ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ফেব্রুয়ারী ১১, ২০২০

ঢাকা শুক্রবার, ১৬ ফাল্গুন, ১৪২৬ , বসন্তকাল, ২ রজব, ১৪৪১

সম্পাদকীয় আমরাও এখন বিশ্বসেরা: বাংলাদেশের যুব বিশ্বকাপ জয়

আমরাও এখন বিশ্বসেরা: বাংলাদেশের যুব বিশ্বকাপ জয়

নিরাপদ নিউজ: আমরা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন! অসাধারণ এক সময়! স্বপ্ন সত্যি হয়েছে! ধন্যবাদ জানানো বা অনুভূতি প্রকাশ করার মতো নয়! ক্রিকেটের বিশ্বমঞ্চে ইয়াং টাইগারদের গর্জন আমাদের ভীষণভাবে আন্দোলিত করেছে। দারুণ এক জয়ের জন্য অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলকে প্রাণোচ্ছল অভিনন্দন। তোমরা দেশকে গর্বিত করেছ, গড়েছ ইতিহাস। তোমাদের জন্য গর্ব বোধ করছি আমরা।

কৌতূহল, স্পন্দিত হৃদয় ও তীব্র স্নায়ুচাপের মধ্যে যাচ্ছিলো প্রতিটি সেকেন্ড, মিনিট, মুহুর্ত। পুরো দেশবাসীর মনে যে প্রশ্ন বারবার উঁকি দিচ্ছিলো, শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপ জয় করতে পারবো তো আমরা? উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় সবাই তাকিয়ে ছিলো দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমের সেনওয়াস পার্কের স্টেডিয়ামে। শেষ পর্যন্ত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে সোনালি ইতিহাস লিখল বাংলাদেশের যুবারা। দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে পতপত করে উড়ল লাল-সবুজের পতাকা। জয় নিশ্চিতের পর পরই বিজয়োল্লাসে মেতে উঠে গোটা বাংলাদেশ। বিশ্ব আরো একবার শুনল বাঘের গর্জন। যেকোনো জাতির জীবনে এমন অর্জন সত্যিই অবিস্মরণীয়।

১৯৯৭ সালে আকরাম খানদের হাত ধরে আইসিসি ট্রফির শিরোপা জয়ের পর বাংলাদেশের ক্রিকেটের যে অগ্রযাত্রা শুরু হয়েছিল, তারই ধারাবাহিকতায় অনূর্ধ্ব-১৯ দল যেন লিখল আরেক কাব্যগাথা। গত দুই বছর আমাদের ছেলেরা যে কঠোর পরিশ্রম করেছে, এটা তার ফল। সব খেলোয়াড়, কোচ এবং বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের কর্মকর্তাসহ ক্রিকেট বোর্ডের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের অভিনন্দন। এক কথায় পুরো দেশ তোমাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। তোমরা আমাদের সারাজীবনের জন্য গর্বিত ও ঋণী করেছ। ব্যাটে বলে যে কাব্য লিখেছে আকবর আলীর দল তা এ দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের পাতায় একটি স্বর্ণোজ্জ্বল অধ্যায় হিসেবে যুক্ত হলো। বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশকে নতুন ইতিহাস ও নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেলেন আকবর আলীরা।

কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো শিরোপা জেতা বলে কথা; তাই তো দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটারদের বিশ্বজয়ের আনন্দে এখন মাতোয়ারা গোটা দেশ। রাজধানী ঢাকা থেকে শুরু করে সব শহরেই মানুষ গতকাল একটিই স্লোগান দিয়েছে বাংলাদেশ! বাংলাদেশ! শাবাশ বাংলাদেশ!! আমরা এখন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন। এই শিরোপা নিঃসন্দেহে স্বপ্ন দেখাবে ভবিষ্যতে আরও বড় কিছু পাওয়ার।

সিনিয়র কিংবা জুনিয়র যে কোনো পর্যায়ের ক্রিকেটে ভারতের বিপক্ষে ফাইনাল মানেই নিশ্চিত হারের আশঙ্কা! এ কথা উল্টে দেয়ার দুঃসাহসিকতা দেখালেন যুবারা। তারা বিশ্ববাসীকে জানিয়ে দিলো আমরাই বিশ্ব সেরা। ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং টুর্নামেন্টজুড়ে তিন বিভাগে অসাধারণ কৃতিত্ব দেখায় বাংলাদেশ। উত্তেজনাকর লোস্কোরিং ফাইনালে অধিনায়ক আকবর আলীর ক্যাপ্টেনস নকে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এর ফলে প্রথম কোনো বিশ্ব আসরে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হাত ধরে শিরোপা জিতল বাংলাদেশ।

এ বিজয় বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের জন্য দারুণ এক মুহূর্ত এবং অসাধারণ অর্জন। আমরা আশা করি, খেলোয়াড়দের এমন জয়ের মনোভাব ধরে রেখে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। ছেলেরা! অনেক দূর যেতে হবে তোমাদের। ভবিষ্যতে তোমাদের হাত ধরেই আসবে আরও আরও সাফল্য, এ বাসনাই আমাদের।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)