ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মার্চ ৯, ২০১৯

ঢাকা বুধবার, ৯ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২৪ সফর, ১৪৪১

সংগঠন সংবাদ সড়ক দুর্ঘটনা রোধে দরকার সম্মিলিত প্রয়াস: নিসচা শাখার প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে দরকার সম্মিলিত প্রয়াস: নিসচা শাখার প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস

নিরাপদ নিউজ:  নিরাপদ সড়ক চাই মতলব উত্তর উপজেলা শাখা কর্তৃক “ সড়ক নিরাপত্তা: শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের করণীয় শীর্ষক এক কর্মশালা ৯ মার্চ ২০১৯ , শনিবার মরুজকান্দি সপ্তগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় । বিদ্যালয় ব্যস্থাপনা কমিটির সভাপতি রহিম পাঠান ও নিসচা মতলব উত্তর শাখার সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মামুনের সঞ্চালনায় এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ও মূল আলোক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিসচা মতলব উত্তর শাখার সভাপতি , কেন্দ্রীয় কমিটির আজীবন সদস্য ও মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এম, এ কুদ্দুস।

কর্মশালার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত করেন শিক্ষক মাওলানা জামাল হোসেন, শোক প্রস্তাব পাঠ করেন সংগঠনের যুব বিষয়ক সম্পাদক মো: মতিউর রহমান । স্বাগত বক্তব্য রাখেন নিসচার সাধারণ সম্পাদক হাসান আল মামুন। অুষ্ঠানে উপস্থিত শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাখার সহ- সভাপতি ও ছেঙ্গারচর পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ মো: বোরহান উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক আরাফাত আল – আমিন , প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো: রোমান মিয়া,  কাযকরী সদস্য কাজী মো: সালাউদ্দিন, আবুল বাশার খোকন,  মো: শাহ আলম, সদস্য নাজমুল হক , মো: কামরুল ইসলাম, আব্দুল কাদির , মহসিন মন্ডল, সাইদুল ইসলাম আক্তার,  খোরশেদ আলম সরকার , নুরন্নাহার আক্তার প্রমুখ ।

প্রধান অতিথি ও মূল আলোচক বীর মুক্তিযোদ্ধা এম, এ কুদ্দুস বলেন, যেকোনো মৃত্যুই বেদনার। তবে দুর্ঘটনা বা অন্য কোনো কারণে অকাল মৃত্যু অধিক বেদনাদায়ক। আর সেই মৃত্যুরশিকার যদি সম্ভাবনাময় শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণী তথা স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা হন তাহলে বিয়োগযন্ত্রণা বহুগুণ বেড়ে যায়। স্বপ্নভঙ্গ ও অপূরণীয় ক্ষতি হয় নিহত পরিবারগুলোর; যাআমাদের জাতীয় অর্থনীতির ওপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এটা মোকাবিলার জন্য দরকার সম্মিলিত প্রয়াস। এ ক্ষেত্রে দুর্ঘটনা বিরোধী সচেতনতা সৃষ্টি করাই হবে মুখ্য কাজ।

সুষ্ঠু পরিকল্পনা মাধ্যমেইউনিয়ন থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে পারলেই সড়ক দুর্ঘটনা সহনীয় মাত্রায় নামিয়ে আনা সম্ভব হবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।আমাদের এ কাযক্রম মতলব উত্তরের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চলমান থাকবে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)