ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জানুয়ারী ১২, ২০২০

ঢাকা বুধবার, ১৬ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ৩ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

ফুটবল, লিড নিউজ পর্তুগিজ যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ফিট থাকার রহস্য

পর্তুগিজ যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ফিট থাকার রহস্য

নিরাপদ নিউজ: ৩৪ বছর বয়েসেও ফুটবল মাঠে রাজত্ব করছেন পর্তুগিজ যুবরাজ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। আধুনিক ফুটবলের এই যুগে মধ্য বয়সে এসেও কোনো ফরোয়ার্ড ফুটবলবিশ্বের রাজত্ব করবেন, তা মেনে নিতে কষ্ট হবে অনেক ফুটবল-বোদ্ধারই।

তবে নিজের ফিটনেসকে ভিন্ন মাত্রা দিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো। বেশকিছু কৌশলে বয়সকে হার মানিয়েছেন ফুটবলার। রোনালদোর খাদ্যাভ্যাস চমকে দিতে পারে অনেক স্বাস্থ্যসচেতন ব্যাক্তিকেও। রোনালদো খেয়ে থাকেন অল্প, তবে বেশি সংখ্যকবার।

মানে তিন থেকে চার ঘণ্টা পর পর খেয়ে থাকেন। সব মিলিয়ে দিনে প্রায় ছয়বার। সঠিক মাত্রায় খাদ্যাভ্যাস রোনালদোর শক্তিশালী ও চর্বিহীন পেশির নিয়ামক। এ জন্য ব্যক্তিগত এক পুষ্টিবিদ রেখেছেন রিয়াল মাদ্রিদের দিনগুলো থেকে।

শস্যজাতীয় খাবার, টাটকা ফল ও মাছ বেশি খেয়ে থাকেন রোনালদো। চর্বিহীন প্রোটিন সংগ্রহ করেন তলোয়ার মাছ (সোর্ডফিশ) ছাড়াও নানা পদের সামুদ্রিক মাছ থেকে, যেমন কড মাছ। রোনালদোর খাবারে থাকে নানা রকম সালাদও থাকে। সকালের নাশতায় থাকে পনির, হ্যাম (লবণ মাখানো শূকরের মাংস), কম চর্বির দই, ফল-ফলাদি। সকালের নাশতায় অ্যাভোকাডো ফলের টোস্টও খেয়ে থাকেন।

পাঁচবারের বর্ষসেরা এ ফুটবলারের কাছে জাদুকরী খাবার হলো মুরগির মাংস; প্রোটিনে ভরপুর কিন্তু চর্বি কম। রোনালদোর অনুশীলন ও খাদ্যাভ্যাসের ধরন নিজের চোখে দেখেছেন প্যাট্রিক এভ্রা। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের দিনগুলোয় সতীর্থ ছিলেন দুজন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)