ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুন ২৪, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ৭ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২৪ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১

এই দিনে ইতিহাসের এই দিনে

ইতিহাসের এই দিনে

আজ (সোমবার) ২৪ জুন’২০১৯

নবীজির হিজরতের আট বছর আগের এই দিনে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ মোস্তফা (সাঃ) এর কন্যা হযরত ফাতেমা যাহরা (সালামুল্লাহি আলাইহা) জন্মগ্রহন করেন। তিনি শিশুকাল থেকে নবীজির আদর যতেœ লালিত পালিত হন এবং জ্ঞান, চরিত্র ও নৈতিক দিক দিয়ে একজন পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠেন। বিশ্বনবী মক্কার কাফের ও মুশরেকদের হাতে নানাবিধ নির্যাতনের শিকার হওয়ার পর নিজ কন্যা হযরত ফাতেমা যাহরা (সা)’র সান্নিধ্যে আসলে ঐসব নির্যাতনের কথা ভুলে যেতেন। হিজরি দ্বিতীয় সালে হযরত আলী (আঃ) এর সাথে হযরত ফাতেমা যাহরা (সা)র শুভ বিবাহ সম্পন্ন হয়। এই দুজন আদর্শস্থানীয় মানুষের ঘর আলোকিত করে পৃথিবীতে এসেছিলেন ইমাম হাসান ও ইমাম হোসেইন (আঃ) এর মত নেতা এবং হযরত যেইনাব (সা)’র মত মহিয়সী নারী। বিশ্বনবী (সাঃ) এর ওফাতের কয়েকমাস পর হিজরি ১১ সালে হযরত ফাতেমা যাহরা ইহলোক ত্যাগ করেন। হযরত ফাতেমা (সাঃ আঃ) এর জন্ম দিবস ইরানে তার ‘নারী দিবস’ হিসেবে উদযাপিত হয়।

১০৯ বছর আগের এই দিনে ১৩২০ হিজরির এই দিনে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ইমাম খোমেনি (রহঃ) মধ্য ইরানের খোমেইন শহরে জন্মগ্রহন করেন। খুব অল্প বয়সে তিনি ধর্মীয় বিষয়ে পড়াশুনা শুরু করেন। পরবর্তীতে তিনি উচ্চ শিক্ষার্থে কোম নগরীতে আসেন। কোমের ধর্মীয় শিক্ষাকেন্দ্রের বিখ্যাত অধ্যাপকদের সান্নিধ্য এবং নিজের খোদাপ্রদত্ত প্রতিভা ইমাম খোমেনি (রহঃ)কে অতি দ্রুত একজন মুজতাহিদে পরিণত করে। তিনি ফিকাহ শাস্ত্র ছাড়াও দর্শন এবং আধ্যাত্মিক দিক দিয়ে গভীর পান্ডিত্য অর্জত করেন। তিনি যুবক বয়সে রাজনৈতিক তৎপরতায় জড়িয়ে পড়েন। তবে তৎকালীন স্বৈরশাসক শাহ সরকারের বিরুদ্ধে তার আন্দোলন ১৯৬৩ সালে তীব্র আকার ধারণ করে। এ সংগ্রামের কারণে তাকে প্রথমে তুরস্কে এবং পরে ইরাকে নির্বাসনে পাঠানো হয়। ইমাম খোমেনি (রহঃ) ১৪ বছরের দীর্ঘ নির্বাসিত জীবনে বহু ছাত্রকে শাহ সরকার বিরোধী আন্দোলনের জন্য গড়ে তোলার পাশাপাশি তৎকালীন শাহ সরকারের ইসলাম ও জাতীয় স্বার্থ বিরোধী তৎপরতা জনগণের সামনে তুলে ধরেন। ইমামের এই প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ ১৯৭৯ সালে ইরানের তাঁবেদার শাহ সরকার ও তার পশ্চিমা দোসরদের বিরুদ্ধে গণমানুষের আন্দোলন তুঙ্গে ওঠে। ইরানের আড়াই হাজার বছরের রাজতন্ত্রের ইতিহাসের সর্বশেষ শাসক মোহাম্মাদ রেজা দেশ থেকে পালিয়ে যাওয়ার পর সেই বছরের ১লা ফেব্রুয়ারি ইমাম খোমেনি (রহঃ) দেশে প্রত্যাবর্তন করেন। এর দশদিন পর ইসলামী বিপ্লব চুড়ান্ত বিজয় অর্জন করে। ইমামের নেতৃত্বে ইরানে প্রতিষ্ঠিত হয় ইসলামী শাসন ব্যবস্থা। ইসলামী প্রজাতন্ত্র প্রতিষ্ঠার পর দশ বছর অত্যন্ত স্পর্শকাতর সময়ে তিনি ইরানের নেতৃত্ব দেন। ইমাম খোমেনি’র লিখিত বিভিন্ন বইয়ের পাশাপাশি তার বক্তব্য ও বার্তার সংকলন বই আকারে প্রকাশিত হয়েছে।

খলিফা হযরত ওসমান (রা:)’র হত্যাকা-ের পর হযরত আলী (রা:) চতুর্থ খলিফা নির্বাচিত (৬৫৬)
ব্রিটিশদের মুর্শিদাবাদ দখল। মীরজাফর পুনরায় বাংলার নবাব নিযুক্ত (১৭৬৩)
সোলফেরিনোর যুদ্ধে ফরাসিদের কাছে অস্ট্রয়দের পরাজয় (১৮৫৯)
অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত কবি এদাম গর্ডনের আত্মহত্যা (১৮৭০)
লিওনে ইতালিয় দুষ্কৃতকারী কর্তৃক ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট সাদি কারনট খুন (১৮৯৪)
জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াল্টার রাথেনাউ ডানপন্থীদের হাতে নিহত (১৯২২)
থাইল্যান্ডে রক্তপাতহীন অভ্যুত্থানে রাজতন্ত্রের অবসান (১৯৩২)
সোভিয়েত ইউনিয়নের বার্লিন অবরোধ শুরু (১৯৪৮)
৫শ বছর পর মোজাম্বিকের স্বাধীনতা লাভ (১৯৭৫)
উত্তর ও দক্ষিণ ভিয়েতনাম পুনরেকত্রীকরণ (১৯৭৬)
ইয়েমেনে এক কূটনীতিকের ব্রিফকেসে পাতা বোমা বিস্ফোরণে প্রেসিডেন্ট আহমদ হুসেইন ঘাশামি নিহত (১৯৭৮)
ঝাও জিয়াংকে চীনের কমিউনিষ্ট পার্টির প্রধান পদ থেকে অপসারণ (১৯৮৯)
ইসরাইলে নির্বাচনে লেবার পার্টির কাছে কট্টরপন্থী লিকুদ পার্টি পরাজিত (১৯৯২)
যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার যৌথ মহাশূন্য স্টেশন স্থাপন চুক্তি স্বাক্ষর (১৯৯৪)

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)