সংবাদ শিরোনাম

২১শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং

00:00:00 রবিবার, ৭ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ , হেমন্তকাল, ২রা সফর, ১৪৩৯ হিজরী
সম্পাদকীয় সাড়ে ৬ লাখ ইয়াবা উদ্ধার: জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিন

সাড়ে ৬ লাখ ইয়াবা উদ্ধার: জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিন

পোস্ট করেছেন: Nsc Sohag | প্রকাশিত হয়েছে: এপ্রিল ২০, ২০১৭ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: সম্পাদকীয়

সম্পাদকীয়

নিরাপদ নিউজ : মাদকের আগ্রাসন একটি দেশ ও জাতির জন্য অত্যন্ত উদ্বেগজনক পরিস্থিতিকে নির্দেশ করে। বলার অপেক্ষা রাখে না যে, মাদকের কথা এলে ইয়াবার বিষয়টিও সামনে চলে আসে। বিভিন্ন সময়েই পত্রপত্রিকার প্রকাশিত প্রতিবেদনগুলো আমলে নিলে ইয়াবার যে চিত্র পরিলক্ষিত হয় তাতে স্পষ্টথ ইয়াবার দৌরাত্ম্য ভয়াবহ হয়ে উঠছে। আমরা মনে করি, যখন ভয়াবহ আকারে ইয়াবার বিস্তার হচ্ছে, তখন এ পরিস্থিতিতে ইয়াবার আগ্রাসন থেকে যুবসমাজকে রোধ না করতে পারলে, তার জন্য ভয়ঙ্কর মূল্য দিতে হবে এমন আশঙ্কা অমূলক নয়। ফলে পরিস্থিতি বিচার বিশ্লেষণ সাপেক্ষে যথাযথ পদক্ষেপ নিশ্চিত করার কোনো বিকল্প নেই।
সম্প্রতি পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত খবরে জানা গেল, কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক দুই অভিযানে সাড়ে ছয় লাখ ইয়াবা উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এর মধ্যে একটি অভিযানে পাচারকারীদের সঙ্গে বিজিবির গোলাগুলির ঘটনাও ঘটেছে। আর এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তিসহ তিনজনকে আটক করেছে বিজিবি। জব্দ করা হয়েছে একটি নৌকাও। তথ্য মতে, সোমবার ভোর ৫টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যংপাড়া এলাকা থেকে দেড় লাখ পিচ ইয়াবা ও রোববার রাত ২টার দিকে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়াসংলগ্ন নাফ নদী জালিয়ার দ্বীপ থেকে পাঁচ লাখ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আমরা মনে করি, এবারের অভিযানে ইয়াবা উদ্ধারের এই ঘটনাও নিশ্চিত করে যে, ইয়াবা পাচারকারীরা সক্রিয়। ফলে ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনাটিকে আমলে নিয়ে, সংশ্লিষ্টদের কর্তব্য হওয়া দরকার, ইয়াবা বা যে কোনো ধরনের মাদকের ছোবল থেকে যুবসমাজ তথা মানুষকে রক্ষা করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করা।
বলাই বাহুল্য যে, এর আগে নানা সময়েই ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনা ঘটেছেথ কক্সবাজারে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযানও চালিয়েছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনী। লক্ষণীয় যে, অভিযানের পর ইয়াবা পাচারকারী বা ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য কিছুটা ঝিমিয়ে পড়লেও কিছুদিন পর আবারও আগের অবস্থা ফিরে আসে। আমরা মনে করি এ ধরনের পরিস্থিতি স্বাভাবিকভাবেই উৎকণ্ঠাজনক। সংগত কারণেই পরিস্থিতির ভয়াবহতাকে বিবেচনা করে প্রয়োজনে সর্বোচ্চ পদক্ষেপ গ্রহণ করে হলেও ইয়াবা রোধ করা করা অপরিহার্য। আমরা সংশ্লিষ্টদের বলতে চাই, এর আগে এমন বিষয়ও আলোচিত হয়েছে যে, কক্সবাজার, টেকনাফ, উখিয়া, চট্টগ্রামসহ মিয়ানমার সীমান্ত এলাকা বিপুলসংখ্যক ইয়াবা আসে রাজধানীতে। স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন আসে, এভাবে ইয়াবার তৎপরতা বেড়ে যাওয়া কিংবা বিপুলসংখ্যক ইয়াবা কীভাবে দেশের অভ্যন্তরে আসে? আমরা মনে করি, নিয়মিত অভিযান পরিচালনার পাশাপাশি এই চক্রগুলোর নেপথ্যে কারা বা কোন মহল এর সঙ্গে জড়িত, কারা মদদ দিচ্ছে তা খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিতে হবে। কেননা, ইয়াবার ভয়াবহতা রোধ করা না গেলে তার ফলে সৃষ্টি হবে অত্যন্ত আতঙ্কজনক পরিস্থিতিথ যা কোনোভাবেই কাম্য হতে পারে না।
প্রসঙ্গত বলা দরকার, প্রথমদিকে ইয়াবাকে বলা হয়েছিল এটি বড়লোকের নেশা। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে এই নেশা এখন মধ্যবিত্ত এমনকি নিম্নবিত্তকেও পেয়ে বসেছে। শুধু রাজধানীতে নয়, সারাদেশেই ছড়িয়ে পড়েছে এর বিস্তার এমন খবর নানা সময়েই আলোচিত হয়েছে। এ ছাড়া আমলে নেয়া দরকার, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা ইয়াবা ব্যবসায়ীদের প্রধান টার্গেটে পরিণত হয়েছে বলেও জানা যায়। অথচ একটি দেশের যুবসমাজ তথা মেধাবী প্রজন্ম যদি নেশার খপ্পরে পড়ে তবে আগামি দিন কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে তা সহজেই অনুমেয়।
আমরা সরকারকে বলতে চাই, কক্সবাজারের টেকনাফে পৃথক দুই অভিযানে গুলিবিদ্ধ এক ব্যক্তিসহ যে তিনজনকে আটক করা হয়েছেথ তাদের প্রয়োজনে জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে তথ্য সংগ্রহ করতে হবে। নিয়মিত অভিযান পরিচালনার মধ্যদিয়ে ইয়াবা পাচাকারীদের রুখে দিতে হবে। এ ছাড়া আমরা মনে করি, মাদকচক্রের গডফাদারদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করলে এদের ভয়ানক তৎপরতা কমে আসবে। একই সঙ্গে মাদকের কুফল সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতেও সারাদেশে সরকারি-বেসরকারি ক্যাম্পেইন জোরদার করা জরুরি। কেননা ইয়াবা ব্যবসায়ীদের রুখে দিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিশ্চিত করার পাশপাশি যদি জনসচেতনতা বৃদ্ধি পায় তবে তা হবে ইতিবাচক। সর্বোপরি, ইয়াবার ভয়াবহ আগ্রাসন ঠেকাতে আরও কৌঁসুলি ও যথার্থ উদ্যোগ নিশ্চিত হবে এমনটি আমাদের প্রত্যাশা।

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn1Digg thisShare on Tumblr0Email this to someonePin on Pinterest0Print this page

comments

Bangla Converter | Career | About Us