ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৪৪ মিনিট ২৯ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৩ আষাঢ়, ১৪২৬ , বর্ষাকাল, ১৩ শাওয়াল, ১৪৪০

নিসচা সংবাদ, লিড নিউজ সড়ক দুর্ঘটনায় মেধাবী ছাত্রী ফাইজার মর্মান্তিক মৃত্যুতে ঘাতক চালকের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

সড়ক দুর্ঘটনায় মেধাবী ছাত্রী ফাইজার মর্মান্তিক মৃত্যুতে ঘাতক চালকের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

নিরাপদনিউজ:  নিরাপদনিউজ: প্রতিদিনের মত পিতার হাত ধরে স্কুলে যাওয়ার পথে বেপরোয়া মাইক্রোবাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী ফাইজা তাহসিনা সূচির। সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় উত্তরার ১৮ নং সেক্টরে ৫ম শ্রেণীর মেধাবী ছাত্রী ফাইজা তাহসিনা সূচি’র মর্মান্তিক মৃত্যুতে ঘাতক চালকের ফাঁসির দাবীতে আজ ০৮ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সকালে সেক্টরবাসী মানববন্ধনের আয়োজন করেন। সেক্টরবাসীর আমন্ত্রণে মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতি ছিলেন, নিরাপদ সড়ক চাই এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন। নিসচা চেয়ারম্যানের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই এর সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন। মানববন্ধনে আরো অংশগ্রহণ করেন শিক্ষক, অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মানববন্ধনে ঘাতক চালকের ফাঁসির দাবী তুলে বক্তারা প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞপন করেন। এসময় নিরাপদ সড়ক চাই এর সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ হোসেন তার বক্তব্যে বলেন,সড়কের যে নৈরাজ্য ৪৭বছর ধরে চলে আসছে তা দ্রুত বন্ধ হওয়া দরকার এই লক্ষ্যে তিনি প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত ১৭টি নির্দেশনা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি করেন।এটি শুধু ঘোষনার মধ্যেই যেন সীমাবদ্ধ না থাকে, কারণ আমরা লক্ষ্য করেছি জাতীয় নির্বাচন শেষ হলেও এটি বাস্তবায়নের কোন লক্ষন পাচ্ছিনা। যতদিন এটি বাস্তবায়ন না হবে ততদিন এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনার শিকার শিশুরা হতেই থাকবে। এস এম আজাদ হোসেন শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তার বক্তব্যে বলেন, তোমরা সড়কে চলার সময় সাবধানে চলবে।  ট্রাফিক আইন মেনে চলবে,ফুটওভারব্রীজ ব্যবহার করবে, ফুটপাত দিয়ে হাটবে। অতিরিক্ত যাত্রীবাহী গাড়ীতে কখনো উঠবেনা। সেই সাথে তিনি অযোগ্য, অদক্ষ চালক ও ফিটনেস বিহীন গাড়ী রাস্তায় নামানোর সুযোগ কঠোরভাবে বন্ধ করতে হবে বলে কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন।

মানববন্ধনে নিরাপদ সড়ক চাই এর প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, আমি গত ২৫বছর ধরে বলে আসছি আইন সংস্কার করতে।  এবার একটি আইন হয়েছে কিন্তু এই আইন এর বাস্তবায়ন এখনো হচ্ছেনা। কেন হচ্ছেনা এটিই আমি বুঝতে পারছিনা।  ইলিয়াস কাঞ্চন আক্ষেপ করে বলেন,আপনারা ঘাতক চালকের ফাঁসি চাচ্ছেন। যেখানে দোষি সাব্যস্ত ঘাতক চালককে ৫বছরের সাজা দিলে সেই সাজা তারা মেনে নিতে রাজি নয় সেখানে ফাঁসি কি আদেও তাদের দেয়া সম্ভব! দেশে যদি আইন এর যথাযথ প্রয়োগ হতো তাহলে অবশ্যই এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনাগুলো অহরোহ ঘটতো না। আজ কোমলমতি শিশু ফাইজার করুণ মৃত্যু হতো না। তিনি বলেন, পরিবহন ব্যবস্থার প্রতিটি ক্ষেত্রে যে অরাজকতা এবং দুর্নীতি চলছে তা সরকারকে শক্ত হাতে দমন করতে হবে। বেপরোয়া গাড়ি চালানো বন্ধ করতে হবে। লাইসেন্স ছাড়া কেউ যেনো গাড়ি চালাতে না পারে এবং ফিটনেস ছাড়া যেন কোনও গাড়ি রাস্তায় না নামতে পারে সে ব্যাপারেও সরকারকে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

উল্লেখ্য,গত ৫ফেব্রুয়ারি রাজধানীর উত্তরা রাজউক এপার্টমেন্ট প্রজেক্ট ১০ নং ব্রিজের সামনে শ্যুটিংয়ের একটি মাইক্রোবাসের চাপায় নিহত হয়েছে ফাইজা তাহসিনা সূচী নামের ১০ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রী। সে দিয়াবাড়ী মাইলস্টোন স্কুলের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়তো। তার বাবা দৈনিক ইত্তেফাকের সহকারী সম্পাদক ফাইজুল ইসলাম। সূচী পরীক্ষা দিতে স্কুলে যাচ্ছিল । রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি মাইক্রোবাস সূচীকে চাপা দেয়। তার মাথা থেতলে যায়। পরে দ্রুত উত্তরার বাংলাদেশ মেডিকেলে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিত্সকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Posted by S M Azad Hossain on Friday, February 8, 2019

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)