ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১ মিনিট ৮ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২০ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

জাতীয়, নিসচা সংবাদ, লিড নিউজ ‘সড়ক নিরাপত্তায় অর্থায়ন করবে বিশ্বব্যাংক’

‘সড়ক নিরাপত্তায় অর্থায়ন করবে বিশ্বব্যাংক’

নিরাপদ নিউজ: বিশ্ব ব্যাংক দক্ষিন এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টউইগ শেফার ও জাতিসংঘ মহাসচিবের নিরাপদ সড়ক বিষয়ক বিশেষ দূত জন টড দেশের নিরাপদ সড়ক উন্নয়নের পথে চ্যালেঞ্জ ও সুযোগ বিষয়ে আলোচনার লক্ষে বাংলাদেশ সফর-এ এসেছেন । সড়ক নিরাপত্তায় জাতিসংঘকে অনুসরণের আহ্বান জানাতে বাংলাদেশে এসেছেন তারা। সড়ক নিরাপত্তার প্রতিবন্ধকতা এবং কিভাবে সড়ক নিরাপত্তা জোরদার করা যায়, সেসব বিষয় আলোচনা করতে গিয়ে জাতিসংঘকে অনুসরণ করতে বাংলাদেশকে আহ্বান জানান তারা।

সোমবার সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে উনারা এসে পৌঁছেছেন। আজ মঙ্গলবার বিভিন্ন মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যোগ দেন। আজ বেলা আড়াইটায় রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে “সবার জন্য নিরাপদ সড়ক” কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ সরকার বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘ যৌথভাবে এই ইভেন্টের আয়োজন করে। এতে বক্তব্য রাখেন জাতি সংঘের মহাসচিবের নিরাপদ সড়ক সংক্রান্ত বিশেষ দূত জাঁ তোদ এবং বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট য়ার্তবিগ শেফার।

সফরকালে শ্যাফার এবং টড বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, এবং অন্যান্য উর্ধ্বতন সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে সাক্ষাত করেন। বৈঠকে নিরাপদ সড়ক চাই এর চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চনসহ অনেক নাগরিক সমিতি, এনজিও উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, বাংলাদেশের সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিতে আর্থিক সহায়তা করতে চায় বিশ্বব্যাংক। মঙ্গলবার সচিবালয়ে বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টভিগ শ্যাফেন ও জাতিসংঘ মহাসচিবের সড়ক নিরাপত্তা বিষয়ক বিশেষ দূত জিন টোডের এর সঙ্গে পৃথক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

কাদের বলেন, বাংলাদেশের সড়ক নিরাপত্তায় যৌথভাবে অর্থায়ন করবে বিশ্বব্যাংক ও জাতিসংঘ।

আগামী তিন বছরের মধ্যে এখানে দৃশ্যমান পরিবর্তন আনতে চায় তারা। সড়কে যে বিশৃঙ্খলা আছে, যানজটসহ বিভিন্ন নাজুক অবস্থার দৃশ্যমান পরিবর্তন আনার লক্ষ্যে তারা কাজ করবে।

কাদের উল্লেখ করেন, ‘এ কাজের মাধ্যমে বিশ্বব্যাংকের সঙ্গে বাংলাদেশের আবার সুসম্পর্ক হবে। তাদের সঙ্গে আমরা বৈরি সম্পর্ক রাখতে চাই না। পদ্মা সেতুর কাজ থেকে তারা সরে এসে ভুল করেছে বলে আগেই স্বীকার করেছে।’

সেতুমন্ত্রী জানান, সড়ক নিরাপত্তার জন্য বিশ্বব্যাংক আগে পূর্ণাঙ্গ নকশা করবে। তারপর তারা কাজ শুরু করবে। তারা ইতিমধ্যে সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে গঠিত কমিটির সুপারিশও নিয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)