ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট নভেম্বর ২৮, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১১ রবিউস-সানি, ১৪৪১

প্রবাসী সংবাদ ইতালি আওয়ামী লীগ দুই ভাগে বিভক্ত, আবারো ভাঙতে পারে

ইতালি আওয়ামী লীগ দুই ভাগে বিভক্ত, আবারো ভাঙতে পারে

ইসমাইল হোসেন স্বপন,নিরাপদ নিউজ: প্রতিনিধি ইউরোপের বিভিন্ন দেশের আওয়ামী লীগের কমিটির মধ্যে ইতালি আওয়ামী লীগ একটি শক্তিশালী অবস্থানে ছিল। দলীয় প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালী আওয়ামী লীগের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ইতালিতে ডা বিভিন্ন গণসংবর্ধনায়। অত্যন্ত শক্তিশালী ইতালি আওয়ামী লীগ এখন দুই ভাগে বিভক্ত। মূল অংশের সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী নেতৃত্বে সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল বহু বছর ধরে সম্মেলন না দেয়াতে এই বিভক্তি। অপর অংশের সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী আপন ভাই জাহাঙ্গীর ফরাজী।

ওই অংশের সাধারণ সম্পাদক এম এ রক মিন্টু। ২০১২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর ইতালী আওয়ামী লীগের একতরফা সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ইদ্রিস ফরাজী সভাপতি নির্বাচিত হন। সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক এম এ গনি সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আওয়ামী লীগ নেতা আলমগীর হোসেনকে লিখিতভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করার পর জনাব গনি তা অস্বীকার করেন।

সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের তৎকালীন সভাপতি অনিল দাশগুপ্তের নির্দেশে হাসান ইকবালকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে গ্রহণ করেন জনাব ফরাজি। তিন বছর পার হওয়ার পর থেকেই দলীয় নেতাকর্মীরা সম্মেলনের দাবি করে আসছিলেন। কিন্তু ফরাজী -হাসান সম্মেলন না দিয়ে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে রাখেন। ফলে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিদ্রোহ দেখা দেয়।

ওইদিকে জনাব ইদ্রিস ফরাজী শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির পদ বাগিয়ে নেন তদবির মধ্য দিয়ে। তিনি জেলা কমিটির সমমর্যাদা সম্পন্ন দুই কমিটির নেতা হতে চান। তার বিরুদ্ধে প্রধান অভিযোগ রয়েছে তিনি অধিকাংশ সময়ই বাংলাদেশে অবস্থান করেন। ইতালি আওয়ামী লীগ বিভক্ত হবার পর সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে এবং সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি ও নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়। জি এম কিবরিয়াকে আহ্বায়ক এবং আবু সাঈদ খানকে সদস্যসচিব করে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠিত হয়েছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশন ঘোষণা করা হয়েছে কে এম লোকমান হোসেনকে। আগামী বছর ২৯ শে মার্চ ইতালী আওয়ামী লীগের সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে। এদিকে সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের দুই সদস্যের কমিটি দশ মাস পর সাফল্যের মুখ দেখেননি। বরং জামাত-শিবিরের কর্মীদের দলীয় পদ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে। জার্মান আওয়ামীলীগকে দ্বিধাবিভক্ত করার ক্ষেত্রে তাদের ভূমিকা রয়েছে বলে কর্মীদের অভিযোগ। সর্বশেষ স্পেন আওয়ামী লীগের সম্মেলন করার মধ্য দিয়ে ওই দেশের কমিটি দ্বিধা বিভক্ত করা হলো।

সারা বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের একটি বিদ্রোহী কমিটি কয়েকদিন আগে সম্মেলন করেছে।এদিকে ফ্রেন্ডের আওয়ামীলীগও দ্বিধাবিভক্ত হয়েছে।২৫ নভেম্বর ডিজে বিভক্ত আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নানা দেশে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ রয়েছে। ইতালী আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীরা জানান, মার্চে অনুষ্ঠিতব্য সম্মেলনে সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগ গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে ব্যক্তিস্বার্থে কাউকে নেতৃত্ব দেবার চেষ্টা করা হলে এখানে আরেকটি ভাঙ্গন দেখা দিতে পারে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)