ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ৫ মিনিট ৪৪ সেকেন্ড

ঢাকা শুক্রবার, ৪ মাঘ, ১৪২৬ , শীতকাল, ২১ জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৪১

বাণিজ্যিক রাজধানী সংবাদ ২৮ এপ্রিল শুধু ভোট দিলে হবেনা ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে … মনজুর আলম

২৮ এপ্রিল শুধু ভোট দিলে হবেনা ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে … মনজুর আলম

২৮ এপ্রিল শুধু ভোট দিলে হবেনা ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে ... মনজুর আলম

২৮ এপ্রিল শুধু ভোট দিলে হবেনা ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে … মনজুর আলম

শফিক আহমেদ সাজীব,নিরাপদ নিউজ  : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট সমর্থিত চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ মনজুর আলম আজ বুধবার সকালে ১৭ নং বাকলিয়া ওয়ার্ড ও ১৯ নং দক্ষিণ বাকলিয়া ওয়ার্ডে গণসংযোগ করেছেন। মামলা-গ্রেফতারের খড়ক উপেক্ষা করে মনজুর আলমের সাথে নির্বাচনী প্রচারনায় শরীক হন মহানগর বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন।

গনসংযোগকালে মনজুর আলম এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেছেন, এ নির্বাচন শেষ নয়। এর পর জাতীয় নির্বাচনের জন্য জাতীয়তাবাদী শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি বলেন, দেশ-জনগন আর দলের স্বার্থের প্রশ্নে বিএনপিতে কোন মতবিরোধ নেই। জাতীয়তাবাদী ও দেশপ্রেমিক শক্তির প্রতিটি কর্মী তাদের সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে গনতন্ত্র আর জনগনের অধিকার , নগরবাসীর কাঙ্খিত উন্নয়ন নিশ্চিত করতে এখন একতাবদ্ধ। ২৮ এপ্রিলের বিজয় হবে জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতির বিজয়।

তিনি আরো বলেন, ২৮ এপ্রিল শুধু ভোট দিলে হবেনা, ভোট কেন্দ্র এবং বাক্সও পাহারা দিতে হবে। রাতে ফলাফল নিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে ঘরে ফিরতে হবে। গত সাড়ে চার বছরে বাকলিয়া এলাকায় সবচেয়ে বেশী উন্নয়ন হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আরেকবার কমলালেবু প্রতীকে ভোট দিতে হবে।

গণসংযোগকালে মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সামশুল আলম, নগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেনসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী ও সমর্থক মনজুর আলমের সাথে ছিলেন।

বাকলিয়া ওয়ার্ডের ধুনিরপুল, ডিসি রোড, পশ্চিম বাকলিয়া, মৌসুমি মোড়, মিঞা বাপের বাড়ি, বৌ বাজার এলাকায় গনসংযোগ পরিচালনার পাশাপশি তিনি বিভিন্ন স্থানে পথ সভায় বক্তব্য দিয়ে ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন।

গণসংযোগকালে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন গত তিনদিন ধরে রাজপথে বেগম জিয়ার গাড়ী বহরে যে ভাবে নগ্ন হামলা হচ্ছে তার জবাব দিতে ২৮ এপ্রিল কমলা লেবুকে বিজয়ী করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন বেগম জিয়ার নেতৃত্বে জাতীয়তাবাদী শক্তির আন্দোলন চলবে। এ নির্বাচন গনতন্ত্র রক্ষার নির্বাচন। গত ৫ জানুয়ারী বর্তমান সরকার এদেশের গণমানুষের ভোটের অধিকার হরন করেছেন। ২৮ এপ্রিল ভোট কেন্দ্রে গিয়ে কমলা লেবুতে সীল মেরে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার আহবান জানান।

গণসংযোগকালে মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি সামশুল আলম, সাবেক ছাত্রদল নেতা মোহাম্মদ আলী, মহানগর যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, মহানগর মহিলা দলের সভানেত্রী মনোয়ারা বেগম মনি, চৌধুরী সায়েফুদ্দিন রাসেদ সিদ্দিকী (রাসেদ চৌধুরী), বিএনপি নেতা মো. সালাউদ্দিন, সাইফুর রহমান বাবুল, নূর মোহাম্মদ, সালাউদ্দিন লাভু, শফিক আহমেদ, শাহআলম, আলী ফজল, আবুল খায়ের মেম্বার, শহীদুল ইসলাম চৌধুরী, মোহাম্মদ জিয়া উদ্দিন, শফিকুল ইসলাম খোকন, রাসেদ পারভেজ সুজন, মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, নুরুন নবী তুফান, দিদারুল আলম, আবুল কালাম, নেজাম উদ্দিন, মোহাম্মদ এছাক, জহির সওদাগর, শহিদুল আলম বাবু, কামাল আহমদ, আলাউদ্দিন, ওসমান গনি, মো. হান্নান, এমএ হালিম বাবুল, জসিম বাদশা, মো. হাসনাত মাসুদ, জয়নাল, বিপ্লব, আলমগীর প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)