আপডেট ১ মিনিট ২৯ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১২ রবিউস-সানি, ১৪৪১

সাহিত্য ‘এই একটু আমি পাখি’ ও ‘তুমি কোন আকাশে উড়ো’

‘এই একটু আমি পাখি’ ও ‘তুমি কোন আকাশে উড়ো’

নাজমীন মর্তুজার দুটি কবিতা

এই একটু আমি

কাল কোন হুল ছিল না
ফেসবুকে রাত্রিবেলা,
যেন কোন বৃষ্টি হয়নি
ভিজিনি তুমি আমি জুবুথুবু।

একা করিডোর হাসছিল শুধু
পূর্বমুখী বাতাসে,
যে রকম পরশু এসেছিলে
যে রকম গান গেয়েছিলে
তুমি আমি দাঁড়িয়ে
এক প্রতিবিম্বে ।

আজ কেবল ছায়া গুনি
হাতের তলায় চুমু গুনি।

তুমি বল মোবাইল ফোন
রাজনৈতিক,
পারে সব পাল্টে দিতে
তোমার আকাশে সূর্য উঠে
পুড়ে যাই একলা আমি…।

পাখি তুমি কোন আকাশে উড়ো
**

মনে হয় কোন দুর যাত্রার নাবিকের সঙ্গী হয়েছি সমুদ্রচিলের মতো
নিরুদ্দেশের পিপাসা নিয়ে
তার জাহাজের মাস্তুলের উপর পাখা গুটিয়ে বসে থাকি ।

পৃথিবীতে আছে আরো অসংখ্য পাখি
যারা দিগন্ত ফুঁড়ে আসমানে উত্থিত হয় ,
তাদের স্বরে থাকে স্বাধীন চিৎকার
তারা নিজ অক্ষরেখায় নিজের মোহে
চক্কর কেটে ঘুরে ঘুরে আসে না মহাকালে ।

স্বাধীনতা ভুলে বসে আছে যে পাখি
তার উড়বার মেধা আর আকাশে বৃত্ত আঁকা নিয়ে
কিসের এত গর্ব
সে পাখি স্রেফ ডানা গঠিত ।

সমুদ্রের পাখি একা চেয়ে থাকে বিষ্ময়ে বলে
নাবিক তুমি যাও ভেসে ,ঘামে আর নুনে
ফিরে এসে ভেজা পালক ছুঁয়ে দিও
অঝোর অবাক দিনে ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)