ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট এপ্রিল ২২, ২০১৫

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১০ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২৭ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১

কৃষি বগুড়ার শাজাহানপুরে বোরো মৌসুমের শুরুতেই ধানের বাজারে ধ্বস ॥ বিপাকে চাষীরা

বগুড়ার শাজাহানপুরে বোরো মৌসুমের শুরুতেই ধানের বাজারে ধ্বস ॥ বিপাকে চাষীরা

প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে ফলন কম হওয়ায় এবং বাজারে ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এই বিপাকে পড়েন তারা

প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে ফলন কম হওয়ায় এবং বাজারে ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এই বিপাকে পড়েন তারা

২২ এপ্রিল ২০১৫, নিরাপদ নিউজ : বগুড়ার শাজাহানপুরে বোরো মৌসুমের শুরুতেই বিপাকে পড়েছেন চাষী ও মজুদদারেরা। প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে ফলন কম হওয়ায় এবং বাজারে ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এই বিপাকে পড়েন তারা। অপরদিকে কৃষি নির্ভর বাংলাদেশের কৃষকের স্বার্থ রায় উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্ট কর্তাব্যক্তিদের সু-দৃষ্টি কামনা করেছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা।
কৃষি অফিস সূত্রে জানাগেছে, এ বছর বোরো মৌসুমে উপজেলার মোট ১৩ হাজার ৬’শ ৬০ হেক্টর জমিতে উপসি (উচ্চ ফলনশীল জাত) ও হাইব্রিড জাতের ধান চাষ করা হয়েছে। উৎপাদন উপকরনে কোন প্রতিবন্ধকতা না থাকলেও প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে এবার ফলন কিছুটা কম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এখনো পুরোদমে ধান কাটা-মাড়ায় শুরু না হলেও কিছু কিছু এলাকায় ২৮ ও পারিজাত ধান কাটা-মাড়ায় শুরু হয়েছে।
ধান চাষীরা জানান, প্রাকৃতিক দূর্যোগের কারনে এবার বিঘা প্রতি ১৬-১৮ মণ ধান উৎপাদন হলেও ক্রেতা স্বল্পতার কারনে বাজারে সাড়ে ৩’শ থেকে ৪’শ টাকা মণ ধান কেনা-বেচা হচ্ছে। যা ১ কেজি গোশ্তের মূল্যের সমপরিমান। যেখানে পত্তনি জমি ছাড়া ১ বিঘা জমিতে হাল চাষ থেকে শুরু করে কাটা-মাড়ায় পর্যন্ত উৎপাদন খরচ হয় ৭-৮ হাজার টাকা। সেখানে বিঘা প্রতি উৎপাদিত ১৬-১৮ মণ ধানের বর্তমান বাজার মূল্য পাচ্ছি ৬-৭ হাজার টাকা। ফলে চাষীদের মধ্যে ধান চাষে অসন্তোষ প্রকাশের উপক্রম দেখা দেয়ার সম্ভাবনার আশংকা দেখা দিয়েছে।
অপরদিকে বাজার মূল্যে ধ্বস নামায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন মজুদদারেরা। আমন মৌসুমে মজুদকৃত বিভিন্ন জাতের ধান বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ৬’শ থেকে হাজার টাকায়। যা কিছুদিন পূর্বে বিক্রি হয়েছে ৮’শ থেকে ১১’শ টাকায়। এমতাবস্থায় ফলন কম হওয়ায় এবং ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় মহা বিপাকে পড়েছেন উপজেলার ধান চাষী ও মজুদদারেরা।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সোহেল মো. শামসুদ্দিন ফিরোজ বলেন, কৃষি নির্ভর বাংলাদেশের কৃষকদের স্বার্থ রায় উৎপাদিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে হবে। এ জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তাব্যক্তিদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)