ব্রেকিং নিউজ
বাংলা

আপডেট ২১ মিনিট ৪০ সেকেন্ড

ঢাকা মঙ্গলবার, ৬ ফাল্গুন, ১৪২৬ , বসন্তকাল, ২৩ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১

সংগঠন সংবাদ, সিলেট ৩ মাসের মধ্যে ট্রাক চলাচলের জন্য কোম্পানীগঞ্জ-বাদাঘাট-তেমুখী বাইপাস সড়ক চালুর দাবি

৩ মাসের মধ্যে ট্রাক চলাচলের জন্য কোম্পানীগঞ্জ-বাদাঘাট-তেমুখী বাইপাস সড়ক চালুর দাবি

সিলেট ব্যুরো, নিরাপদ নিউজ: সিলেট নগরীতে বেপরোয়া গতিতে ট্রাক চলাচল বন্ধ ও ৩ মাসের মধ্যে কোম্পানীগঞ্জ-বাদাঘাট-তেমুখী বাইপাস সড়ক চালুর দাবিতে নিরাপদ সড়ক চাই- নিসচা সিলেট মহানগর শাখার উদ্যোগে শনিবার (১৮ জানুয়ারি) শনিবার দুপুর ১২টায় আম্বরখানা পয়েন্টে বিশাল মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।


নিসচা সিলেট মহানগর শাখা সভাপতি রোটা. এম. ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাদী পাভেলের পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- নিসচা কেন্দ্রীয় কমিটির সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক ও সিলেট-চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সদস্য সচিব মো. জহিরুল ইসলাম মিশু। এসময় তিনি বলেন, নগরীতে বেপরোয়া ট্রাক চলাচলের কারনে প্রতিদিনই দুর্ঘটনা ঘটছে। এতে হতাহতের ঘটনাও বাড়ছে। এখনই যদি এই সমস্যা সমাধান না করা হয় তাহলে দুর্ঘটনার হার প্রকট আকার ধারণ করবে। আগামী ৩ মাসের মধ্যে ট্রাক চলাচলের জন্য কোম্পানীগঞ্জ-বাদাঘাট-তেমুখী বাইপাস সড়কের ১০ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ করে ট্রাক চলাচলের জন্য খুলে দেয়ার আহ্বান জানান। অন্যথায়- সিলেট নগরীর সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। একই সাথে রাত ৮টার পরিবর্তে রাত ১০টার পর থেকে যেন ট্রাক নগরীতে প্রবেশ করে তা বাস্তবায়নের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান এবং রাতের বেলায় নগরীতে ট্রাক যেন অভার স্পিডে না চলে সেজন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তিনি বলেন, আমরা চাই না, দ্রুত গতির ট্রাক যেন আর কোন মানুষের জীবন কেড়ে না নেয় সেজন্য চালক ও পথচারীদেরকে সচেতন থাকার আহ্বান জানান।


অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন- নিসচা সিলেট মহানগর শাখার সহ-সভাপতি ইমানুর রশিদ চৌধুরী, কামরুল ইসলাম কামরুল, নিসচা সিলেট জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হোসেন খান, আম্বরখানা বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক গুলজার আহমদ, প্রচার সম্পাদক নান্টু চন্দ্র, নিসচা সিলেট মহানগরের সহ-সাধারণ সম্পাদক সাদেকুর রহমান চৌধুরী, আতিকুর রহমান খান মুন্না, অর্থ সম্পাদক ডা. মনির চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদুজ্জামান তপাদার মুক্তার, প্রচার সম্পাদক সুহেল চৌধুরী, দুর্ঘটনা অনুসন্ধান বিষয়ক সম্পাদক ডা. লোকমান হেকিম, দপ্তর সম্পাদক কাইয়ূম চৌধুরী, সমাজকল্যাণ সম্পাদক আল আমিন খান, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক আহসান হাবিব, যুব সম্পাদক মারজান, ইনসাফ ভিলেজ ডেভেলপমেন্ট ইয়ূথ ফর সোসাইটির সভাপতি নজরুল ইসলাম, সহ সভাপতি মুক্তার হোসেন, ব্যবসায়ী মোজাম্মেল আলম সাদ্দাম, সদস্য ফখরুল আল হাদী, নাজমূল হোসেন, ইব্রাহিম হাসান, আমিনুল হক রানা, শফিউল আলম, মাজেদুল হক, তোফায়েল আহম তুহিন, এমাদ আহমদ রবি, দেলওয়ার আহমদ চৌধুরী, আবু সালেহ মো. জাকারিয়া, মো. ওমর ফারুক, মোজাম্মেল আলম সালেহ, ইফতেখার হোসেন সুহেল, আশরাফ উদ্দিন, দেলোয়ার হোসেন, বীরেন্দ্র চক্রবর্তী, শাহীনুর রহমান, আলী আকবর, আলী হাসান, আবেদ হোসেন, আমিরুল ইসলাম, আজমল হোসেন, জুমাত আহমদ জুমেল, আবীর মুহাম্মদ, ইব্রাহিম হাসান, আব্দুল্লাহ আল হাসান, ব্যবসায়ী ছমরু মিয়া প্রমুখ।

পাঠকের মন্তব্য: (পাঠকের কোন মন্তব্যের জন্য কর্তৃপক্ষ কোন ক্রমে দায়ী নয়)