ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট নভেম্বর ২৪, ২০১৯

ঢাকা শনিবার, ১২ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২৯ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১

রাজশাহী এ কেমন নিষ্ঠুরতা: অসহায় পরিবারের উপার্জনক্ষম ঘোড়াকে বিষ মিশিয়ে হত্যা!

এ কেমন নিষ্ঠুরতা: অসহায় পরিবারের উপার্জনক্ষম ঘোড়াকে বিষ মিশিয়ে হত্যা!

গোলাম রব্বানী শিপন,নিরাপদ নিউজ: এ কেমন নিষ্ঠুরতা অসহায় পরিবার বয়ে বেড়ানো বৃদ্ধের একমাত্র উপার্জনক্ষম ঘোড়াকে বিষ মিশিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। জমি নিয়ে বিরোধের জেরধরে শুক্রবার সকালে বগুড়া সদরের ইসলামপুর হরিগাড়ী গ্রামে এক অসহায় পরিবারের যাত্রী বয়ে বেড়ানো চালকের ঘোড়াকে মারপিট করা হয়। পরের দিন শনিবার থানায় অভিযোগ করা হয়। এরপর সকালে তরতাজা ঘোড়াটিকে মৃত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে অসহায় পরিবারটি কন্নায় ভেঙে পড়েন। তারা অভিযোগ করেছেন খাদ্যে বিষ মিশিয়ে হত্যা করেছে ক্ষমতাশালী প্রতিপক্ষ।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বগুড়া সদরের ইসলামপুর হরিগাড়ী গ্রামের মৃত রোস্তম আলী মন্ডলের পুত্র জামাত আলী দীর্ঘ ৪৫/৫০ বছর পূর্ব থেকে একটি ঘোড়া ক্রয় করে জীবীকা নির্বাহ করে পরিবারের মুখে দুবেলা দুমোটো ভাত তুলে দেন। গত ২২/১১/১৯ ইং তারিখে জমিজমা জোর জবর দখল করতে আসে একই এলাকার মৃত দিলবর আলীর পুত্র সাইফুল ইসলাম, এয়াকুব আলীর পুত্র হান্নান, হবিবরের পুত্র কাজল, ও সোবহান, সোবহানের পুত্র আমিরুল , পিতা অজ্ঞাত এর পুত্র মুকুল এবং মুকুলের পুত্র নিরব। তারা ঘোড়া বাঁধা জায়গা থেকে ঘোড়া সরাতে বলে।

এসময় বৃদ্ধ জামাত আলী বলেন, আমার জায়গায় আমি ঘোড়া বেঁধেছি। এ কথা বলার সঙ্গে সঙ্গে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে নিরীহ পশু ঘোড়াকে মারপিট করতে থাকে। এসময় তারা ঘোড়াকে রক্ষা করার জন্য এগিয়ে এলে তাদেরকেও মারপিট করে আহত করা হয়। এঘটনায় জামাত আলী বাদী হয়ে শুক্রবার বগুড়া সদর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ সংবাদ পেয়ে  বিবাদীরা শনিবার সকালে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘোড়ার খাবারের মধ্যে বিষ প্রয়োগ করে ঘোড়াকে হত্যা করে বলে দরিদ্র জামাত আলী জানান। এ ঘটনায় সে বাদী হয়ে ঘোড়া হত্যার অভিযোগ করে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি গ্রহণ করেন। এ ঘটনায় এলাকাবাসী তদন্ত সাপেক্ষে দোষী ব্যক্তিদেরকে আটক করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)