ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট নভেম্বর ১৮, ২০১৯

ঢাকা বুধবার, ২৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১

বহির্বিশ্ব, লিড নিউজ প্রচণ্ড শীতের কবলে জম্মু ও কাশ্মীর

প্রচণ্ড শীতের কবলে জম্মু ও কাশ্মীর

নিরাপদ নিউজ : প্রচণ্ড শীতের কবলে পড়েছে ভারতের জম্মু ও কাশ্মীর। এই পরিপ্রেক্ষিতে কাশ্মীরের আটক ৩৫ নেতাকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ভারতীয় প্রশাসন সূত্রে এ কথা জানা গেছে। জানা গেছে, সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতিকে শ্রীনগরের চশমে শাহির অতিথিশালা থেকে সরানো হয়েছে। এছাড়া ডাল লেকের তীরের সেন্টর হোটেলে বন্দি থাকা ৩৪ কাশ্মীরি নেতাকে শ্রীনগরের এমএলএ হোস্টেলে সরানো হয়েছে। সরানোর সময়ে কাশ্মীরি নেতা সাজ্জাদ লোন, ওয়াহিদ প্যারা ও শাহ ফয়সলকে মারধর করা হয়েছে। সাজ্জাদ লোনের দলের পক্ষে ও মেহবুবা মুফতির টুইটার থেকে এই দাবি করা হয়েছে।

গত ৫ আগস্ট জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের আগেই বন্দি করা হয় ওমর আবদুল্লাহ, ফারুক আবদুল্লাহ, মেহবুবা মুফতিসহ প্রায় সব প্রথম সারির কাশ্মীরি নেতানেত্রীকে। ফারুককে শ্রীনগরে তার বাড়িতেই রাখা হয়েছে। বাকি নেতাদের রাখা হয়েছে বিভিন্ন সরকারি হোটেল-অতিথিশালা-প্রটোকল ভবনে। সেগুলিকে সাব-জেলের মর্যাদা দিয়েছে প্রশাসন।

ডাল লেকের তীর কাশ্মীরের শীতলতম স্থানগুলির মধ্যে অন্যতম। কয়েকদিনের প্রবল তুষারপাতে পরিস্থিতি কঠিন হয়ে যায়। এ কারণে নেতাদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

চশমে শাহির অতিথিশালা থেকে মেহবুবাকে সরানো হয় মৌলানা আজাদ রোডের সরকারি বাড়িতে। এক সময়ে ওই বাড়িতেই থাকতেন মেহবুবার বাবা প্রয়াত মুফতি মোহাম্মদ সাঈদ।

মেহবুবার মেয়ে ইলতিজা বলেছেন, মায়ের স্বাস্থ্য নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে উদ্বিগ্ন ছিলাম। যে কটেজে মাকে রাখা হয়েছিল তার জানালা ভাঙা ছিল। উপযুক্ত হিটারও নেই। কিন্তু আমার কথা কেউ শুনছিলেন না।

এদিকে, সেন্টর হোটেল থেকে ৩৪ জন বন্দীকে সরানো হয়েছে মৌলানা আজাদ রোডেরই এমএলএ হোস্টেলে। একটি সরকারি সূত্র জানিয়েছে, বন্দি নেতা ও তাদের পাহারায় নিযুক্ত রক্ষীরা ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়ছিলেন।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)