ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জানুয়ারী ৬, ২০২০

ঢাকা বুধবার, ১৬ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ৩ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

খুলনা পিপিএম পদক পেলেন খাদে পড়া বাসযাত্রীদের বাঁচানো সেই ওসি মেহেদী হাসান

পিপিএম পদক পেলেন খাদে পড়া বাসযাত্রীদের বাঁচানো সেই ওসি মেহেদী হাসান

নিরাপদ নিউজ:  ২০১৯ সালের ১২ নভেম্বর সকাল সোয়া ৯টার দিকে ডামুড্যা-শরীয়তপুর সড়কের ডামুড্যা উপজেলার খেজুরতলা এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পার্শ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়। বাসটিতে অন্তত ৩০ জন যাত্রী ছিল। উপস্থিত লোকজন যখন দাঁড়িয়ে দুর্ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করছিলেন তখন ডামুড্যা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসান জীবনের ঝুঁকি নিয়ে খাদের পানিতে লাফিয়ে পড়েন। তার লাফিয়ে পড়া দেখে স্থানীয় লোকজনও লাফিয়ে পড়েন।

তিনি গাড়ির জানালার গ্লাসগুলো ভেঙে দেন, যাতে সহজে গাড়ির ভেতরে থাকা যাত্রীরা বেরিয়ে আসতে পারে। গাড়ির ভেতর আটকা পড়া ছয় নারীসহ ১০ থেকে ১৫ জন যাত্রীকে উদ্ধার করেন ওসি মেহেদী হাসান। তখন যাত্রীদের উদ্ধারের কয়েকটি ছবি ফেসবুকে ভাইরাল হয়। অনেকেই তার ভূয়সী প্রশংসা করেন।

এবার সেবা, সাহসিকতা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ডামুড্যা থানা পুলিশের সেই ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসানকে বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ পিপিএম (সেবা) পদক প্রদান করা হয়েছে। রোববার পুলিশ সেবা সপ্তাহ উপলক্ষে ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স মাঠে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে পিপিএম ব্যাচ পরিয়ে দেন।

পারিবারিক সূত্রে যায়, ১৯৭০ সালে ১ জানুয়ারি যশোর সদর উপজেলার বেজপাড়া মেইনরোড গ্রামে মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন মো. মেহেদী হাসান। চার ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি সেজ। বাবা মৃত জাকারিয়া সরকারি কর্মচারি ছিলেন এবং মা মৃত জোহরা খাতুন ছিলেন গৃহিণী। মেহেদী হাসান ১৯৮৫ সালে যশোর সম্মিলনী ইনস্টিটিউশন স্কুল থেকে এসএসসি এবং ১৯৮৭ যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন মহাবিদ্যালয় (এমএম কলেজ) থেকে এইচএসসি পাস করেন। ১৯৮৯ সালে যশোর সিটি কলেজ থেকে বিকম এবং ১৯৯২ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবসায় স্থাপনায় এমকম ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

১৯৯৬ সালে ১ জানুয়ারি সাব-ইন্সপেক্টর পদে প্রথম পিরোজপুর মটবাড়িয়া থানায় যোগদান করেন। পরে ১৯৯৮ সালে ডিএমপিতে, ২০১০ সালে পদোন্নতি পেয়ে ওসি (তদন্ত) পদে মুন্সিগঞ্জ সিরাজদিখান থানা, ২০১৩ দিনাজপুর খানসামা থানা এবং ২০১৫ মাদারীপুরের রাজৈর থানায় যোগদান করেন। ২০১৬ সালের ৮ আগস্ট পদোন্নতি পেয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পদে শরীয়তপুর জেলার ভেদরগঞ্জ থানায় যোগদান করেন। ২০১৯ সাল থেকে ডামুড্যা থানায় ওসি পদে কর্মরত আছেন মেহেদী হ‌াসান।

ডামুড্যা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী হাসান বলেন, দুর্ঘটানাকবলিত মানুষগুলোকে বাঁচাতে ঝাপিয়ে পড়েছিলাম। এটাতো আমার কর্তব্য ছিল। আর সেই কারণেই আমাকে পিপিএম পদক দেয়া হয়েছে। একজন মানুষ হিসেবে যতদিন পুলিশ বিভাগে থাকবে মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চাই।

শরীয়তপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোসাইরহাট সার্কেল) মো. মোহাইমিনুল ইসলাম বলেন, সেবা ও বীরত্বপূর্ণ কাজের জন্য পিপিএম (সেবা) পদক পেয়েছেন মেহেদী হাসান। এটা শরীয়তপুর জেলা পুলিশ বিভাগের জন্য সত্যিই প্রশংসনীয়।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)