আপডেট মে ২, ২০১৮

ঢাকা রবিবার, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ৯ রবিউস-সানি, ১৪৪১

ফিচার বিভিন্ন দেশের অদ্ভুত কিছু ট্রাফিক আইন: যা শুনলে অবিশ্বাস্য মনে হবে!

বিভিন্ন দেশের অদ্ভুত কিছু ট্রাফিক আইন: যা শুনলে অবিশ্বাস্য মনে হবে!

নিরাপদ নিউজ : বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বেশ কিছু অদ্ভুত ট্রাফিক আইন রয়েছে। গাড়িচালকদের এমন কিছু অদ্ভুত ট্রাফিক আইন মানতে হয়, যা শুনলে আপনার অবিশ্বাস্যই মনে হবে। বিভিন্ন দেশের অদ্ভুত এসব ট্রাফিক আইন নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে এনডিটিভি। জেনে নিন পৃথিবীতে অবাক করা যতো ট্রাফিক আইন রয়েছে-

ময়লা গাড়ি নিয়ে বের হলেই জরিমানা! –রাশিয়া
আপনি অলস! গাড়ি ঠিকমতো পরিষ্কার করেন না বলে আপনার জরিমানা হতে পারে—এমন ট্রাফিক আইন আছে রাশিয়ায়। আপনি যদি এমন গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বের হন সেক্ষেত্রে নির্ঘাত আপনাকে দুই হাজার রুব্ল জরিমানা গুনতে হবে।

গাড়িতে বসে কাউকে অভিশাপ দিলে কারাদণ্ড! –যুক্তরাষ্ট্র, মারিল্যান্ড
জনসমক্ষে অভিশাপ দিয়েছেন তো বিপদে পড়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যারিল্যান্ডে রয়েছে অদ্ভুত এ নিয়মটি। গাড়ি চালানোর সময় চিত্কার করা, কাউকে অভিসম্পাত করার অভিযোগ পাওয়া গেলে ১০০ মার্কিন ডলার জরিমানা বা ৯০ দিনের কারাবাস জুটতে পারে।

দিনের বেলাতেও হেডলাইট বন্ধ করা যাবে না –সুইডেন
হোক সে দিন অথবা রাত, গ্রীষ্ম বা শীত—কোনো অবস্থায় গাড়ির হেডলাইট বন্ধ করতে পারবেন না আপনি। অদ্ভুত শোনালেও সুইডেনে ২৪ ঘণ্টাই গাড়ির হেডলাইট জ্বালিয়ে রাখার নিয়ম রয়েছে। সুইডেনের তীব্র শীতে হয়তো এ নিয়মটি ঠিক, কিন্তু জুন মাসে আবহাওয়া ভালো থাকলেও এ নিয়মই সেখানে মানতে হয়।

মদ খেতে পারেন কিন্তু মাতাল হয়া চলবে না! –কোস্টারিকা।
গাড়ি চালানোর সময় মদ খাবেন তা ঠিক আছে। কিন্তু গাড়ি চালানোর সময় মাতলামি করা চলবে না। কোস্টারিকার ট্রাফিক আইন অনুযায়ী চালকের রক্তে ০.৭৫ শতাংশ পর্যন্ত অ্যালকোহল পাওয়া গেলেও তা ঠিক আছে। তবে তার বেশি হয়ে গেলেই চালকের বিপদ।

পুরনো আন্ডারপ্যান্ট দিয়ে গাড়ি মোছা যাবে না! –সান ফ্র্যান্সিস্কো, যুক্তরাস্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্রান্সিসকোতে গাড়ি ধোয়ার পর পুরোনো আন্ডারওয়্যার বা অন্তর্বাস দিয়ে গাড়ি মোছা হলে ট্রাফিক আইন ভাঙা হয়। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। তবে গাড়ি মোছার জন্য কেউ নতুন আন্ডারওয়্যার ব্যবহার করলে কোন সমস্যা নাই!

চালক মাতাল হলে যাত্রীর জরিমানা –জাপান
ভাবছেন আপনি ভদ্রস্থ হয়ে গাড়ির পেছনে বসে আছেন বলেই সব ঠিকঠাক আছে? আপনার চালক মাতাল কি না, তার দায়-দায়িত্বও আপনার। জাপানের ট্রাফিক আইন অনুযায়ী, চালক মাতাল হলে যাত্রীকেও জরিমানা গুনতে হবে। সুতরাং গারিতে ওঠার আগে ভাল করে খোঁজ নিন চালক মদ খেয়েছে কি না!

অতিরিক্ত চশমা গাড়িতে থাকতে হবে –স্পেন
গাড়িতে চলার সময় চিকিত্সকের পরামর্শ অনুযায়ী, চোখে প্রেসক্রিপশন গ্লাস পরে আছেন বলে ভাবছেন কোনো অপরাধ নয়? স্পেনের আইন অনুযায়ী, অতিরিক্ত আরেক জোড়া চশমা আপনাকে সঙ্গে রাখতে হবে। দুই জোড়া চশমা ছাড়া গাড়িতে উঠলে জরিমানা গুনতে হবে।

খালি গায়ে গাড়ি চালালে সোজা জেলে যাবেন!
ভাবছেন আমার গাড়ি আমি চালাবো, যেভাবে খুশি সেভাবে চালাবো! না রে ভাই! আপনি যদি থাইল্যান্ডের অধিবাসি হন , তাহলে সে উপায় নেই। থাইল্যান্ডে গাড়ি চালানোর সময় জামা গায়ে থাকা বাধ্যতামূলক। খালি গায়ে গাড়ি চালালে আপনাকে নিশ্চিত জরিমানা গুনতে হবে।

খেতে খেতে গাড়ি চালানো যাবে না।
সাইপ্রাসে গাড়ি চালানোর সময় খাওয়া বা কোনো কিছু পান করা অপরাধ। গাড়ি চালানোর সময় হাঁটুর ওপর খাবার রাখা ট্রাফিক আইনের লঙ্ঘন। এ জন্য জরিমানা গুনতে হতে পারে। খেতে খেতে গাড়ি চালাবেন তো সোজা যাবেন হাজতে।

পথে তেল ফুরালে বিপদ!
দুরের পথে যাচ্ছেন? গাড়িতে ফুয়েল তেমন নেই? ভাবছেন পথের মধ্যে কোন ফিলিং স্টেশন থেকে ভরে নেবেন? বাংলাদেশে হয়ত তা সম্ভব, কিন্তু জার্মানিতে যদি জান তাহলে এ ব্যাপারে সাবধান থাকবেন! জার্মানিতে দূরপাল্লার পথে ভ্রমনকালে জ্বালানি শেষ হয়ে যাওয়াকে ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন হিসেবে ধরা হয়।

পথ না জেনে বেরোলেই জরিমানা!
ধরুন আপনি কোথাও যাচ্ছেন, যায়গাটা ভাল করে চেনেন না। তাই গাড়ি থামিয়ে ট্রাফিক পুলিশের কাছে পথের নির্দেশ জানতে চাইলেন। ভাবছেন ট্রাফিক পুলিশ আপনাকে সাহায্য করবে? মোটেও তা নয়। সাহায্য করার বদলে সে উল্টো আপনাকে নিয়ে হাততে ভরবে। কারণ পথ না জেনে গাড়ি নিয়ে বের হওয়া ভয়াবহ অপরাধ। যুক্তরাষ্ট্রের অ্যালাবামায় এই অদ্ভুত নিয়মটি দেখা যায়। আপনি যদি আপনার গন্তব্য বা পথ না জেনে রাস্তায় বের হন, তবে আপনার জরিমানা হবে। তাই ভাল করে ম্যাপ দেখে, মানুষজনকে জিজ্ঞেস করে রাস্তা জেনে নিন!

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)