ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট জুন ২৭, ২০১৬

ঢাকা বুধবার, ২৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৩ রবিউস-সানি, ১৪৪১

অন্যান্য খেলা, লিড নিউজ ফেডারেশন কাপে আবাহনী চ্যাম্পিয়ন

ফেডারেশন কাপে আবাহনী চ্যাম্পিয়ন

খেলার শুরুতেই গোল পেয়ে যায় ঢাকা আবাহনী

খেলার শুরুতেই গোল পেয়ে যায় ঢাকা আবাহনী

২৭ জুন, ২০১৬, নিরাপদনিউজ : খেলার শুরুতেই গোল পেয়ে যায় ঢাকা আবাহনী। তাদের আক্রমণ দেখে মনে হচ্ছিল আরো গোল পাবে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বৃটিশ লি টাকের ওই এক গোলেই ৫ বছর পর ফেডারেশন কাপের শিরোপা ঘরে তুললো আবাহনী। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সোমবার তারা ফাইনালে ১-০ গোলে হারিয়েছে আরামবাগকে। এটি আবাহনীর নবম ফেড কাপ শিরোপা।

শুরু থেকেই আক্রমণে যায় আবাহনী। গ্রুপ পর্বে আরামবাগের কাছে হেরেছিল তারা। কিন্তু এবার খেলার সাত মিনিটেই গোল পেয়ে যেতে পারতো তারা। আরামবাগের গোলকিপার মিতুল হাসান তা হতে দেননি। লি টাক হয়ে পাওয়া বলে সানডে শট নিয়েছিলেন বক্সের লাইন থেকে। মিতুল ঠেকিয়েছেন। ফিরতি বলে হেড করেন জুয়েল রানা। কিন্তু এবারও দক্ষতার সাথে ঠেকিয়েছেন মিতুল।

কিন্তু ১১ মিনিটে লি টাককে ঠেকাতে পারেননি মিতুল। চাপটা নিতে পারেনি আরামবাগ। বক্সের ভেতরে বল পেয়ে লি টাক জায়গা বের করে নিয়ে বাঁ পায়ে শট নিয়েছেন। মিতুলকে ফাঁকি দিয়ে বল জালে। ১-০ গোলের লিড আবাহনীর।

১৪ মিনিটে অফ সাইডের জন্য আবাহনীর একটি গোল বাতিল হয়। বাকি সময়টা আবাহনীর আক্রমণ ছিল বেশি। কিন্তু আর গোল পায়নি তারা। আরামবাগ এই স্নায়ুক্ষয়ী লড়াইয়ে গোল করার মতো তেমন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। তবে বিরতি থেকে ফিরেই এক আক্রমণে আবাহনীকে কাঁপিয়ে দেয় আরামবাগ। ৫১ মিনিটে আব্দুল্লার প্রবল শট রুখে দিয়ে দলকে বাঁচিয়েছেন গোলকিপার শহীদুল আলম সোহেল। এর ৯ মিনিট পর কেস্টার আকন আরেকটি সুযোগ মিস করেন। আবাহনী সুযোগ তৈরি করছিল।

কিন্তু ফিনিশিং দিতে পারছিল না। ফেরার মরীয়া চেষ্টা করেছে আরামবাগও। কিন্তু সফল হয়নি তারা। ১৫ বছর পর ফেডারেশন কাপের ফাইনালে উঠেছিল এবারের আসরের চমক আরামবাগ। আগে দুবার রানার্স আপ হয়েছে। শিরোপা জিততে পারেনি। এবার গ্রুপ পর্বে আবাহনীকেও হারিয়েছিল। কিন্তু ফাইনালের স্নায়ুক্ষয়ী লড়াইয়ে জায়ান্ট আবাহনী হেসেছে শেষ হাসি।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)