ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট মে ২৪, ২০১৬

ঢাকা শনিবার, ১০ ফাল্গুন, ১৪২৬ , বসন্তকাল, ২৭ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

ক্রিকেট চুপিসারে লুকিয়ে রুবেল কি তবে বিয়ে করেছিলো নাবালিকা মেয়েকে!

চুপিসারে লুকিয়ে রুবেল কি তবে বিয়ে করেছিলো নাবালিকা মেয়েকে!

চুপিসারে লুকিয়ে রুবেল কি তবে বিয়ে করেছিলো নাবালিকা মেয়েকে!

চুপিসারে লুকিয়ে রুবেল কি তবে বিয়ে করেছিলো নাবালিকা মেয়েকে!

সেলিনা জাহান প্রিয়া,২৪ মে, ২০১৬, নিরাপদনিউজ :  গোপনেই বিয়ে করেছেন জাতীয় ক্রিকেটার টাইগার বোলার রুবেল হোসেন। বাগেরহাটে বসবাসকারী পিরোজপুরের মেয়ে সেই ইসরাত জাহান দোলাকেই বিয়ে করেছেন তিনি। চুপিসারে লুকিয়েই জাতীয় দলের ক্রিকেটার রুবেল হোসেন এক বছর আগে বিয়ের কাজটি সেরে ফেলেন। তখন মেয়েটি ১০ শ্রেণীর ছাত্রী ছিল । তাহলে দশম শ্রেণীর ছাত্রীর বয়স কত ছিল ।

আপনার এলাকার সব স্কুলে আপনি নিজেই দেখবেন ১০ শ্রেণীতে যারা পড়ে তাদের বয়স ১৫ প্লাস । তাহলে কি দাঁড়ালো ? এর মানে রুবেল যখন বিয়ে করে তখন মেয়ের বয়স হিসাব করলে দেখা যাবে সে নাবালিকা মেয়ে কে বিয়ে করেছে । বাংলাদেশের আইনে নাবালিকা মেয়ে বিয়ে করা আইনত অপরাধ । যাই হউক আমাদের বাল্য বিয়ে বন্ধের যত কথা বলি না কেন তা কিন্তু একজন জাতীয় দলের খেলোয়াড়ের বেলায় কেউ কিছু বলছি না। তবে অনেকের ভেতর এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হচ্ছে অনেক খানে। অনেকে এও বলাবলি করছে রুবেল কি এবার বাল্য বিয়ের অপরাধে জেলে যাবে।

টিভি অভিনেত্রী নাজনীন আক্তরা হ্যাপিকে নিয়ে রুবেলের কম ঝাক্কি পোহাতে হয়নি। তার জন্য জেল পর্যন্ত খাটতে হয়েছে বাংলাদেশের এ পেসারকে। তাকে কখনও বিয়ে করতে দিবেন না বলেও হুমকি দেন। তবে সে সব এখন পেরিয়ে এসেছেন রুবেল। এবার গোপনেই বিয়েটা সেরে ফেললেন। চলতি মৌসুমে ঢাকা প্রিমিয়ার লীগে খেলার কয়েকদিন আগে গ্রামের বাড়ি বাগেরহাটে যান রুবেল। তখনই নাকি তিনি বিয়ের কাজটি সেরে ফেলেন। কিন্তু সে সময় কনে ইসরাত জাহান দোলা অপ্রাপ্ত বয়স্ক থাকায় ও বাগেরহাট কলেজিয়েট স্কুলের এসএসসি পরিক্ষার্থী হওয়ায় বিষয়টি চেপে রাখা হয় বলে বিষয়টি প্রচার হলেও প্রকাশ পায়নি। বাগেরহাট শহরের মুনিগঞ্জ এলাকার একটি ফ্ল্যাটে পিতা-মাতা, চাচা ও বোন ছাড়াও কাছের আত্মীয়-স্বজন উপস্থিতে চুপিসারে লুকিয়েই এ বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

রুবেলের স্ত্রী ইসরাত জাহান দোলা এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করেছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এক বছর আগেই বাগেরহাট শহরের নাগেরবাজার এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে রুবেলের সাথে সাথে বিয়ে হয় পিরোজপুর জেলার বাসিন্দা ওষুধ কোম্পানীতে কর্মরত কামরুল ইসলামের স্কুল পড়ুয়া মেয়ে ইসরাত জাহান দোলার। রুবেল-দোলার বিয়ের দেনমোহর ধরা হয় ৬ লাখ টাকা। ক্রিকেটার রুবেলের বিয়েতে কন্যা পক্ষের লোকজন থাকলেও, তার নিকট বন্ধু বান্ধবদের কেউকেই দাওয়াত দেয়া হয়নি।

পরে তারা কয়েক মাসের মধ্যে রুবেলের বিয়ের বিষয়টি জেনে যায়। এত কিছুর পরও রুবেল ও তার পরিবার বলে আসছিলো রুবেল বিয়ে করেনি। রুবেল নিজে ও তার পিতা এ প্রতিবেদকে মুঠোফোনে এক বছর আগে বিয়ের বিষয়ে জানতে চাইলে বলেছিলেন রুবেলের বিয়ে অবশ্যই আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্রীড়াঙ্গনের লোকজনসহ অনেকেই জানবে এমনকি সংবাদ কর্মীদেরকেও জানানো হবে । এ বিষয় রুবেলের আম্মা রবেজান বেগম মুঠোফোনে বলেন রুবেলের আাব্বা অসুস্থ। তিনি পুত্র বধু দেখতে চাওয়ায় আমরা শুধু মাত্র আকদ এর কাজটা করেছি  পরে আনুষ্ঠানিকতা করা হবে সে সময় সবাইকে জানানো হবে ।

কনের বয়স ১৮ হয়নি একারনেই নাকি গোপন রাখা হয়েছে জানতে চাইলে রুবেলের আম্মা রবেজান বেগম বলেন এ ধরনের কোন ঘটনা তাদের জানা নেই । তিনি এতটুকু জানেন তার পিতা অসুস্থ বৌ দেখতে চেয়েছেন একারনেই শরা দিয়ে রাখা হয়েছে । পরে সুবিধা মত সময় অনুষ্ঠান করা হবে । আর এটাতো গোপনের কিছু নেই বলে তিনি দাবি করেন। তবে এক বছর পেরিয়ে গেলেও ক্রিকেটার রুবেলের এই গোপনে বিয়ের খবর জানেনা বাগেরহাটের ক্রীড়াঙ্গনের অনেকেই।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)