ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ফেব্রুয়ারী ৭, ২০১৫

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৫ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

দুর্ঘটনা সংবাদ নাটোরের লালপুরে বিয়েবাড়িতে মৃতু্যর শোক!

নাটোরের লালপুরে বিয়েবাড়িতে মৃতু্যর শোক!

sd--777

নাটোর, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, নিরাপদনিউজ : নাটোরের লালপুর উপজেলার এশরপাড়া গ্রামের পল্লী চিকিৎসক নূরুল ইসলাম সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।
শনিবার লালপুর বাজার থেকে মাংস কিনে ফেরার পথে রামকৃষ্ণপুরে ট্রাকের চাপায় লাশ হন নূরুল ইসলাম (৪৮)।
বাড়িতে একমাত্র মেয়ের বিয়ের আয়োজন। দুপুরে আসবে বরযাত্রী। তাই ভোরেই বাজার করতে বেরিয়েছিলেন নূরুল ইসলাম।কিন্তু বরযাত্রী পৌঁছার আগেই লাশ হয়ে ফিরতে হলো তাকে।শেষ পর‌্যন্ত বিয়ের অনুষ্ঠান পরিণত হয় শোকের অনুষ্ঠানে। বরের বাড়ির লোকজনও অংশ নেন কনের বাবার জানাজায়।
এলাকাবাসীর বরাত দিয়ে লালপুর থানার ওসি আব্দুল হাই তালুকদার জানান, লালপুর থানা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নুরুল ইসলামের বাড়িতে তার মেয়ে মহুয়া পারভিনের বিয়ের আয়োজন চলছিল। দুপুর দেড়টায় বরযাত্রী আসার কথা ছিল। “বরযাত্রীদের আপ্যায়নের জন্য বাজার থেকে মাংস কিনে সকাল আটটার দিকে বাড়ি ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হন তিনি।
“পেছন থেকে ট্রাকের চাপায় ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা ট্রাকটি আটক করলেও এর চালক ও সহকারী পালিয়েছে।
পরে ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয় বলে জানান তিনি।
এদিকে মেয়ের বিয়ের বরযাত্রীর অতিথিরা আসার আগেই দুপুর পৌণে একটায় নুরুল ইসলামের লাশ বাড়িতে পৌঁছালে হৃদয়বিদারক পরিস্থিতির সৃষ্টির হয়। মুহূর্তেই বিয়ে বাড়ির আনন্দঘন পরিবেশ পাল্টে কান্নার রোল উঠে।
নুরুল ইসলামের স্বজনদের কান্না দেখে প্রতিবেশীরাও চোখের পানি আটকে রাখতে পারেনি। খবর পেয়ে বরের বাড়ি থেকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা স্থগিত করা হয়।
নিহত নুরুল ইসলামের শ্যালক লিটন আলী বলেন, “দুলাভাই খুব কষ্ট করে মহুয়াকে এবার প্যারামেডিক্যাল থেকে পাস করিয়েছেন। উপজেলার বরমহাটি গ্রামের এক উচ্চশিক্ষিত ছেলের সঙ্গে আজ মেয়ের বিয়ের দিন ছিল। কিন্তু ট্রাক সব কেড়ে নিল।”
ওসি আব্দুল হাই জানান, ট্রাকের চালক ও সহকারীকে ধরার চেষ্টা চলছে।-সংগৃহীত

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)