ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ফেব্রুয়ারী ৩, ২০১৮

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১০ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২৭ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১

বহির্বিশ্ব, লিড নিউজ তৃতীয় প্রজন্মের আয় কমেছে কানাডায়

তৃতীয় প্রজন্মের আয় কমেছে কানাডায়

তৃতীয় প্রজন্মের আয় কমেছে কানাডায়

নিরাপদনিউজ : কানাডায় প্রথম জেনারেশনের চেয়ে দ্বিতীয় জেনারেশন বেশি উপার্জন করলেও তৃতীয় প্রজন্মের সদস্যদের আয় কমে গেছে। আর এমন হালহকিকতের তথ্য উদঘাটিত হয়েছে কানাডা সেনসাস ব্যুরোর পর্যালোচনায়।

প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় জেনারেশনের ট্যাক্স রিটার্নের আলোকে এই গবেষণা চালানো হয়। প্রতিবেশী শ্বেতাঙ্গ অভিবাসীদের চেয়ে এশিয়ানরা অনেক কম আয় করছেন কানাডার সর্বত্র এবং এটি গোপন কিছুই নয়। তবে দ্বিতীয় প্রজন্মের এশিয়ানরা শ্বেতাঙ্গদের চেয়ে বেশী উপার্জন করেন এটিও সকলেরই জানা। ২০১৬ সালের সেনসাস ডাটার ওপর এই গবেষণা চালিয়েছে ‘এসোসিয়েশন অব কানাডিয়ান স্টাডিজ’ নামক একটি সংস্থা। আসছে মার্চে কানাডায় অনুষ্ঠিত হবে অভিবাসন সম্পর্কিত জাতীয় সম্মেলন। সেখানেই এই রিপোর্ট উপস্থাপনের কথা রয়েছে।

অভিবাসীদের মধ্যে ৩৫ থেকে ৪৪ বছর বয়েসীদের আয়-ব্যয় নিয়ে এই গবেষণা চালানো হয়েছে। তৃতীয় প্রজন্মের জাপানি এবং কোরিয়ান ছাড়া অন্য সকল জনগোষ্ঠিরই উপার্জন দ্বিতীয় প্রজন্মের চেয়ে কম। এই গবেষণা জরিপের প্রধান জ্যাকব যাদবের মতে, নবাগতদের গড় বার্ষিক আয় হচ্ছে ৩৮ হাজার ৬৫ ডলার করে। একই গ্রুপের শ্বেতাঙ্গদের গড় বার্ষিক আয় হচ্ছে ৪৭ হাজার ৯৭৮ ডলার করে। অপরদিকে, দ্বিতীয় প্রজন্মের গড় বার্ষিক আয় হচ্ছে ৫৫ হাজার ৯৯৪ ডলার করে। অর্থাৎ প্রথম প্রজন্মের চেয়ে ৪৭ শতাংশ বেশী। এমনকি দ্বিতীয় প্রজন্মের শ্বেতাঙ্গের চেয়েও কিছু বেশী। গবেষণায় আরো উদঘাটিত হয়েছে যে, প্রথম প্রজন্মের কৃষ্ণাঙ্গ এবং ল্যাটিনোদের চেয়ে দ্বিতীয় প্রজন্মের কৃষ্ণাঙ্গ আর ল্যাটিনোরা যথাক্রমে ২০ শতাংশও ২২ শতাংশ বেশী আয় করছে। এই দুটি সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় প্রজন্মের বার্ষিক আয় শ্বেতাঙ্গ জনগোষ্ঠির চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে।

তৃতীয় জেনারেশনের আয় ১৮ শতাংশ কমেছে দ্বিতীয় জেনারেশনের তুলনায়। এই গবেষণা জরিপের নেতৃত্ব প্রদান করেছেন কানাডার কনকর্ডিয়া ইউনিভার্সিটির সমাজবিজ্ঞান এবং জনসংযোগ বিভাগের শিক্ষক জ্যাকব যাদব। তিনি এ প্রসঙ্গে আরও বলেছেন যে, কানাডায় অভিবাসন গ্রহণকারী সকল সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় জেনারেশনই প্রত্যাশিত আয়-উপার্জনে সক্ষম হচ্ছে।

এর মধ্যেও কোন কোন সম্প্রদায়ের দ্বিতীয় প্রজন্মের সাফল্য অন্য সম্প্রদায়ের চেয়ে বেশী। এমন পরিস্থিতির অবতারণা হচ্ছে প্রথম প্রজন্মের স্বদেশ ত্যাগের মনোবাঞ্ছা থেকে, যা সরাসরি প্রভাব ফেলে দ্বিতীয় প্রজন্মে। তৃতীয় প্রজন্ম কানাডার আলো-বাতাসে বেড়ে উঠায় তারা দাদা-নানার দেশের কথা ভাবলেও তেমন আমলে নেন না। কিংবা শুধুমাত্র অর্থ উপার্জনকেই জীবনের একমাত্র টার্গেট হিসেবে মনে করে না।

অধ্যাপক জ্যাকবের মতে, তৃতীয় প্রজন্মের মধ্যে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের ক্ষেত্রে অমনোযোগিতা অধিক পরিলক্ষিত হচ্ছে দ্বিতীয় প্রজন্মের তুলনায়।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)