সংবাদ শিরোনাম

২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং

00:00:00 বৃহস্পতিবার, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ , বসন্তকাল, ২৬শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৮ হিজরী
টিভি প্রোগ্রাম টিভি অনুষ্ঠানসূচী আজ বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারি’২০১৭

টিভি অনুষ্ঠানসূচী আজ বুধবার ০৮ ফেব্রুয়ারি’২০১৭

পোস্ট করেছেন: Nsc Sohag | প্রকাশিত হয়েছে: ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭ , ১২:৩৮ পূর্বাহ্ণ | বিভাগ: টিভি প্রোগ্রাম

দেশটিভি

দেশ টিভি অনুষ্ঠানমালা ৮ ফেব্রুয়ারি, বুধবার
সময় অনুষ্ঠান
সকাল ৭:৩০ দেশ সংবাদ
সকাল ৮:০০ সিনেমার সকাল: বনের রাজা টারজান
শ্রেষ্ঠাংশে: নূতন, ড্যানি সিডাক, লিমা প্রমুখ।
সকাল ১০:০০ দেশ সংবাদ
দুপুর ১২:০০ দেশ সংবাদ
দুপুর ২:০০ দেশ সংবাদ
বেলা ৩:৩০ ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী গান আর গান
বেলা ৪:০০ দেশ জনপদ
বিকাল ৫:০০ দূরশিক্ষণ অনুষ্ঠান: দূরপাঠ (সরাসরি)
সন্ধ্যা ৬:০০ শিশুদের জন্যে কার্টুন: টয় বক্স
সন্ধ্যা ৬:৩০ অমর একুশে গ্রন্থমেলার প্রতিদিনের বিশেষ অনুষ্ঠান:
ফাগুনের মলাট
সন্ধ্যা ৭:০০ দেশ সংবাদ
রাত ৭:৪৫ বিষয়ভিত্তিক টক-শো: যুক্তি তক্কো আর গপ্পো
রাত ৯:০০ সংবাদ
রাত ৯:৪৫ ধারাবাহিক নাটক: বারান্দায় রোদ্দুর
রচনা: লিটু সাখাওয়াত। পরিচালনা: তৌহিদ খান বিপ্লব।
অভিনয়ে: আমিরুল হক চৌধুরী, ফারুক আহমেদ, সানজিদা প্রীতি,
শাহাদাত হোসেন, এ্যালেন শুভ্র, শাকিলা আক্তার, বিথী সরকার, চিত্রলেখা গুহ প্রমুখ।
রাত ১০:৩০ ধারাবাহিক নাটক: উৎসব
রচনা: মাসুম শাহরীয়ার। পরিচালনা : গোলাম মুক্তাদির।
অভিনয় শিল্পী: আবুল হায়াত, আজাদ আবুল কালাম, নাজনীন হাসান চুমকী, রাজীব
সালেহীন, হি মে হাফিজ, দ্বীপ, নাদিয়া আহমেদ প্রমুখ।
রাত ১১:০০ দেশ সংবাদ
রাত ১১:৪৫ টক শো: সোজা কথা (সরাসরি)
রাত ১২:৩০ গাজী গ্রুপ টোটাল স্পোর্টস
রাত ১:০০ দেশ সংবাদ

অমর একুশে গ্রন্থমেলার বিশেষ অনুষ্ঠান ‘ফাগুনের মলাট’
অমর একুশে গ্রন্থমেলায় দেশটিভিতে সপ্তাহের প্রতি সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে প্রচারিত হবে বই এবং পাঠকদের নিয়ে অনুষ্ঠান ‘ফাগুনের মলাট’। অমর একুশে বইমেলা উপলক্ষ্যে ‘একুশে বইমেলা’ শিরোনামে নির্মিত হয়েছে একটি বিশেষ গান। গানটি গেয়েছেন শিল্পী ফাহমিদা নবী এবং বাপ্পা মজুমদার। গানটি লিখেছেন রবিউল ইসলাম জীবন এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ফোয়াদ নাসের বাবু। ফাগুনের মলাটে বাংলা ভাষা, বাংলাভাষার লেখক এবং চিরায়ত বাংলা বইগুলো নতুন পাঠকদের সামনে উপস্থাপন করা হবে। যাতে নতুন বইয়ের পাশাপাশি মানসস্পন্ন বই সহজে খুঁজে পান অনুসন্ধানী পাঠক। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করছেন অণু, প্রযোজনা করছেন আমজাদ সুজন।
ধারাবাহিক নাটক: উৎসব
রচনা: মাসুম শাহরীয়ার।
পরিচালনা : গোলাম মুক্তাদির
অভিনয় শিল্পী: আবুল হায়াত, আজাদ আবুল কালাম, নাজনীন হাসান চুমকী, রাজীব সালেহীন, হি মে হাফিজ, দ্বীপ, নাদিয়া আহমেদ প্রমুখ।
দেশ টিভিতে প্রচারিত হবে প্রতি মঙ্গল থেকে বৃহস্পতিবার রাত ১০টা ৩০ মিনিটে
গ্রামের নামটা উৎসব। গ্রামটা একটু প্রত্যন্ত এলাকায়। গ্রামের একপাশে বকপট্টির জঙ্গল। অন্যপাশে বিল। বিলের উপাড়ে ঘাসপাড়া। প্রত্যন্ত এই গ্রামের বিত্তবান মানুষ গাজী আলতাফ। বিস্তর জমিজমা। গঞ্জে মাছ আর সবজির আড়ত। গাজি সাহেবের চার ছেলে মেয়ে। ছেলে মেয়েদের কেউ গ্রামে থাকে না। শহুরে জীবনে তারা অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে। ছেলে মেয়েদের কথা ভেবে তিনি গ্রামে আধুনিক দুতলা একটা বাড়ি করেছেন। ফল কিছু হয়নি। গ্রামের প্রতি ছেলেমেয়েদের কোন টান নেই। অথচ এই গ্রামেই তাদের শৈষব কৈশোর কেটেছে। আলতাফ সাহেবের স্ত্রী হাসনাহেনা ছাড়া বাড়ির আরো দুটি চরিত্র মজনু এবং ময়না। এরা দুই ভাইবোন। এ বাড়ির আশ্রিতা বলা হলেও আসলে কাজের লোক। দুটি চরিত্রের মধ্যেই কি যেনো রহস্য আছে।
আলতাফ সাহেব অনুনয় অনুরোধ থেকে শুরু করে নানা ভাবে তার ছেলে মেয়েদের গ্রামে আনার চেষ্টা করছেন। সে চেষ্টা সফল হয়নি। আলতাফ সাহেব ঠিক করেছেন তার সমন্ত বিষয় সম্পত্তি তিনি দান করে যাবেন। খবরটা ছেলেমেয়েদের কানে পেীছেছে। খবর শোনর পর তাদের প্রতিক্রিয়া বেশ জটিল। কয়েক কোটি টাকার সম্পত্তি এভাবে হাতছাড়া হয়ে যাবে কেউ সেটা মেনে নিতে পারছে না কিন্তু বাপের এই সিদ্ধান্তকে তারা পাল্টাবে কি করে? আলতাফ সাহেবের একটাই শর্ত ছেলে মেয়েদের গ্রামে এসে থাকতে হবে। বাপকে এই সিদ্ধন্ত থেকে সড়ানোর ব্যার্থ চেষ্টা চলে কিছু দিন। দানের কাগজপত্র যখন তৈরী ছেলেমেয়েরা নিজেদের অবস্থান থেকে সরে আসে। তারা গ্রামে যাবার সিদ্ধান্ত নেয়। একদল শহুরে মানুষ গ্রামীন জীবন শুরু করতে প্রস্তুত হয়। তাদের রুচি ফ্যাশন চিন্তা অভ্যাস … এই সবকিছু গ্রামীন পটভূমিতে তৈরী করে নানারকম হাস্যরস। গ্রামের মানুষ সম্ভ্রান্ত পরিবার হিসেবে তাদের যেমন সমীহ করে, তাদের কান্ড কারখানায় হাসতে হাসনতে লুটুপুটিও খায়। দ্বিধা দ্বন্দ উৎসবের ভেতর দিয়ে একটা পরিবর্তন কি আমরা টের পাই না? একটা জাতী স্বত্তার শেকরের একটু কাছাকাছি কি পৌছাই না?
একটা দীর্ঘ ধারাবাহিক গল্পের শেষে আমরা আলতাফ সাহেবের মৃত্যু সংবাদ পাই। যে সংবাদ সবাইকে শূন্য করে দেয়। কাদায়। উৎসব নামের গ্রামটা হয়ে ওঠে আলতাফ সাহেবের স্মৃতির যাদুঘর।

টকশো : সোজা কথা
চলমান রাজনীতি, অর্থনীতি, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে দেশ টিভিতে সোমবার রাত ১১টা ৪৫ মিনিটে প্রচারিত হবে টকশো সরাসরি অনুষ্ঠান ‘সোজা কথা’। অনুষ্ঠানটি পালাক্রমে উপস্থাপনা করেন মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর, মুনীরুজ্জামান ও সুকান্ত গুপ্ত অলক। অনুষ্ঠানে অংশ নেন বিশিষ্ট রাজনীতিক, অর্থনীতিবিদ, সমাজবিজ্ঞানী, বুদ্ধিজীবি, পেশাজীবি, শিক্ষক, সাংসদ ও মন্ত্রীবর্গ। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করছেন মশিউর রহমান নিবিড়।
চ্যানেল-নাইন এর অনুষ্ঠান সূচী ও হাইলাইটঃ (০৮ ফেব্রুয়ারি বুধবার ২০১৭)
সকাল ০৬টা ০০মি. ঃ হাইলাইটস্ : বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ-২০১৬
০৯টা ০০মি. ঃ বাংলা সিনেমা: তুমি আমার স্বামি
দুপুর ১২ টা ৪০মি. ঃ স্পোর্টস বুলেটিন
সন্ধ্যা ০৬টা ০০মি. ঃ কিডস্ আওয়ার
রাত ০৮টা ০০মি. ঃ হাইলাইটস: বিপিএল-২০১৬
রাত ০৯ টা ০০মি. ঃ লালিগা-২০১৬-১৭
রাত ১১ টা ৫০মি. ঃ বইমেলা নিয়ে প্রতিদিনের আয়োজন: বইমেলা

এটিএন বাংলার অনুষ্ঠানসূচী/বুধবার/০৮ ফেব্রুয়ারি’ ২০১৭
০৯টা ১৫মিঃ পোয়েট সামিট ২০১৭ নিয়ে বিশেষ টক শো, পরিচালনা- রাসেল মাহমুদ।
১০টা এটিএন বাংলা সংবাদ
১০টা ৩৫মিঃ ফেয়ার এন্ড লাভলী সিনেমা হলে পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা ছায়াছবি ‘ও প্রিয়া তুমি কোথায়’ পরিচালনাঃ শাহাদাত হোসেন লিটন।
১১টা ০০মিঃ এটিএন বাংলা সংবাদ
০৩টা ১০মিঃ ধারাবাহিক নাটক ‘মাইক’ (পর্ব-২৬) রচনা ও পরিচালনা- মোস্তফা কামাল রাজ।
০৩টা ৪৫মিঃ সঙ্গীতানুষ্ঠান ‘মিউজিক অন ডিমান্ড’ (পর্ব-১২) উপস্থাপনাঃ সামিয়া জাহান, পরিচালনাঃ নন্দিনী ইসলাম।
০৪টা এটিএন বাংলা সংবাদ
০৪টা ২০মিঃ টক শো ‘যে কথা কেউ বলেনি’ পরিচালনা- নাহিদ রহমান।
০৫টা গ্রাম-গঞ্জের খবর
০৫টা ২৫মিঃ সরাসরি সম্প্রচারিত ইসলামী অনুষ্ঠান ‘আরএফএল কসমিক ডোর ইসলামী সওয়াল ও জবাব’।
০৬টা ইংরেজী সংবাদ।
০৬টা ১৫মিঃ কৃষি বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘পেট্রোকেম সোনালী দিন’ (পর্ব-৫৩) উপস্থাপনা ও পরিচালনাঃ মীর এমদাদ আলী।
০৭টা এটিএন বাংলা সংবাদ
০৮টা ফেয়ার এন্ড লাভলী নিবেদিত ধারাবাহিক নাটক ‘গ্যারাকলে মীরাক্কেল’ (পর্ব-৪৪), রচনা ও পরিচালনা- হামেদ হাসান নোমান।
অভিনয়ে: তৌকীর আহমেদ, মীর সাব্বির, জেনী, লুৎফর রহমান জজ, মানস বন্দোপাধ্যায়, জয়রাজ।
০৮টা৪০মিঃ ধারাবাহিক নাটক ‘রেডিও জকি ও কতিপয় গল্প’ (পর্ব-০২), রচনা ও পরিচালনা- মুরাদ পারভেজ।
অভিনয়েঃ ঝুনা চৌধুরী, শম্পা রেজা, চিত্রলেখা গুহ, সোহানা সাবা, আহসান হাবিব নাসিম, ইরফান সাজ্জাদ, ইউসুফ রাসেল, সুমনা সোমা, খালেকুজ্জামান, রোকসানা হিরা, সুসমী আহসান প্রমুখ।
০৯টা ২০মিঃ ধারাবাহিক নাটক ‘বাবুই পাখীর বাসা’ (পর্ব-৫৩) রচনা: কাজী শহীদুল ইসলাম, পরিচালনাঃ সকাল আহমেদ।
অভিনয়েঃ রচি, শহীদুজ্জামান সেলিম, মীর সাব্বির, নাদিয়া, শ্যামল মওলা, অর্ষা, শর্মিলী আহমেদ, অলিউল হক রুমী, আইরিন আফরোজ, হীরা প্রমূখ।
১০টা এটিএন বাংলা সংবাদ
১০টা ৫৫মিঃ ধারাবাহিক নাটক ‘আয়না ঘর’ (পর্ব-৭৬) রচনাঃ মাসুম রেজা, পরিচালনা- এস এ হক অলীক।
অভিনয়েঃ আবুল হায়াত, আল মনসুর, শহীদুজ্জামান সেলিম, সাবেরি আলম, নাদিয়া, সোনিয়া, অহনা, আমব্রিন, অপুর্ব, প্রমুখ।
১১টা ৩০মিঃ ধারাবাহিক নাটক ‘নীড় খোঁজে গাঙচিল’ (পর্ব ৫৪৩), রচনা ও পরিচালনাঃ মোহন খান। (২২ মিনিট)
অভিনয়েঃ শাহেদ শরীফ খান, মীর সাব্বির, শোয়েব, হাসান মাসুদ, আরফান, চাঁদনী, নওশিন, সাবাবা মোহন, মিতা নূর, সোমা, ফারজানা ছবি, মাহমুদজ্জামান সেলিম প্রমুখ।
১২টা সংবাদ পর্যালোচনামূলক অনুষ্ঠান ‘পাওয়ার টক শো’ সরাসরি সম্প্রচার। উপস্থাপনা ও পরিচালনা- জ. ই. মামুন।
০১টা এটিএন বাংলা সংবাদ
০১টা ২০মিঃ প্রাণ চানাচুর নিবেদিত ছায়াচবির গান নিয়ে অনুষ্ঠান ‘সিনে মিউজিক’ (পর্ব ৬০২)

[প্রতি ঘন্টার সংবাদ : সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা, ১১টা, দুপুর ১২টা, ১টা, বিকেল ৩টা ও ৪টা। ইংরেজী সংবাদ সন্ধ্যা ৬টা]

হা । ই । লা । ই । ট । স
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

শুরু হয়েছে ‘রেডিও জকি ও কতিপয় গল্প’
প্রচার- মঙ্গল থেকে বৃহস্পতিবার, রাত ৮টা ৪০মিনিটে
রচনা ও পরিচালনা- মুরাদ পারভেজ।
৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এটিএন বাংলায় প্রচার শুর হয়েছে ধারাবাহিক নাটক ‘রেডিও জকি ও কতিপয় গল্প’। মুরাদ পারভেজের রচনা ও পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছেন ঝুনা চৌধুরী, শম্পা রেজা, চিত্রলেখা গুহ, সোহানা সাবা, সুমনা সোমা, আহসান হাবিব নাসিম, ইরফান সাজ্জাদ, ইউসুফ রাসেল, খালেকুজ্জামান, রোকসানা হিরা, সুসমী আহসান প্রমুখ। ধারাবাহিকটি সপ্তাহের মঙ্গল থেকে বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ৪০মিনিটে প্রচার হবে এটিএন বাংলায়।
খেয়া রেডিও জকি। চাকরীটা করে সে একেবারে নিজের ভালো লাগার জন্য। কাক ডাকা ভোরে শ্রোতারা এসএমএসে বা ফোন করে পছন্দের গান শুনতে চায় তখন তার ভীভণ ভালো লাগে। প্রতিদিন ভোরে বাসা থেকে বের হয়ে ১০টা পর্যন্ত বকর বকর, তারপর ক্লাস। এভাবেই পার করেছে তিনচি বছর। খেয়া চৌধুরীর এখন অনেক ফ্যান। পড়াশোনার পাট চুকিয়ে এখন সে বেকার। প্রতিদিনের মতো ভোরে বাসা থেকে বেরিয়ে রেডিও স্টেশনে যাওয়া তারপর বাসায় ফিরে মাকে টুকটাক রান্নায় হেল্প করা, পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা, তারপর আর সময় কাটেনা। বড় একা লাগে। একদিন নিউজ ব্রেকে ক্যান্টিনে চা খেতে খেতে খেয়ার চোখ আটকে যায় একটা চাকরীর বিজ্ঞাপনে। চোখ ছাড়াবড়া হয়ে যায় বিজ্ঞাপনের শর্ত দেখে। বিবাহিত মেয়েদের চাকরীতে অগ্রাধিকার, শর্ত প্রযোজ্য। হাঁসিতে ফেটে পড়ে খেয়া। মা’ও হে*সে ওঠে হো হো করে। মাকে চমকে দিয়ে ইন্টারভিউ দিতে রাজি হয় খেয়া। মা তাকে বোঝানোর চেষ্টা করে, এটা অন্যায়। বিবাহিত না হয়েও বিবাহিত এর অভিনয় করে চাকরী নেয়াটা ঠিক নয়। কিন্তু খেয়া ইন্টারভিউ দিবেই দিবে। এরপর কাহিনী মোড় নেয় অন্যদিকে। ঘটতে থাকে বিভিন্ন রকম মজার ঘটনা।

Share on Facebook0Share on Google+0Tweet about this on TwitterShare on LinkedIn1Digg thisShare on Tumblr0Email this to someonePin on Pinterest0Print this page

comments

Bangla Converter | Career | About Us