ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মার্চ ২৮, ২০১৫

ঢাকা সোমবার, ১ পৌষ, ১৪২৬ , শীতকাল, ১৮ রবিউস-সানি, ১৪৪১

চট্টগ্রাম, শিক্ষা এসএসসি পরীক্ষা শেষ হলো

এসএসসি পরীক্ষা শেষ হলো

file (2)

চট্টগ্রাম, ২৮ মার্চ ২০১৫, নিরাপদনিউজ : বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের হরতাল-অবরোধের মধ্যে বারবার সময়সূচী পরিবর্তনের পর শেষ হলো মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার লিখিত পরীক্ষা। প্রায় দুই মাস ধরে চলতে থাকা পরীক্ষা শনিবার (২৮ মার্চ) শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা বিষয়ের পরীক্ষার মাধ্যমে শেষ হয়।
চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান বাংলানিউজকে বলেন, সুষ্ঠু ও সুশৃঙ্খলভাবে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শেষ হয়েছে। শনিবার শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা বিষয়ের পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ৮০ হাজার ২২৮ জন। এর মধ্যে ২২১ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।
২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিলের মধ্যে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান তিনি।
হরতাল-অবরোধে বারবার পরীক্ষার সময়সূচী পরিবর্তন করায় শিক্ষার্থীদের ফলাফলে বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে বলে আশঙ্কা অভিভাবকদের। তবে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হওয়ায় তারা খুশি।
নাসিরাবাদ বালিক উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক হাসিনা আক্তার বলেন, লিখিত পরীক্ষা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলাম। ব্যবহারিক পরীক্ষাগুলো ভালোভাবে শেষ হবে এই আশা করছি। তবে সময়সাপেক্ষ এই পরীক্ষার প্রভাব ভবিষ্যতে শিক্ষার্থীদের উপর পড়বে। দীর্ঘসময় ধরে পরীক্ষা নেওয়ায় শিক্ষার্থীদের ফলাফলে বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন এ অভিভাবক।
শিক্ষার্থীরা বলছেন, বারবার পরীক্ষার রুটিন পরিবর্তন হওয়ায় প্রস্তুতি নিতে বেশ অসুবিধা হয়েছিল। এত কষ্টের পর যদি ভাল ফলাফল করতে পারি তবে তা হবে মহাখুশির ব্যাপার।
রুটিন অনুযায়ী এ বছর ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ১০ মার্চ এসএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হরতাল-অবরোধে রাজনৈতিক সহিংসতায় অভিভাবকদের পাশাপাশি পরীক্ষা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল ১৫ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী। শেষ পর্যন্ত হরতালের আওতামুক্ত শুক্র ও শনিবার পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।
৬ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা শুরু হলেও দফায় দফায় হরতালে ১৬ বার পরিবর্তন করতে হয়েছে রুটিন। আর এতে এক মাসের মধ্যে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ব্যবহারিক পরীক্ষাসহ শেষ হতে সময় লাগছে দুই মাসের বেশি।
চট্টগ্রামে বোর্ডে এবার ৮৮ হাজার ৬০২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে বিজ্ঞানে ২০ হাজার ১৯২, মানবিকে ২০ হাজার ৮৯৪ এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪৭ হাজার ৫১৭ জন।
মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে চট্টগ্রাম জেলায় নগরীসহ পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬৪ হাজার ১৪৯ জন। মহানগরে ২৪ হাজার ৮০, কক্সবাজার জেলায় ১১ হাজার ৪১, রাঙামাটিতে ৬ হাজার ২৭, খাগড়াছড়িতে ৫ হাজার ৪৪৩ এবং বান্দরবানে ১ হাজার ৯৪৩ জন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)