আপডেট ১১ মিনিট ১২ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ৩০ আশ্বিন, ১৪২৬ , শরৎকাল, ১৫ সফর, ১৪৪১

ব্যবসা-বাণিজ্য, লিড নিউজ হঠাৎ করেই দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির

হঠাৎ করেই দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির

নিরাপদ নিউজ : ভরপুর শীতের সবজির কারণে রাজধানীর বাজারগুলোতে বেশিরভাগ সবজির দাম স্থিতিশীল থাকলেও হঠাৎ করেই দাম বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির। সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ৫ টাকা। এ নিয়ে দুই সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বাড়ল ১৫ টাকা। শুক্রবার রাজধানীর কারওয়ানবাজার, রামপুরা, মালিবাগ, হাজীপাড়া, খিলগাঁও বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

রামপুরা বাজারে গিয়ে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করছেন ১৩৫ থেকে ১৪০ টাকা। এক সপ্তাহ আগে এ বাজারের ব্যবসায়ীরা ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করেছেন ১৩০ টাকায়। দুই সপ্তাহ আগে বিক্রি হয়েছে ১২০ থেকে ১২৫ টাকায়।

বাজারের ব্যবসায়ী মো. সোলাইমান হোসেন বলেন, ‘বাজারে সবজির দাম এখন তুলনামূলক কম। তবে গত দুই সপ্তাহ ধরে ব্রয়লার মুরগির দাম বাড়ছে। এ মাসের শুরুতে ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি করেছি ১২০ টাকায়। এখন ১৩৫ টাকার নিচে বিক্রি করার উপায় নেই।’

তিনি বলেন, ‘হঠাৎ করেই আড়তে মুরগির দাম বেড়ে গেছে। আমাদেরকেই জিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা বেশি দামে কিনতে হচ্ছে। যে কারণে আমরাও বেশি দামে বিক্রি করছি। তবে দাম বাড়লেও আগের তুলনায় মুরগির চাহিদা কমেনি।’

খিলগাঁওয়ের ব্যবসায়ী জামাল হোসেন সাদা ব্রয়লার মুরগি কেজি বিক্রি করছেন ১৪০ টাকায়। লাল লেয়ার মুরগি বিক্রি করছেন ১৯০ টাকা। আর সাদা লেয়ার মুরগি বিক্রি করছেন ১৭০ টাকায়।

মুরগির দামের বিষয়ে এ ব্যবসায়ী বলেন, ‘সব ধরনের মুরগির দাম বেড়েছে। দুই সপ্তাহ আগে ব্রয়লার মুরগি কেজি বিক্রি করেছি ১২৫ টাকায়। লাল লেয়ার মুরগি বিক্রি করেছে ১৭০ টাকা। আর সাদা মুরগি বিক্রি করেছি ১৪০ টাকা।’

মুরগির দাম বাড়ার কারণ জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কী করণে দাম বেড়েছে আমরা বলতে পারব না। এটা ফার্মের মালিকরা ভালো বলতে পারবেন। আমরা বেশি দামে কিনে আনার কারণে বেশি দামে বিক্রি করছি। আবার যখন কম দামে কিনতে পারব, তখন কম দামে বিক্রি করব।’

রাজধানীর বাজারগুলোতে সপ্তাহের ব্যবধানে দেশি পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ৫ টাকা। এ নিয়ে গত দেড় মাসের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কেজিতে কমেছে ২০ টাকা। পেঁয়াজের পাশাপাশি স্বস্তি দেখা দিয়েছে সবজির দামে।

মুরগির পাশাপাশি কিছুটা দাম বেড়েছে বেগুনের। গত সপ্তাহে ১০ থেকে ২০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া বেগুনের দাম বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৫০ টাকা কেজি। তবে পেঁয়াজ-মরিচসহ অন্য সবজির দাম স্থিতিশীল রয়েছে। আগের সপ্তাহের মতো পুরাতন দেশি পেঁয়াজের কেজি ২৫ টাকা এবং নতুন দেশি পেঁয়াজ ২০-২৫ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকা।

শালগম বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকা কেজি। শিম পাওয়া যাচ্ছে কেজি ১৫ থেকে ৪০ টাকায়। বাজারে নতুন আসা পাকা টমেটোর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৬০ টাকা। আর আর মজুদ করা নিম্নমানের পাকা টমেটো আগের মতোই ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

দাম অপরিবর্তিত রয়েছে নতুন আলুর। আগের সপ্তাহে মতোই নতুন আলুর কেজি বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩৫ টাকা। গাজর আগের সপ্তাহের মতোই ৪০ থেকে ৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

শীতের সবজি হিসেবে পরিচিত ফুলকপি বাজার ও মানভেদে পাওয়া যাচ্ছে ১০ থেকে ৩০ টাকায়। লাউ বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৭০ টাকা পিস। কাঁচা টমেটো বিক্রি হচ্ছে ২০-৪০ টাকা কেজি। মুলা বিক্রি হচ্ছে কেজি ১০ থেকে ২০ টাকা।

পালং শাক বিক্রি হচ্ছে ৫-১৫ টাকা। লাল ও সবুজ শাক বিক্রি হচ্ছে ৫-১০ টাকা আঁটি। লাউ শাক পাওয়া যাচ্ছে ২০-৩০ টাকায়।

দাম অপরিবর্তিত থাকা কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৪০ টাকা কেজি। আর এক পোয়া (২৫০ গ্রাম) হিসাবে কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকা। আগের মতোই গরুর মাংস ৪৮০-৫০০ টাকা এবং খাসির মাংস ৬৫০-৭০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)