ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ১১ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ , হেমন্তকাল, ১১ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০

অপরাধ, সিলেট হবিগঞ্জ যত্রতত্র ঝুকিপূর্ণভাবে সিলিন্ডার গ্যাস বিক্রির অপরাধে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা

হবিগঞ্জ যত্রতত্র ঝুকিপূর্ণভাবে সিলিন্ডার গ্যাস বিক্রির অপরাধে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা

নুর উদ্দিন সুমন,নিরাপদনিউজ: সরকারি নির্দেশে নতুন করে গ্যাস লাইন সংযোগ প্রদান বন্ধ থাকায় হবিগঞ্জে ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠছে সিলিন্ডার গ্যাস। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করেই লাগামহীনভাবে যত্রতত্র ও ঝুকিপূর্ণভাবে বিক্রি করেছে অত্যন্ত দাহ্য ও বিস্ফোরক পদার্থ ধারণকারী এসব গ্যাস সিলিন্ডার। তাই এসব অসাধু ব্যবসায়ীদেও লাগাম টেনে ধরতে হবিগঞ্জ সদরের বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ সিলিন্ডার গ্রাস ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে দিনব্যাপী অভিযান চালিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।
এ অভিযানে ৭ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ করার পাশাপাশি আরো প্রায়  ২০ টিরও বেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সতর্ক করে দেয়া হয়ে। অভিযান চলাকালে বিস্ফোরক বিক্রির লাইসেন্স ছাড়াই গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রি করায় ধুলিয়াখালের মাস্টার স্টোরকে ১ হাজার টাকা, মের্সাস আমেনা ট্রেডাসকে ২ হাজার টাকা এবং টাউন হল রোডের যমুনা ইলেকট্রনিক্সকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও রাস্তার উপরে ও যত্রতত্র রেখে ঝুকিপূর্ণভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিক্রির দায়ে পোদ্দার বাড়ি এলাকার শেখ আলি স্টোরকে ১ হাজার টাকা, ২নং পুল এলাকার রুকন হার্ডওয়ার এন্ড মেশিনারিজকে ৩ হাজার টাকা এবং সবুজবাগ এলাকার জাহাঙ্গীর স্টোরকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এছাড়া নির্ধারিত সংখ্যার চেয়ে অধিক সংখ্যক সিলিন্ডার মজুদ রাখার অপরাধে স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার আইজা স্টোরকে আরো ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. আমিরুল ইসলাম মাসুদের নেতৃত্বে পরিচালিত এ অভিযানে ভোক্তা অধিকার আইনের ৪৩, ৫২ ও ৫৩ ধারা অনুসারে এসব জরিমানা করা হয়। অভিযান চলাকালে ব্যবসায়ীদের অবহেলার দ্বারা জনমানুষের জীবন বা সাস্থ্যহানি ঘটে এমন কাজ থেকে বিরত থাকার জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি নির্দেশ দেওয়া হয়।
অভিযান চলকালে দেখা যায়, হবিগঞ্জের বেশিরভাগ ব্যবসায়ীরাই রাস্তার উপরে সিলিন্ডার রেখে তা বিক্রি করছেন। এছাড়াও তাদের কোনো লাইসেন্স নেই। পাশাপাশি মূল্য তালিকা না থাকায় অনেকেই নির্ধিরিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্য গ্রহণ করছেন। যেহেতু সিলিন্ডার গ্যাস ব্যবসা ক্রমশই প্রসারিত হচ্ছে তাই যথাযথ নিয়মের মধ্যে এনে জনমানুষের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এ ধরণের অভিযান অব্যহত রাখবে ভোক্তা অধিদপ্তর। অভিযানে সার্বিক সহয়তায় ছিলেন নায়ক সালাউদ্দিনের নেতৃত্বে হবিগঞ্জ জেলা পুলিশের একটি টিম।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)