আপডেট অক্টোবর ১৭, ২০১৯

ঢাকা সোমবার, ২৭ কার্তিক, ১৪২৬ , হেমন্তকাল, ১৩ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১

বরিশাল যৌতুক না পেয়ে বাউফলে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে ন্যাড়া

যৌতুক না পেয়ে বাউফলে অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে ন্যাড়া

কামরুল হাসান,নিরাপদনিউজ : বাউফলে আদাবাড়িয়া ইউনিয়নে যৌতুক না দেয়ায় দফায় দফায় নির্যাতন চালিয়ে বটি দিয়ে মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছে স্বামী তাপস চন্দ্র হাওলাদার। ন্যাড়া মাথার চুল পলিথিনের ব্যাগে পেচিয়ে বিচারের আশাঁয় স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে পৌর শহরে সন্ধ্যায় ডাকবাংলোতে আসলে স্থানীয় লোকজনের ভিড় পড়ে যায়। ওই সময় গৃহবধু প্রিয়াঙ্কার (২২) কান্নায় উপস্থিত লোকজন বিষ্মিত হয়ে পড়েন। জানাগেছে, উপজেলার আদাবাড়িয়ার হাজিরহাট বাজারের সুশিল চন্দ্র কর্মকারের কন্যা প্রিয়াঙ্কাকে নগদ তিন ভরি স্বর্ণ এবং নগদ দেড়লাখ টাকা যৌতুক দিয়ে ২০১২ সালের বিবাহ দেন কালাইয়া ইউপির প্রিয়লাল মন্ডলের পুত্র তাপস চন্দ্র মন্ডলের সাথে। বিবাহের কিছুদিন যেতে না যেতেই কারনে অকারনে তার উপর নির্যাতন চালায় স্বামী তাপস। স্বামীর ঘর ও নিজের জীবন বাঁচাতে বাবার কাছ থেকে দফায় দফায় প্রায় একলাখ টাকা আনেন। প্রিয়াঙ্কার অভিযোগ, তার স্বামী তাপস এনাজিং ড্রিংক টাইগার কোম্পানিতে এসআর পদে চাকুরি করেন। কিন্তু সে প্রায় রাতেই নেশা করে বাড়িতে ফিরে তাকে নির্যাতন চালায় যৌতুকের জন্যে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে প্রিয়াঙ্কার কাছে গাড়ি কেনার জন্যে ৫০ হাজার টাকা চায়। ওই টাকা না পেয়ে তাকে মারধর করে প্রথমে বটি দা দিয়ে মাথার চুল ন্যাড়া করে দেয়। পড়ে সে স্থানীয় সেলুন থেকে নরসুন্দর ডেকে এনে সম্পূর্ণ মাথা ন্যাড়া করে ঘরে আটকে রাখে। ১৬ অক্টোবর বুধবার সন্ধায় তার বাবা মাকে খরব দিয়ে কৌশলে ঘর থেকে বের হয়ে বাউফল ডাকবাংলোর সামনে এসে উপস্থিত লোকজনের সামনে বিচারের আশায় কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। এ বিষয়ে স্বামী তাপস চন্দ্র মন্ডলের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, আমার স্ত্রীর মাথায় অতিরিক্ত উঁকুন হওয়ার কারনে সে নিজে মাথা ন্যাড়া করেছে। এ বিষয়ে বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমি অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তকে আটকের জন্য অভিযান চলছে।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)