ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট অক্টোবর ২৪, ২০১৭

ঢাকা বুধবার, ২৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস, নিসচা সংবাদ, লিড নিউজ জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালনে দেশবাসীকে ইলিয়াস কাঞ্চনের ধন্যবাদ জ্ঞাপন

জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস পালনে দেশবাসীকে ইলিয়াস কাঞ্চনের ধন্যবাদ জ্ঞাপন

জনপ্রিয় অভিনেতা এবং নিসচার চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন

নিরাপদ নিউজ :  সড়ক দুর্ঘটনারোধে সামাজিক আন্দোলন নিরাপদ সড়ক চাই। আসছে ১লা ডিসেম্বর পথ চলার ২৫বছরে পদার্পণ করতে যাচ্ছে। দীর্ঘ এ ২৪বছরে সংগঠনটির প্রত্যাশার প্রাপ্তিতে অনেক ফারাক থাকলেও নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের ঢেউ এখন সমগ্র বাংলাদেশ ছাড়িয়ে বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়েছে, মিলেছে সরকারি স্বীকৃতি। ২২ অক্টোবরকে ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ ঘোষণা করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। আজ থেকে ২৪ বছর আগে মর্মান্তিক এক সড়ক দুর্ঘটনায় চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চনের অকাল মৃত্যুর মধ্যদিয়ে গড়ে উঠে নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন। ক্রমবর্ধমান সড়ক দুর্ঘটনা নিরসনে গড়ে উঠা এই আন্দোলন এদেশের আপামর মানুষের প্রাণের দাবি ও সংগঠনে পরিণত হয়। সরকার এ দাবি ও সংগঠনের প্রতি আন্তরিক থেকে দেশকে সড়ক দুর্ঘটনামুক্ত করতে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করে। নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এবং ইলিয়াস কাঞ্চনও সমার্থক হয়ে এদেশের মানুষের কণ্ঠস্বর হয়ে উঠেন। দাবি উঠে ২২ অক্টোবরকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ঘোষণার। সময়ের পথপরিক্রমায় সেই ঘোষণা এসেছে।

‘সাবধানে চালাবো গাড়ি,নিরাপদে ফিরবো বাড়ি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ২২ অক্টোবর ২০১৭ এবছরই প্রথমবার দিবসটি জাতীয় ভাবে সারাদেশ ব্যাপী পালন করা হয়েছে।  এখন থেকে প্রতি বছর দিবসটি সরকারিভাবেই পালন করা হবে। ২২ অক্টোবর ২০১৭ ‘জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ ও মরহুমা জাহানারা কাঞ্চনের ২৪তম মৃত্যুবার্ষিকীতে সারা বাংলাদেশে ১১০টি নিসচা শাখা কমিটি ছাড়াও সরকারি উদ্যোগে প্রতিটি জেলায় পালন করা হয়েছে নানা কর্মসূচী। এছাড়াও নিসচা শাখার বাইরে বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং উপজেলা পর্যায়ে হাইওয়ে পুলিশ এই দিবসটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করেছে।

দেশব্যাপী সকলের স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহনে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসটি উদযাপন করায় দেশবাসীকে বিশেষ ধন্যবাদ জানান সামাজিক আন্দোলনের অগ্রসেনানী নিসচা চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

ইলিয়াস কাঞ্চন নিরাপদ নিউজকে জানান, ‘২২ অক্টোবরকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করায়  প্রথমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রীসহ সকল মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। সেইসাথে ধন্যবাদ জানাই এই দিবস ঘোষণার সাথে সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তাদের।

ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, দিবসটি প্রতি বছর আমরা নিসচার পক্ষ থেকে পালন করে আসলেও এবছরই প্রথমবারের মতো একযোগে সারাদেশে সরকারি উদ্যোগে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে যাকজমকপূণ্য ভাবে পালিত হলো  এবং বেসরকারি ভাবেও নানা প্রতিষ্ঠান,অঙ্গসংগঠন ও বিভিন্ন পর্যায় থেকে পালন করা হয়েছে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস। দিবসটি যে যার অবস্থান থেকে পালন করেছেন সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে নিসচা চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন সামাজিক এই আন্দোলনে সকলের অংশগ্রহণকে কৃতজ্ঞতার সাথে গ্রহণ করে আগামীদিনেও এভাবে একসাথে সড়ক নিরাপদকরণে ঝাঁপিয়ে পড়া্র আহবান জানান।

অভিনন্দনবার্তায় তিনি আরও বলেন, এবছর দেশবাসী যেভাবে আমাদের পাশে থেকে দিবসটি পালনে এগিয়ে এসেছেন দেশবাসী সকলে যেভাবে আমাদের সংগঠনের কাজের প্রতি সক্রিয় হচ্ছেন,সবার মাঝে যে জাগরন সৃষ্টি হয়েছে এসব কারণে সামনের বছর এই দিবসটিতে আমরা আশা করি বর্তমান দিনগুলির তুলনায় সড়ক দুর্ঘটনার হার অনকেটা কমিয়ে আনতে সক্ষম হব।

পরিশেষে তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সকল যোদ্ধার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। সেই সাথে তিনি ধন্যবাদ জানান নিসচার সকল কর্মকান্ডে সার্বিক সহযোগীয় এগিয়ে আসা ওয়ালটনকে। ওয়ালটন ২০০৫ সাল থেকে নিরাপদ সড়ক চাই এর ইসপন্সর হিসেবে কাজ করে আসছে এবং ২০১০সাল থেকে চালক প্রশিক্ষন এর সার্বিক সহযোগীতায় রয়েছে।

উল্লেখ্য ১৯৯৩ সালের ২২ অক্টোবর স্ত্রী জাহানারা কাঞ্চনের সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুতে শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন এদেশের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৮ সালে নিরাপদ সড়ক চাই’র পক্ষ থেকে ২২ অক্টোবরকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ঘোষণার দাবিও করে আসছিলেন চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের মাধ্যমে। এরপর ২০০২ সালে নিরাপদ সড়ক চাই’র পক্ষ থেকে ২২ অক্টোবরকে আন্তর্জাতিক নিরাপদ সড়ক দিবস ঘোষণা করে জাতিসংঘের তৎকালীন মহাসচিব কফি আনান- এর কাছেও আবেদন করা হয়। জাতিসংঘ এ বিষয়টি আমলে নিয়ে সড়ক দুর্ঘটনার ভয়াবহতার কথা ভেবে সড়ক নিরাপত্তা সপ্তাহ ঘোষণা করে বিভিন্ন প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারণ করে। এমনকি সড়ক দুর্ঘটনা কমিয়ে আনতে জাতিসংঘ ২০১১-২০২০ পর্যন্ত সড়ক নিরাপত্তা দশক ঘোষণা করেছে। এবছর সরকার ২২ অক্টোবরকে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ঘোষণার মাধ্যমে পরিপূর্ণ রূপ পায় ইলিয়াস কাঞ্চনের এই দাবি এবং যৌক্তিক অবস্থানে উপণীত হয় নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)