আপডেট ৫৬ মিনিট ৫২ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১২ রবিউস-সানি, ১৪৪১

রাজনীতি, লিড নিউজ আপোষ করেননি বলেই খালেদা জিয়া আজ কারাগারে: মির্জা ফখরুল

আপোষ করেননি বলেই খালেদা জিয়া আজ কারাগারে: মির্জা ফখরুল

নিরাপদ নিউজ: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, খালেদা জিয়াকে আটক রাখার কোন বৈধ কারণ নেই। শুধু দেশের স্বার্থ রক্ষার ক্ষেত্রে কোন আপোষ করেননি বলেই কারাগারে খালেদা জিয়া। ভোটারবিহীন সরকার দেশের সার্বভৌমত্ব ক্ষুন্ন করছে মন্তব্য করে তিনি এসব কথা বলেন। আজ শনিবার দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলের একটি হোটেলে এসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের (এ্যাব) আয়োজনে ‘ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহার চুক্তি : বাংলাদেশের সম্ভাব্য বিপর্যয়’ বিষয়ক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, একটি কথা আমরা বিশ্বাস করি সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা থাকে না, যাদের জনগণের কাছে জবাবদিহি করতে হয় না, তারা শুধু নিজেদের স্বার্থে ক্ষমতা দখল করে রাখে। ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে ক্ষমতায় থাকার জন্য তারা দেশের ও মানুষের স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিয়ে স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বকে বিপন্ন করেছে। সর্বোপরি গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দিয়ে তারা একটি পুতুল সরকারের পরিণত হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ১৫১ টি অভিন্ন নদী আছে বাংলাদেশে। এসব নদীর মধ্যে শুধু ফারাক্কা বাঁধ ছাড়া আর কোন নদীর চুক্তি হয়নি। তিস্তা নিয়ে গত ১২ বছর ধরে সরকার শুধু শুনেছি চেষ্টা করেই যাচ্ছে। কিন্তু কল আমরা পাচ্ছি না।
অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ভারতের সমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় টিকে আছে সরকার। তাই দেশের সমস্যা নিয়ে ভারতের সঙ্গে কথা বলতে পারেনা সরকার। বর্তমান সরকার যতদিন থাকবে ততদিন দেশের স্বার্থ ক্ষুন্ন হবে। সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরাতে হবে। উল্টো খালেদা জিয়াকে আটক করে রাখার কোন বৈধ কারণ না থাকলেও দেশের স্বার্থ রক্ষার ক্ষেত্রে কোন আপোষ করেননি বলেই কারাগারে তিনি। এজন্য জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন বাতিল করে আবারও সুষ্ঠু নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের মাধ্যমে একটি গণতান্ত্রিক সরকার গঠনের দাবিও জানান মির্জা ফখরুল।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. আখতার হোসেন। সেমিনারে বক্তারা বলেন, অবিলম্বে ফেনী নদীর পানি প্রত্যাহার চুক্তি বাতিল না করলে ওই অঞ্চলের আবাদি জমির যেমন হুমকির মুখে পড়বে, তেমনি চরম হুমকির শিকার হবে মানুষ ও জনজীবন। তাই জনস্বার্থে সরকারকে এ চুক্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
সেমিনারে এ্যাবের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রফেসর মোঃ রিয়াজুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে আরও অংশ নেন- বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, রাজশাহীর সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, প্রকৌশলী আশরাফ উদ্দিন বকুল, গোলাম মাওলা, একেএম জহিরুল ইসলাম, শাহাদাত হোসেন বিপ্লব, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কাদের গণি চৌধুরী, এ্যাবের সাধারণ সম্পাদক হাছিন আহমেদ, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলামসহ আরও অনেকে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)