আপডেট ৪৯ মিনিট ৫১ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ২ আশ্বিন, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৭ মুহাররম, ১৪৪১

লিড নিউজ, সংস্কৃতি নগরী সংবাদ সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে মানুষ ঘুরে দাঁড়িয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে মানুষ ঘুরে দাঁড়িয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

 স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। - ফাইল ফটো

স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। – ফাইল ফটো

১৩ আগষ্ট, ২০১৬, নিরাপদনিউজ : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের মানুষ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। পুলিশ, র্যাব, বিজিবিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দেশ প্রেমে জীবন বাজি রেখে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে দায়িত্ব পালন করছেন।’

বাংলাদেশ পুলিশ রংপুর রেঞ্জের আয়োজনে শনিবার রংপুর পুলিশ লাইন্স স্কুল এ্যান্ড কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত রংপুরে সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী সর্বধর্মীয় সম্প্রীতি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, দেশে মাত্র এক’শ থেকে দেড়’শ জঙ্গি রয়েছে। তাদের কাছে দেশের ১৬ কোটি মানুষ জিম্মি হতে পারে না। আমরা এখন ঘুরে দাঁড়িয়েছে। রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিয়ো হোশি, মাজারের খাদেম রহমত আলী, বাহাই নেতা হত্যা প্রচেষ্টা মামলার চার্জশিট সন্ত্রাস দমন আইনে না দিয়ে প্রচলিত আইনে দেয়া এবং এই অঞ্চলে ছয়টি হত্যাকাণ্ডসহ ঢাকার গুলশানের আর্টিজান রেস্তোঁরা এ্যান্ড বেকারি হত্যাকাণ্ড এবং কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহের ঈমাম মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাস্উদ্ হত্যা প্রচেষ্টায় নেতৃত্ব দেয়া রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের জেএমবি’র সামরিক কমান্ডার জাহাঙ্গীর ওরফে সুবাশ এবং খালিদ হাসানকে গ্রেফতার প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা মামলা দেশের প্রচলিত আইনে করা হয়েছে। বিশেষ কোনো ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়নি। এই অঞ্চলের জঙ্গিরা যে সকল হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে এবং হত্যা প্রচেষ্টা চালিয়েছে সে সকল মামলাও দক্ষ পুলিশ কর্মকর্তারা নিরবিচ্ছিন্নভাবে তদন্ত করে আইনের সব দিক ঠিক রেখে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছেন। তাই এই মামলাগুলো নিয়েও কোনো সংশয়ের অবকাশ নেই। তিনি বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার উদ্যোগে ও ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ৮ হাজার মুফতি, উলামা ও আইম্মার দস্তখতসম্বলিত সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী মানবকল্যাণে শান্তির ফতওয়া উল্লেখ করে বলেন, বিনা কারণে গাছের পাতাও বিনষ্ট করা যাবে না। অথচ ধর্মের নামে জঙ্গিরা মানুষ খুন করছে। যা ইসলামে সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। বাঙ্গালী জাতির অভিসংবাদিত নেতা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যার মাধ্যমে সন্ত্রাসের গোড়াপত্তন শুরু হয়। গণতন্ত্রের মানসকন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ২১ আগষ্ট হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল।

অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে গিয়ে ঘাতকরা তাকে ১৯ বার হত্যার চেষ্টা করেছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রতিদিন ১৮ ঘন্টা পরিশ্রম করেন। তিনি বাংলাদেশকে উজ্জ্বল শক্তিশালী মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করছেন। এ সময় এক শ্রেণির জঙ্গি বাংলাদেশকে অকার্যকর ও উন্নয়ন অগ্রগতি থেকে পিছিয়ে দেয়ার জন্য হত্যাযজ্ঞ শুরু করেছে। তিনি বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী এই জঙ্গিদের মদদদাতা, পৃষ্ঠপোষকসহ মাষ্টারমাইন্ডদের সনাক্ত করেছে। দেশে ও আর্ন্তজাতিক ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে দেশীয় জঙ্গিরা স্লিপিং গ্রুপ হয়ে হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে। দেশে জঙ্গিদের হত্যাকান্ডের ১০ মিনিটের মাথায় কথিত সাইট ইন্টিলিজেন্স এর মাধ্যমে প্রচার করা হয় বাংলাদেশে এসব ঘটনা আইএস ঘটাচ্ছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)