আপডেট মে ৫, ২০১৯

ঢাকা মঙ্গলবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ , গ্রীষ্মকাল, ১৫ রমযান, ১৪৪০

সাহিত্য হাজার ছড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু

হাজার ছড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু

ফিরোজ আলম মিলন, নিরাপদ নিউজ: বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মকে নতুন প্রজন্ম তথা শিশু-কিশোরদের মাঝে সঠিকভাবে তুলে ধরতে এক মহতী উদ্যোগ নিয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক এক কর্মকর্তা। বাংলাদেশ ব্যাংক সিলেট শাখার সাবেক উপ-ব্যবস্থাপক গোপেশ চন্দ্র সূত্রধর অবসর জীবনে এসে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে লিখেছেন হাজার ছড়ার একটি গ্রন্থ।
স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কবিতা ও গান অনেক খ্যাতনামা কবি-সাহিত্যিক এবং গীতিকারগণ লিখেছেন। অন্নদাশঙ্কর রায় থেকে শুরু করে নির্মলেন্দু গুন কিংবা গীতিকার আব্দুল লতিফ থেকে চান মিয়া অনেকের নাম বলা যায়। কিন্তু বিশেষ করে শিশুদের জন্য একটি মাত্র গ্রন্থে হাজার ছড়া ইতোপূর্বে কেউ লিখেছেন বলে আমার জানা নেই। তবে সম্প্রতি শিশুদের চিন্তা ও মননকে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এবং মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শে উজ্জীবিত করতে এক হাজার ছড়া লিখেছেন সিলেটের হবিগঞ্জের সন্তান গোপেশ চন্দ্র সূত্রধর। পেশাগতভাবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকে কর্মরত থাকা অবস্থায়ও বিভিন্ন বিষয়ে তিনি লেখালেখি করতেন এবং অবসর জীবনেও এটি তিনি চালিয়ে যাচ্ছেন।
“হাজার ছড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু” শিরোনামে লেখা ছড়াগ্রন্থ সম্পর্কে গোপেশ চন্দ্র সূত্রধর-এর সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, দুটি ঘটনা তার মনে খুব দাগ কাটে। একটি হলো ১৯৭২ সালে হবিগঞ্জের বৃন্দাবন সরকারি কলেজের শিক্ষার্থী থাকা অবস্থায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু হবিগঞ্জ সফরে আসলে মহান নেতার পা ছুঁয়ে সালাম করার সুযোগ পেয়েছিলাম যা এখনও আমার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ স্মরণীয় মুহূর্ত। আর অপরটি হল বেশ কিছুদিন আগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি বক্তব্য তার হৃদয়কে ছুঁয়ে যায়। সেই বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী তদানীন্তন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খানের একবার ঢাকা সফরে বর্ননা দিয়ে বলছিলেন, ইয়াহিয়া খানের বাঙালি পাচক তার জন্য খাবার বন্ধ করে দেওয়ার ঘোষণা দেন।
এ ধরনের বহু ঘটনার প্রেক্ষিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে হাজার ছড়ার একটি গ্রন্থ লেখায় গোপেশ চন্দ্র সূত্রধর উৎসাহিত বোধ করেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক এই কর্মকর্তা বলেন, তার পাণ্ডুলিপিটি বিশেষ করে শিশু এবং নতুন প্রজন্মকে বাঙালির মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনকের কর্ম ও জীবন সম্পর্কে উজ্জীবিত করতে এবং এসব বিষয় জানার আগ্রহ তৈরিতে অনুপ্রাণিত করবে।
“হাজার ছড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু” শীর্ষক গ্রন্থের পাণ্ডুলিপিটি এখন সম্পূর্ণ প্রস্তুত জানিয়ে গোপেশ চন্দ্র সেটি তার ব্যক্তিগত কম্পিউটারে নিজেই কম্পোজ করেছেন বলে জানান। তবে টাকার অভাবে এ গ্রন্থটি এখনো তিনি প্রকাশ করতে পারছেন না বলে তার আক্ষেপটা রয়েই গেছে। বইটি প্রকাশের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চেয়ে তার কার্যালয়ে গত জানুয়ারি মাসে একটি আবেদনও করেছিলেন বলে জানান জনাব গোপেশ সূত্র ধর। কিন্তু অদ্যাবধি কোন সাড়া না পেয়ে কিছুটা হতাশাগ্রস্থ এবং বুকে কষ্ট নিয়েই অপেক্ষার প্রহর গুনছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত এই কর্মকর্তা।
গোপেশ চন্দ্র সূত্রধর জানান, তার এই পাণ্ডুলিপিটি গ্রন্থাকারে প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়া হলে এবং একটি কপি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতে পৌঁছানো হলে তার জীবনের দীর্ঘদিনের লালিত একটি স্বপ্ন পূরণ হতো এবং মরে গেলেও তিনি পরিপূর্ণ তৃপ্তি নিয়ে পরপারে যেতেন। এ বিষয়ে সংশ্লিস্টদের সুদৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সাবেক কর্মকর্তা গোপেশ চন্দ্র সূত্র ধর।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)