ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২০

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ চৈত্র, ১৪২৬ , বসন্তকাল, ৫ শাবান, ১৪৪১

সাহিত্য সেলিম মাহমুদের ‘ভালবাসা চাই প্রতিদিন’

সেলিম মাহমুদের ‘ভালবাসা চাই প্রতিদিন’

নিরাপদ নিউজ: কথা সাহিত্যের জগতে ধীরে ধীরে এগিয়ে যাচ্ছেন সেলিম মাহমুদ। এ বছর অমর একুশে গ্রন্থমেলায় শিখা প্রকাশনী থেকে বের হয়েছে তার লেখা রোমান্টিক উপন্যাস ‘ভালবাসা চাই প্রতিদিন’ ১৮ ফেব্রু’২০২০। বের হওয়ার পর থেকে উপন্যাসটি চলছে ভালই। এ সময়ের তরুন-তরুনীদের দৃষ্টি কেড়েছে। সেলিম মাহমুদ ছাত্রজীবন থেকেই লেখালেখির সাথে জড়িত। তার প্রথম লেখা উপন্যাস মন ময়ূরী ও এইতো জীবন ২০০০ সালে প্রথম প্রকাশিত হয়। তারপর থেকে নিয়মিত প্রতি বছরই ২/১টা করে ছোট গল্প,বিজ্ঞানবিষয়ক,উপন্যাস ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের বই প্রকাশিত হয়ে আসছে। তার লেখা উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে রয়েছে- কৃষকের বুদ্ধিমান ছেলে,রঙ্গরসের গল্প, ছোটদের কিসসা কাহিনী,রাজা-রানীর গল্প,জানা-অজানা,আধুনিক বিজ্ঞানের আবিষ্কার,মনময়ূরী,আমার ভালবাসা,চোখ যে মনের কথা বলে,প্রিয় বান্ধবী এবং সর্বশেষ রোমান্টিক উপন্যাস ভালবাসা চাই প্রতিদিন। ভালবাসা চাই প্রতিদিন সেলিম মাহমুদের ৩০তম গ্রন্থ এবং অষ্টম উপন্যাস।
তিনি ২০০১ সালে বাংলাদেশ বেতার এবং বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকা ভুক্ত গীতিকার হওয়ার পর থেকে তার লেখা অসংখ্য গান বেতার ও টিভিতে প্রচার হয়ে আসছে। অডিও,ভিডিও,মিউজিক ভিডিওতে তার লেখা অসংখ্য গান রয়েছে। দেশের অনেক বরেণ্য কণ্ঠ শিল্পীরা তার লেখা গানে কণ্ঠ দিয়েছেন। সেলিম মাহমুদ সাহিত্যের সব শাখাতেই কম-বেশি ভূমিকা রেখেছেন। তার লেখা প্রথম খন্ড নাটক‘বড় ভাল মানুষ ২০১৮ সালে ২য় খন্ড নাটক ‘সুখের কান্না’ ২০১৯ সালে বেসরকারি টিভি চ্যানেলে প্রচার হয়। তার লেখা ৩য় খন্ড নাটক মার্চ মাসের যেকোনো দিন প্রচারের অপেক্ষায়। তার লেখা ১ম কমেডি ধারাবাহিক নাটক (১০৪ পর্ব) ‘তিন পাগল’ মার্চের প্রতি মঙ্গলবার বিকাল ৫ঃ৩০মিনিটে প্রচারের কথা রয়েছে। নির্মাণাধীন রয়েছে ২টি খন্ড নাটক ও ১টি ধারাবাহিক নাটক।
তার সব ধরনের লেখার মধ্যে রয়েছে সমাজের জন্য এবং সমাজের মানুষের জন্য ইতিবাচক মেসেজ।
তিনি সকলের দোয়া ও ভালবাসা নিয়ে সাহিত্যাঙ্গণে বেঁচে থাকতে চান।

উপন্যাস ছোটদের গল্প

– দৈনিক ভালবাসা
-এ মন তোমাকে দিলাম
– হৃদয়ের রানী * ভূতের নাম ভ্যাঁ
– মনে পড়ে তোমাকে
– মনটা দিলাম তোমায়
– স্বপ্নরে রানী
– ভুলে যেওনা
– মনরে আয়না
– সবুজ ময়না

লেখক পরিচিতি

নাম : সেলিম মাহমুদ
পিতা : মোঃ রত্তন আলী সরদার
মাতা : মিসেস ফুলবানু বেগম
স্থায়ী ঠিকানা : নলচিড়া,গৌরনদী,বরিশাল।
লেখালেখি শুরু : স্কুল জীবন থেকে
লেখার বিষয় : শিশু সাহিত্য,উপন্যাস এবং গান
(রেডিও এবং টিভি’র তালিকাভুক্ত গীতিকার)
লেখার ধরণ : সহজ-সরল এবং সাবলিল ভাষায় উপস্থাপন।
প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা : ২৭(সাতাশ)টি
অনুরোধ : ভালো বই পড়–ন। ভালো গান শুনুন।
প্রত্যাশা : সকলের দোয়া ও ভালবাসা।

প্রথম লেখা উপন্যাস “এইতো জীবন” এবং “মনময়ূরী”প্রকাশিত হয় ২০০০ সালে। তারপর থেকেই নিয়মিত প্রকাশ হয়ে আসছে তার লেখা ছোটগল্প,উপন্যাস,বিজ্ঞান বিষয়ক ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের বই। ২০১৫ সালে প্রকাশিত হয় উপন্যাস “চোখ যে মনের কথা বলে” এবং ছোট গল্প “কৃষকের বুদ্ধিমান ছেলে। বইমেলা-২০১৮ তে তার লেখা রোমান্টিক উপন্যাস ‘প্রিয় বান্ধবী শিখা প্রকাশনী থেকে বের হয়। তার লেখা প্রথম খন্ড নাটক “ বড় ভালো মানুষ” বাংলা নামক একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে প্রচার হয়। নির্মাণাধীন আছে দু’টি খন্ড নাটক। তিনি বাংলাদেশ বেতার ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের তালিকাভুক্ত গীতিকার। তার লেখা অসংখ্য গান বেতার,টিভি,অডিও-ভিডিওতে প্রচার হয়েছে। তার লেখা উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে আছে- ‘প্রিয় বান্ধবী, মনময়ূরী,তুমি শুধু আমার,আমার ভালবাসা, চোখ যে মনের কথা বলে,রঙ্গরসের গল্প, শ্রেষ্ঠ হাসির গল্প, ছোটদের কিসসা কাহিনী, কৃষকের বুদ্ধিমান ছেলে, জানা অজানা, ছোটদের মজার গল্প,রাজা-রাণীর গল্প ইত্যাদি। তার লেখার মাধ্যমে তিনি সমাজ তথা এ দেশের মানুষের জন্য ভাল কিছু করে যেতে চান। তার লেখা গল্প,উপন্যাস এবং নাটকে সমাজের কথা বলে,দেশের কথা বলে ,দেশের মানুষের কথা বলে। তিনি সকলের দোয়া প্রার্থী

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)