ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৫ মিনিট ১০ সেকেন্ড

ঢাকা বুধবার, ৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ২২ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস, নিসচা সংবাদ, ফটো গ্যালারী, লিড নিউজ সড়ক পরিবহন আইনের উপর জনগণকে সচেতন করতে ও মানতে নিসচা’র উদ্বুদ্ধকরণ ক্যাম্পেইন

সড়ক পরিবহন আইনের উপর জনগণকে সচেতন করতে ও মানতে নিসচা’র উদ্বুদ্ধকরণ ক্যাম্পেইন

নিরাপদনিউজ:  আজ থেকে বাস্তবায়ন হলো ‘সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮’। এ উপলক্ষে নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)র পক্ষ থেকে কাকরাইল মোড়ে আইনের উপর জনগণকে সচেতন করতে, জানতে ও মানতে উদ্বুদ্ধকরণ ক্যাম্পেইন পরিচালনা করা হয়।

আজ বিকালে কাকরাইল মোড়ে নিসচার পক্ষ থেকে ইলিয়াস কাঞ্চনের নেতৃত্বে একটি টিম সড়কে চলাচলরত যাত্রী পথচারী চালকদের নতুন পরিবহন আইন সম্পর্কে অবগত করেন। আইন মেনে চলার আহবান জানান এবং এই আইনে থাকা শাস্তি বিষয়ে সকলকে সচেতন করে বলেন, সকলে আইন মেনে চলুন। নতুন এই আইনে যে সকল শাস্তি রয়েছে সেসব বিষয়ে সকলের জেনে রাখা প্রয়োজন। নিয়ম মেনে চলবেন। আইন কেউ অমান্য করবেন না। সড়কে শৃংখলা ফিরবেই।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন এই আইন তৈরিসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে জড়িত ছিলেন। নতুন এই উদ্যোগের বিষয়ে তিনি বলেন, কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে নতুন বেশ কিছু উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে দূরপাল্লার চালকদের জন্য খুলনা, সিলেট, চট্টগ্রাম ও রংপুরে জাতীয় মহাসড়ক বিশ্রামাগার তৈরি করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে এ চারটি জায়গা নির্বাচন করা হয়েছে। পরে সংখ্যা আরও বাড়বে। এ ছাড়া ভুয়া চালকদের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে ৩ লাখ চালককে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। যারা ভুয়া লাইসেন্স নিয়ে মহাসড়কে গাড়ি চালাচ্ছেন তাদের উদ্বুদ্ধ করা হবে এই প্রশিক্ষণের আওতায় আসার জন্য। এই প্রশিক্ষণ দেওয়ার জন্য দক্ষ প্রশিক্ষকের সংকট রয়েছে। এজন্য ১ হাজার ৪০০ জনকে প্রশিক্ষকের ট্রেনিং দেওয়া হচ্ছে। এর মধ্যে ৮০০ জনকে ট্রেনিং দিচ্ছে সেনাবাহিনী এবং বাকি ৬০০ জনকে ট্রেনিং দিচ্ছে ব্র্যাকসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠান। সড়ক নিরাপত্তা আইন-২০১৮ বাস্তবায়নের মদ্ধদিয়ে সড়কে দুর্ঘটনা কমবে বলে আমরা আশাবাদী।

নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’র প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন আরো বলেন, যেসব দেশে সড়ক দুর্ঘটনা কম সেসব দেশের মানুষ আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তারা সড়কের আইন, নিয়ম কানুন মেনে চলেন। যে জাতি যত সভ্য সে জাতি তত আইন মানে। আজ ১লা নভেম্বর থেকে কার্যকর হওয়া সড়ক পরিবহণ আইন মেনে চলতে সকলের প্রতি তিনি আহ্বান জানান।

ক্যাম্পেইন চলাকালে ইলিয়াস কাঞ্চন সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারের কার্যকর করা এ নতুন আইনে গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোন ব্যবহার করা যাবে না। মোবাইল ফোন ব্যবহার করলে এক মাসের কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হবে। নতুন এ আইনে লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে ৬ মাসের জেল অথবা ২৫ হাজার টাকা জরিমানা। অথবা উভয় দণ্ড হতে পারে। তা ছাড়া ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে হলে অষ্টম শ্রেণি পাস করতে হবে। আপনারা সকলে নতুন এই আইন সম্পর্কে জানুন এবং মেনে চলার চেষ্টা করুন।

তিনি মোটরসাইকেল চালকদের উদ্দেশ্যে বলেন, হেলমেট ছাড়া বাইক চালালে ১০ হাজার টাকা ও ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে ২৫ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। আপনারা অবশ্যই বাইক চালানোর সময় হেলমেট ব্যবহার করবেন।

নিসচার আজকের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, মহাসচিব সৈয়দ এহসান-উল হক কামাল, যুগ্ম মহসচিব লিটন এরশাদ, অর্থ সম্পাদক নাসিম রুমি, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রহমান, সহ প্রচার সম্পাদক সাফায়েত সাকিব, সহ দপ্তর সম্পাদক সাবিনা ইয়াসমিন, কার্যনির্বাহী সম্পাদক কামাল হোসেন খান, নজরুল ইসলাম ফয়সাল, মিষ্টি চৌধুরী, এম নাহিদ মিয়া, সাধারণ সদস্য মোঃ মোহসিন খান, রাইসিন গাজী, আবদুর রাজ্জাক, মোঃ সাকিব হোসেন, সানাউল্যাহ হাজারী, আবদুস সালাম, আনারুল হক, আবদুল মান্নান, সুশীল চন্দ্র বাছার, দিপক, মুজাহিদুল, হুমায়ূন হিমু প্রমুখ।

উল্লেখ্য, আজ শুক্রবার (১ নভেম্বর) থেকে কার্যকর হচ্ছে ‘সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮’। প্রণয়নের এক বছরেরও বেশি সময় পর আইনটি বাস্তবায়ন হলো আজ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)