ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৩৪ মিনিট ২০ সেকেন্ড

ঢাকা সোমবার, ৫ ফাল্গুন, ১৪২৬ , বসন্তকাল, ২২ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

বিনোদন জনপ্রিয় শক্তিমান অভিনেতা সৈয়দ আহসান আলী সিডনী’র আজ ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী

জনপ্রিয় শক্তিমান অভিনেতা সৈয়দ আহসান আলী সিডনী’র আজ ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী

আজাদ আবুল কাশেম,নিরাপদ নিউজ: জনপ্রিয় শক্তিমান অভিনেতা সৈয়দ আহসান আলী সিডনী’র আজ ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী। তিনি ২০০২ খ্রিষ্টাব্দের ১৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর। প্রয়াত এই গুণি অভিনয়শিল্পী’র স্মৃতির প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি এবং তাঁর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। সৈয়দ আহসান আলী সিডনী ১৯৩৮ খ্রিষ্টাব্দের ৩ অক্টোবর চট্রগ্রাম জেলায় জন্মগ্রহন করেন।তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজী ভাষা এবং সাহিত্যে এমএ ডিগ্রী লাভ করেন। উদয়ন চৌধুরী পরিচালিত ‘চোরাবালি’ ছবিতে নায়ক চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ১৯৬৮ খ্রিষ্টাব্দে সৈয়দ আহসান আলী সিডনী, চলচ্চিত্রে আসেন। এরপর তিনি আরো যেসব ছবিতে অভিনয় করেন সেগুলো হলো- সূর্য উঠার আগে, পায়ের চলার পথ, সূর্যকন্যা, স্বামী, মায়ামৃগ, মেঘ বিজলী বাদল প্রভৃতি । চলচ্চিত্রে তিনি সম্ভাবনাময় একজন নায়ক হওয়া সত্বেও, তাঁর তেমন সফলতা আসেনি। তারপরেও তিনি তাঁর অভিনয় প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন, তাঁর অভিনীত প্রতিটা ছবিতে। একসময় সৈয়দ আহসান আলী সিডনী, ঝুঁকে পরেন টেলিভিশন নাটকের দিকে। নাটক তাকে দিয়েছে সফলতা-জনপ্রিয়তা। একের পর এক তিনি বিভিন্ন নাটকে, নায়ক থেকে শুরু করে নানাধরণের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শক হৃদয়ে করে নিয়েছেন ভালোবাসার আসন। হয়েছেন প্রসংশিত, পেয়েছেন যথাযথ সম্মান। পরবর্তিতে তাঁর ছেলে জিতু আহসানও টেলিভিশন নাটকে অভিনয় করেন এবং একজন জনপ্রিয় অভিনেতা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেন। সৈয়দ আহসান আলী সিডনী অভিনীত নাটকের মধ্যে উল্লেখযোগ্য- বাড়ি ভাড়া, পার্ল, চাঁদের হাসি বাঁধ ভেঙ্গেছে, গাইড, একদা এক দুঃস্বপ্নে, নয়ন সমুখে তুমি নাই, শেষের কবিতা, তবুও গোলাপের গন্ধ, নিশীথ তৃষ্ণায়, একটি সেতুর গল্প, সাতজন যাত্রী, শেষ মানুষের ঠিকানা, চাঁদের ঘরে বাসবাস, সাত আসমানের সিঁড়ি, শুকতারা, জোনাকি জ্বলে, ইত্যাদি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)