ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট অক্টোবর ৩, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১

সাহিত্য নাজমীন মর্তুজার দুটি কবিতা

নাজমীন মর্তুজার দুটি কবিতা

নিজের ছায়ার চেয়ে বাস্তবিক

উজ্জ্বল তামার মুখ
সবুজ ঘাস, পরাধীন ধান
রোদ পড়ে চন্দনে,
ফাল্গুনে কেনা আলো
হলুদ পাটল রঙ।
তাকে দেখে গায় গান
কাকাতুয়া হরিয়াল
তার চোখ চেয়ে
কলার ভেলা ভেসে যায়
মধ্য আকাশে দশমীর চাঁদ ওঠে।
নীল ছায়া ,ছায়া দেয় ,চোখে
তার শ্লেষ গালবাদ্য রগড়
তাকে পায়নি যারা তারা
নাম দেয় কলঙ্ক।
ব্যর্থতার গোপন খেলা
পরাজিত হৃদয়ের ।
সে পায় অংশত যে গায়
অংশত মনের গীতিকা
উড়ে শুকপাখি ,কথা
বলে ,গান বলে, জীবন বলে
টুকে রাখে কবি তুলোটে
যেন সব কথার গা মাথা মুছে
শব্দে বসায়, সুর দেয় ।

এ্যাডেলএইড থেকে

***
পাখির চোখে

কেন্দ্রের কোন মুল্য কি থাকে
যদি পরিধি বিচ্যুত হয়?
স্পর্শ যদি না থাকে
তবে প্রেমের বোধ শূন্য

নদীর ভেতর শুয়ে সাঁতার
যারা কাটে
তারা প্রতিযোগিতার বেলায় নুলো
বাঁশ চন্দন পাতার চিতায়
পোড়াচোখ ও হৃদপিণ্ডের মানুষ।

শরীরে যার আবেগের বাধ ভাঙে
নিম্নচাপে, তার ঘরে প্লাবন সারাজীবন ,
সেই তো মহান আবিস্কারক
যার জানা আছে
কোনখানে হিরক খন্ড ,
কোথায় মনি জ্বলছে ।

তার জ্ঞান দন্ড ঠিক ঠিক খুঁজে নেবে
চলাচলের সুড়ঙ্গ
সহজিয়া গুল্মের মত।

জানা হলো এবেলা
স্বপ্নে দেখা মুখ, আস্থার হাসি
হাসেনা।
যারা ভালবাসি রাশি রাশি বলে
গলা কাঁপায়
কত টা সাংসারিক হবে ভাবা মুস্কিল,
যারা ভালবাসার ঘোড়ার তাড়া
খেয়ে বেদম দাঁড়াচ্ছে
তারা জানেই না হাঁটা পথ
কত টা ভাল।

ভাবছি আর দেখছি আয়নায় সূর্য লেগে সহসা বাদুর
ডানা ঝাপ্টায় তেঁতুল ডালে ।

মন যা যা চাইছে
সব রহস্য দেখছি বুঝছি
বসন্ত সন্ধ্যায়,
পাখির চোখে।

এ্যাডেলএইড থেকে

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)