।

মন্ত্রীর এই উক্তি দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের আত্মার প্রতি চরম অবমাননার শামিল এবং নিহতদের প্রতি নির্মম পরিহাস। সব দুর্ঘটনা নিছক দুর্ঘটনা নয়। যোগাযোগ ক্ষেত্রে সীমাহীন অব্যবস্থা, দুর্নীতি, ট্রাফিক আইন অমান্য করা, বেপরোয়া গাড়ি চালানো, পরিবহন ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য, অপরাধীকে শাস্তির আওতায় না আনা প্রভৃতি কারণে দুর্ঘটনা রোধ করা যাচ্ছে না। দুর্ঘটনা রোধে একজন মন্ত্রী যথাযথ কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহনের ব্যবস্থা না করে এমন বক্তব্য দিয়ে প্রকাশ্যে প্রশ্রয় দেওয়ায় মালিক-চালকেরা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠবেন বলেও মনে করেন ইলিয়াস কাঞ্চন।’

তিনি সরকারি উচ্চপদস্থ সকলেল দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন দয়া করে আপনারা এমন দায়িত্বহীন বক্তব্য থেকে বিরত থাকবেন। সেই সাথে তিনি বলেন, রাজধানীতে বিশৃঙ্খল যান চলাচল ব্যবস্থা ও দক্ষ চালকের অভাবে প্রতিনিয়ত এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটছে, যা মোটেও কাম্য নয়। ভবিষ্যতে এ ধরনের দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সে জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে যথাযথ প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান ও চালকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)