ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ডিসেম্বর ৯, ২০১৬

ঢাকা রবিবার, ৪ ভাদ্র, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪০

বিলিভ ইট অর নট সবচেয়ে বড় ইঁদুর! দেখতেও একটু আলাদা

সবচেয়ে বড় ইঁদুর! দেখতেও একটু আলাদা

ওজন ৩৫ থেকে ৬০ কেজি

০৯ ডিসেম্বর ২০১৬, নিরাপদ নিউজ : একটি ইঁদুর কত বড় হতে পারে? যদি বলি ছোটখাটো একটা কুকুরের সমান ইঁদুরও আছে, তাহলে নিশ্চয়ই চমকে যাবে। ক্যাপিবারারা গায়েগতরে একেকটা ছোটখাটো কুকুরের সমানই।

অবশ্য এরা ঠিক ইঁদুর নয়, ইঁদুরজাতীয় প্রাণী। এরা হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় রডেন্ট। ইঁদুররা ওই রডেন্টই। তিন ফুটের বেশি লম্বা হয় একেকটা ক্যাপিবারা। উচ্চতাও প্রায় ফুট দুয়েক। ওজন ৩৫ থেকে ৬০ কেজি।ব্রাজিল, ভেনিজুয়েলাসহ দক্ষিণ আমেরিকার বেশির ভাগ দেশেই এদের দেখতে পাবে। দক্ষিণ আমেরিকার আমাজনের জঙ্গলে এরা আছে। ক্যাপিবারাদের কিন্তু পানি ভারি পছন্দ। এমনিতে ডাঙায় বাস করলেও দিনের একটা বড় সময় কাটায় পানিতে।

খুব ভালো সাঁতারু এরা। কখনো ডুব দিয়ে টানা পাঁচ মিনিটও শ্বাস ধরে রাখতে পারে। ধরো বড় কোনো মাংসাশী প্রাণী ধারেকাছে চলে এসেছে। তখনই আত্মরক্ষার জন্য বেশি সময় জলে ডুব দিয়ে থাকবে এরা। এদের আরেকটি মজার ব্যাপার হলো, শুধু নাকটা ওপরে ভাসিয়ে পানিতে ঘুমাতেও পারে।

ক্যাপিবারা একা থাকে না। বরং বেশ কয়েকটি ক্যাপিবারা একত্রে দলবদ্ধভাবে থাকে। একেকটা দলে ১০ থেকে ১০০টি পর্যন্ত ক্যাপিবারা থাকতে পারে। আর তারা বেশির ভাগ সময়ই হই-হট্টগোল আর চেঁচামেচি করতে পছন্দ করে।

তবে বিপদ দেখলে কুকুরের মতো ডাক দেয়। দলের নেতৃত্বে থাকে একটা পুরুষ ক্যাপিবারা। কখনো আবার দলের অন্য কোনো পুরুষ ক্যাপিবারা নেতা হতে চায়। তখন দলের নেতার সঙ্গে লড়াই বাধে তার।

ক্যাপিবারাদের পছন্দের খাবার লতাপাতা, ঘাস আর জলের বিভিন্ন উদ্ভিদ। কখনো দিনে তিন কেজি ঘাস কিংবা লতাপাতা খেয়ে ফেলে একেকটি ক্যাপিবারা। ক্যাপিবারা নামটি এসেছে ব্রাজিলের তুপি ভাষা থেকে।

ক্যাপিবারা শব্দের অর্থ হলো ‘যে চিকন পাতা খায়’। অন্য সব রডেন্টের মতোই ক্যাপিবারাদের দাঁত খুব ধারালো। তবে সাধারণত মানুষকে আক্রমণ করে না এরা।

ক্যাপিবারারা যমের মতো ভয় পায় অ্যানাকোন্ডাদের। কারণ এই সাপদের খুব প্রিয় খাবার ক্যাপিবারা। আবার জাগুয়ারসহ আরো অনেক প্রাণীই সুযোগ পেলে ধরে খায় ক্যাপিবারাদের। মানুষ ক্যাপিবারা শিকার করে চামড়া আর মাংসের জন্য। তবে ব্রাজিল সরকার এখন ক্যাপিবারা শিকার নিষিদ্ধ করেছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)